সীমান্ত সড়ক নির্মাণে পাল্টে গেছে বেনাপোলের দৃশ্যপট


প্রকাশিত : August 3, 2019 ||

এমএ রহিম, বেনাপোল (যশোর): নানান দুর্ভোগের পর বেনাপোলে সীমান্ত সড়ক নির্মাণে পাল্টে গেছে এলাকার দৃশ্যপট। কৃষি শিক্ষা, চিকিৎসা ব্যবসা ও যোগাযোগে সীমান্ত সড়ক নতুন মাত্রা পেয়েছে।
শার্শা উপজেলার সীমান্তবর্তী ডিহি, কাশিপুর, শিকারপুর, ধান্যখোলা, ঘিবা, রঘুনাথপুর, সাদিপুর ও বেনাপোল পুটখালি হয়ে গোগা, রুদ্রপুর ও কায়বা এলাকার লক্ষাধীক মানুষ দীর্ঘদিন যাবত সীমান্তের কাচাঁসড়ক দিয়ে চলাচল করে আসছিল। প্রশাসন, রোগী, শিক্ষার্থী, কৃষক, ব্যবসায়িরাসহ পথচারিদের কাঁদা ও ধুলাবালিতে চলাচলে কষ্ট ও দুর্ভোগ পোহাতে হতো। এলাকাবাসির দীর্ঘ দিনের দাবীর মুখে পর্যায় ক্রমে শুরু হয় সীমান্ত সড়ক নির্মাণ কাজ। এ বছরেই শেষ হয়েছে কাজ।
জাহাঙ্গীর আলম ও স্থানীয় ইদ্রিস আলী বলেন, সীমান্ত সড়ক পাকাকরণে উপকৃত হয়েছে চাষী ব্যাবসায়ি ও স্থানীয়রা। স্বাধীনতা পরবর্তীতে এ সড়ক নির্মাণে, শেষ বয়েসে এসেও পাকা রাস্তা পেয়ে খুশি হয়েছি।
শার্শা-উপজেলা উপ-সহকারি প্রকোশলী-মশিয়ার রহমান বলেন, যশোরের শার্শার দক্ষিণ-পশ্চিম এলাকায় ২০ কোটি টাকা ব্যয়ে ৫০ কিলোমিটার সীমান্ত সড়ক পাকাকরণ করা হয়েছে। সীমান্ত সড়কের পাশ দিয়ে সড়কবাতি স্থাপন ও সবুজ বনায়নের দাবী এলাকার মানুষের।