কলারোয়া হাসপাতাল সড়কটির বেহাল দশা


প্রকাশিত : August 2, 2019 ||

কলারোয়া প্রতিনিধি: কলারোয়া হাসপাতাল সড়কটি চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। প্রায় ৩ শ’ মিটার দীর্ঘ এই সড়কটি ছোট-বড় ভাঙনে জর্জরিত। জনগুরুত্বপূর্ণ এই সড়কটির বর্তমানে যারপর নেই বেহাল অবস্থা। পৌর কর্তৃপক্ষও এই সড়কটি সংস্কারে উদাসীন বলেই প্রতীয়মান হচ্ছে। চলতি সপ্তাহে উদ্বোধন হওয়া পৌণে ৬ কোটি টাকার নগর অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় অন্তর্ভুক্ত করা হয়নি সড়কটি। যা রীতিমতো বিস্ময়কর। যেখানে গর্ত হয়ে গেছে, সেখানে ইট বা ইটের টুকরা ফেলে ভরাট করছেন অনেকেই ব্যক্তি উদ্যোগে। কলারোয়া কৃষি ব্যাংকের সামনে থেকে হাসপাতাল ফটক হয়ে বঙ্গবন্ধু মহিলা কলেজ তোরণ হয়ে হাসান প্যাথলজি পর্যন্ত হাসপাতাল সড়কটির ব্যাপ্তি। সরেজমিনে দেখা গেছে, ৩ শ’ মিটারব্যাপি এই সড়কটির বিভিন্ন স্থান ভেঙে গেছে। ছোট-বড় খানা-খন্দে ভরে গেছে গোটা সড়কটি। বর্ষার পানি জমে যাওয়ায় পথ চলা দুর্বিষহ হয়ে পড়ে পথচারীদের। জল-কাদায় একাকার হয়ে যায়। যানবাহন চলাচলও কঠিন হয়ে পড়ে। পৌরসভার সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ সড়কটিই সবচেয়ে অবহেলিত অবস্থায় রয়েছে। হাসপাতালে রোগী আনা-নেওয়া কঠিন হয়ে পড়ে সড়কটির ভগ্নদশার কারণে। ভাঙা সড়কের ঝাঁকুনি মোকাবেলা করতে হয় সবধরনের রোগীদের। এবিষয়ে আলাপকালে ভারপ্রাপ্ত পৌর মেয়র প্রধান শিক্ষক মনিরুজ্জামান বুলবুল জানান, নির্মাণের এক বছরের মাথায় রাস্তাটি নষ্ট হওয়ায় ঠিকাদারের বিলের একটা অংশ আটকে রাখা হয়েছে। যেহেতু নির্দিষ্ট সময়কালের আগেই রাস্তাটি নষ্ট হয়ে গেছে, তাই সময়কাল উত্তীর্ণ না হওয়া পর্যন্ত সেটি সংস্কার করা যাচ্ছে না। আর সেই কারণে নগর উন্নয়ন প্রকল্পে আওতায় হাসপাতাল সড়কটি যুক্ত করা যায়নি বলে ভারপ্রাপ্ত পৌর মেয়র জানান।