শ্যামনগরে মৌয়ালদের দক্ষতা উন্নয়নে প্রশিক্ষণ

ডেস্ক রিপোর্ট: শ্যামনগর উপজেলার বুড়িগোয়ালিনী ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে আধুনিক প্রযুক্তি প্রয়োগের মাধ্যমে মৌচাষ সম্প্রসারণের লক্ষ্যে মৌয়ালদের দক্ষতা উন্নয়ন বিষয়ক ২ সপ্তাহব্যাপী প্রশিক্ষণ কর্মসূচি বুধবার শেষ হয়েছে।
বিসিক, সাতক্ষীরার উদ্যোগে প্রশিক্ষণে সুন্দরবনে মধূ আহরণ করতে যাওয়া ৩৫ জন মৌয়ালকে বৈজ্ঞানিক পদ্ধতিতে মধূ সংগ্রহের ওপর প্রশিক্ষণ দেয়া হয়। প্রশিক্ষক ছিলেন মুহা. আমির হামজা। সমাপনী দিনে ভাতা প্রদান অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিসিক, সাতক্ষীরার উপ-ব্যবস্থাপক আব্দুল ওদুদ। অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, সুন্দরবন মৌচাষী কল্যাণ সমিতির সভাপতি মোতালেব হোসেন মৌচাষী আইয়ুব আলী।
সভাপতির বক্তব্যে আব্দুল ওদুদ বলেন, সুন্দরবনে মধূ আহরণ করতে যেয়ে অসংখ্য মৌয়ালকে বাঘ অথবা বনদস্যুদের হাতে প্রাণ হারাতে হয়েছে। অথচ বনে না যেয়েও লোকালয়ে মৌবাক্স রেখে অতিসহজেই মৌচাষ করে লাভবান হওয়া যায়। তিনি আরো বলেন, আধুনিক প্রযুক্তি প্রয়োগের মাধ্যমে মৌচাষ উন্নয়ন এবং সম্প্রসারণের লক্ষ্যে সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসন ও বিসিক কাজ করে যাচ্ছে। প্রশিক্ষণ পাওয়া মৌয়ালরা লব্ধ জ্ঞান কাজে লাগিয়ে মৌচাষে সফলতা পেলেই দু’সপ্তাহব্যাপী প্রশিক্ষণ কোর্সটি স্বার্থক হবে।

সুন্দরবনে মুক্তিপণের দাবিতে জেলে অপহৃত

শ্যামনগর প্রতিনিধি: মুক্তিপণের দাবিতে সাইদুল ইসলাম নামের এক জেলেকে অপহরণ করেছে সুন্দরবনের কুখ্যাত বনদস্যু জাহাঙ্গীর বাহিনীর সদস্যরা। জিম্মি হওয়া জেলে শ্যামনগর উপজেলার মুন্সিগঞ্জ গ্রামের শহিদুল ইসলামের ছেলে। গত মঙ্গলবার বিকালে পশ্চিম সুন্দরবনের দোবেঁকী সংলগ্ন হরিখালী এলাকা থেকে বনদস্যুরা তাকে অপহরণ করে। অপহরণের পর সাইদুল ইসলামের মুক্তিপণ বাবদ বনদস্যুরা ত্রিশ হাজার টাকা দাবি করেছে।
অপহৃত জেলের সহযোগীরা এলাকায় ফিরে জানিয়েছে, গত সোমবার সাইদুল ইসলামসহ তারা সুন্দরবনে মাছ শিকারে যায়। এক পর্যায়ে মঙ্গলবার বিকাল সাড়ে চারটার দিকে একদল বনদস্যু তাদের কাছে এসে চাঁদা পরিশোধের টোকেন দেখাতে নির্দেশ দেয়। এসময় তারা কয়েকজন বনদস্যুদের নির্ধারিত টোকেন প্রদর্শন করতে সমর্থ হলেও সাইদুল ইসলামসহ অপর এক জেলে বনে প্রবেশের বিষয়ে ওই বনদস্যু গ্রুপের কোন পূর্বানুমতি দেখাতে পারেনি। এ কারণে বনদস্যুরা অপরিচিত অপর জেলের সাথে সাইদুলকে নৌকা থেকে তুলে নেয় এবং মাথাপিছু ত্রিশ হাজার করে টাকা দাবি করে। পাঁচ দিনের মধ্যে দাবিকৃত টাকা পরিশোধ না করলে তাদের হত্যার হুমকি দেয়া হয়েছে বলেও ফিরে আসা ঐসব জেলে দাবি করেছে।
ফিরে আসা এসব জেলেদের কয়েকজন নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, জাহাঙ্গীর বাহিনীর হয়ে যেসব বনদস্যুরা সাইদুলসহ অপর জেলেকে অপহরণ করেছে তাদের মধ্যে মোরলগঞ্জের ধুলিহাটি এলাকার মোহিতচরনি গ্রামের রফিক হাওলাদারের ছেলে ইব্রাহিম, কামরুল ইসলাম, রামপাল এলাকার নাছির ও ফরিদকে চিনতে পেরেছেন।
জেলে অপহরণের বিষয়ে জানতে চাইলে বুড়িগোয়ালীনি স্টেশন অফিসার হাসান কবির জানান, কোন জেলে অপহৃত হওয়ার বিষয়ে তাদের কাছে কেউ কোন তথ্য দেয়নি। শ্যামনগর থানার অফিসার ইনচার্জ আসলাম খান বলেন, বনদস্যুদের বিরুদ্ধে আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী কঠোর অবস্থানে রয়েছে। তবে কোন জেলেকে অপহরণের বিষয়ে তাদেরকে কেউ অবহিত করেনি।

আটুলিয়ায় বিরোধপূর্ণ জমির দখল নিয়ে দু’পক্ষের সংঘর্ষ, শিশু গুলিবিদ্ধ, শার্টারগান উদ্ধার

শ্যামনগর প্রতিনিধি: উপজেলার আটুলিয়া পল্লীতে বিরোধপূর্ণ একটি চিংড়ি ঘেরের দখল নিয়ে দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে। বুধবার বেলা সাড়ে এগারটার দিকে উপজেলার আটুলিয়ার চরের বিল নামক স্থানে এ ঘটনা ঘটে। এসময় নাইম ইসলাম নামের বার বছর বয়সী এক শিশু পায়ে গুলিবিদ্ধ হলেও দু’পক্ষের কেউ মারাত্মক আহত হয়নি বলে উভয়পক্ষই নিশ্চিত করেছে। পরবর্তীতে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে পরিত্যক্ত অবস্থায় একটি শার্টারগান উদ্ধার করেছে। তবে এরিপোর্ট লেখা পর্যন্ত কোন পক্ষই থানায় লিখিতভাবে কোন অভিযোগ জমা দেয়নি বলে পুলিশ সূত্র নিশ্চিত করেছে।
জানা যায়, উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রয়াত নেতা চেয়ারম্যান আব্দুল কাদেরের পৈত্রিক প্রায় চুহাত্তর বিঘা জমি নিয়ে স্থানীয় বেলায়েত সানা, রাজউদ্দীন সানা ও মিজানুর সানার সাথে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছে। বিষয়টিকে ঘিরে ইতোমধ্যে একাধিকবার দু’পক্ষ দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে পরস্পরের বিরুদ্ধে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়েছে। গত দুই বছর পূর্বেও একই জমির দখর নিয়ে দু’পক্ষ দখল পাল্টা দখল করে এলাকায় চরম উত্তেজনাকর পরিস্থিতির সৃষ্টি করে।
এক পর্যায়ে মুজিবর সানা, বেলায়তে সানাসহ তাদের লোকজন ভাড়াটেদের নিয়ে উক্ত চিংড়িঘেরটি দখল করে নেয়। সে ঘটনার পর থেকে চিংড়িঘেরটি মুজিবর সানা, বেলায়েত সানা ও রাজউদ্দীন সানার দখলে ছিল। বিষয়টি নিয়ে দু’পক্ষই জমির মালিকানার দাবিতে আদালতের দারস্থ হয়েছে। বিষয়টি আদারতের বিচারাধীন থাকার পরও সেখানে প্রায় প্রতি বছর দখল পাল্টা দখলের ঘটনা ঘটে। এরই ধারাবাহিকতায় মঙ্গলবার বেলা এগারটার দিকে জমির প্রকৃত মালিক মহিবুল্লাহ গংয়ের লোকজন ওই জমির দখল নিতে যায়। বিষয়টি আগেভাগেই প্রচার হয়ে পড়ায় জমির দখলে থাকা সানা গং ও তাদের ভাড়াটে লোকজন নিয়ে প্রস্তুত ছিল। এক পর্যায়ে দু’পক্ষ বেলা এগারটার দিকে লাঠিসোটা নিয়ে একে অপরের উপর চড়াও হলে অল্পক্ষণের মধ্যে ইউপি সদস্য হাসিম ও বেলায়েত সানার নেতৃত্বে তাদের লোকজন মহিবুল্লাহ ও তার লোকজনকে ঘটনাস্থল থেকে সরিয়ে দেয়। এসময় স্থনীয় শাহিনুর সানার পুত্র নাইম আকস্মিকভাবে পায়ে গুলিবিদ্ধ হয়।
স্থানীয়দের পাশাপাশি প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছে, সংঘর্ষস্থলে কোন ধরনের গোলাগুলির শব্দ না হলেও শিশুটির পায়ে গুলিবিদ্ধ হওয়ার ঘটনা রহস্যের জন্ম দিয়েছে।
এবিষয়ে ইউপি সদস্য হাসিম জানান, তিনি জাননি। তবে বেলায়েত সানাসহ অন্যরা দখল করতে আসা গ্রুপটিকে ঘের থেকে তাড়িয়ে দিয়েছে।
শ্যামনগর থানার অফিসার ইনচার্জ আসলাম খান জানিয়েছেন, বিরোধপূর্ণ একটি জমির দখলকে ঘিরে দু’পক্ষের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে সেখান থেকে পরিত্যক্ত অবস্থায় একটি শার্টার গান উদ্ধার করেছে। এদিকে সংঘর্ষের ঘটনায় কোন পক্ষই কোন অভিযোগ জমা দেয়নি বলেও তিনি নিশ্চিত করেন।

সুন্দরবনের চুনকুড়ি নদীতে এক ব্যক্তির মৃতদেহ ভাসছে

শ্যামনগর প্রতিনিধি: পশ্চিম সুন্দরবনের সাতক্ষীরা রেঞ্জ’র চুনকুড়ি নদীতে একটি মৃতদেহ ভাসছে। গত সোমবার সকাল থেকে চুনকুড়ি নদীর বিভিন্ন অংশে মৃতদেহটি ভাসছিল বলে স্থানীয় জেলেরা নিশ্চিত করেছে। তবে বনবিভাগ এমন কোন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করতে পারেনি।
উপজেলার চুনকুড়ি নদী সংলগ্ন মীরগাং ও চুনকুড়ি গ্রামের আব্দুস সামাদ, আব্দুর রশিদ, ফরেজ আলীসহ স্থানীয়রা জানান, গত সোমবার সকালে তারা একটি মৃতদেহ নদীতে ভেসে থাকতে দেখে। এক পর্যায়ে বিষয়টি দ্রুত ছড়িয়ে পড়তেই আশপাশের গ্রামের শত শত উৎসুক মানুষ নদীতে ভাসমান ঐ মৃতদেহ দেখার জন্য চুনকুড়ি নদীর পাড়ে ভিড় জমায়।
বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিতকারী গ্রামবাসী জানিয়েছে, তারা ধারণা করছে সুন্দরবনের খাসিটানা খাল এলাকা থেকে সোমবার সকালে মৃতদেহটি চুনকুড়ি নদীতে এসে পড়ে। আরও তিন/চার দিন আগেই মৃতদেহটি নদীর পানিতে ভেসে বেড়াচ্ছে দাবি করে গ্রামবাসী জানায়, মৃতদেহের কোন কোন অংশ শরীর থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। ভাসমান লাশটি গুলির আঘাতে মারা যাওয়া কোন ব্যক্তির মৃতদেহ বলেও স্থানীয়রা দাবি করেছে। তবে মৃতদেহটি কোন বনদস্যুর না কোন জেলের তা নিয়ে সুন্দরবনে যাতায়াতকারী জেলেদের মধ্যে আতংকের সৃষ্টি হয়েছে।
এ বিষয়ে শ্যামনগর থানার অফিসার ইনচার্জ আসলাম খান বলেন, নদীতে মৃতদেহ ভেসে বেড়ানোর বিষয়ে আমরা কোন তথ্য পায়নি।

শ্যামনগরে ওয়ার্ড ডেভেলপমেন্ট কমিটির প্রশিক্ষণ

শ্যামনগর উপজেলার ১নং ভূরুলিয়া ইউনিয়নে উন্নয়ন সংগঠন রূপান্তরের আয়োজনে ও ইউনিসেফ-এর সহায়তায় সিফরডি প্রকল্পের আওতায় উন্নয়নের জন্য যোগাযোগ ও সামাজিক রীতি পরিবর্তন বিষয়ক ওয়ার্ড ডেভেলপমেন্ট কমিটির দুই দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ শেষ হয়েছে।
প্রশিক্ষণের সমাপনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন ভুরুলিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জিএম লিয়াকত আলী। উপস্থিত ছিলেন ইউপি সদস্য নুরুল ইসলাম, শাহাদত হোসেন, নজরুল ইসলাম, ইউনিয়ন কো-অর্ডিনেটর হেনা পারভীন ও মোশারেফ আলী সোহেল প্রমুখ। প্রেস বিজ্ঞপ্তি

কাশিমাড়ীতে পাওনা টাকা চাওয়ায় ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে জখম

শ্যামনগর প্রতিনিধি: পাওনা টাকা চাওয়ায় ফারুক হোসেন (৩২) নামের এক মুদি ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে জখম করেছে দেনাদার। মঙ্গলবার রাত সাড়ে ন’টার দিকে শ্যামনগর উপজেলার কাশিমাড়ী ইউনিয়নের জয়নগর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আশংকাজনক অবস্থায় ফারুক হোসেনকে শ্যামনগর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসকদের পরামর্শে খুলনা ২৫০ শয্যা হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। এদিকে জনতা দেনাদার শহিদুল ইসলাম (২৮) কে অস্ত্রসহ আটক করে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদে আটক রেখে পুলিশকে খবর পাঠিয়েছে।
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গোবিন্দপুর গ্রামের আব্দুল বারীর ছেলে ফারুক হোসেনের কাশিমাড়ী বাজারে একটি মুদির দোকান রয়েছে। ওই দোকান থেকে কাশিমাড়ী গ্রামের আরও অনেকের মত মুনসুর ঘরামীর ছেলে শহিদুল ঘরামী নিয়মিত বিভিন্ন নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্য ক্রয় করতো। এভাবে এক পর্যায়ে প্রায় উনত্রিশ হাজার টাকা দেনা হয়ে পড়ে শহিদুল ইসলামের।
সূত্র মতে, সম্প্রতি ফারুক হোসেনের দোকানে হালখাতা হয়। আমন্ত্রণপত্র পাঠানো সত্ত্বেও দেনাদার শহিদুল সেখানে হাজির হয়নি। এ ঘটনার পর বিষয়টি শহিদুলের পরিবারের কাছে অভিযোগ আকারে জানায় ব্যবসায়ী ফারুক হোসেন। এ কারণে ক্ষুব্ধ শহিদুল মঙ্গলবার রাত সাড়ে ন’টার দিকে দোকান থেকে বাড়ি ফেরার পথে বগি দা দিয়ে ফারুককে উপর্যুপরি কুপিয়ে আহত করে। আহতের চিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে এসে দরুত ফারুককে হাসপাতালে পাঠায় এবং শহিদুলকে অস্ত্রসহ আটক করে ইউনিয়ন পরিষদে রাখে। এ খবর পাওয়া পর্যন্ত পুলিশ ঘটনাস্থলের উদ্দেশ্যে রওনা হয়েছে।

শ্যামনগরে কৃষি পরিকল্পনা সভা

সুন্দরবনাঞ্চল (শ্যামনগর) প্রতিনিধি: রোববার শ্যামনগর উপজেলা পরিষদের হলরুমে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের আয়োজনে ডিজিস্টার এ্যান্ড ক্লাইমেট রিক্স ম্যানেজমেন্ট ইন এগ্রিকালচার প্রকল্পের খরিপ-২ মৌসুমের পরিকল্পনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।
উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অফিসার শিকদার মোহায়মেন আক্তারের সভাপতিত্বে সভায় অতিথির বক্তব্য রাখেন ডিজিস্টার এ্যান্ড ক্লাইমেট রিক্স ম্যানেজমেন্ট ইন এগ্রিকালচার প্রকল্পের পরিচালক শফিউল আলম। বক্তব্য রাখেন উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. বিপ্লবজীত কর্মকার, সহকারি মৎস্য কর্মকর্তা শেখ হাফিজুর রহমান, প্রধান শিক্ষক কৃষ্ণানন্দ মুখার্জী ও উপ-সহকারি কৃষি কর্মকর্তাবৃন্দ।

কাশিমাড়ীতে যৌতুকের জন্য স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যার চেষ্টা!

কাশিমাড়ী (শ্যামনগর) প্রতিনিধি: ব্যবসার জন্য দাবিকৃত টাকা না পেয়ে যৌতুক লোভী স্বামী স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যার চেষ্টা চালিয়েছে। এ ঘটনার পরপরই পাষণ্ড স্বামী পালিয়ে গেছে। সংজ্ঞাহীন স্ত্রীকে উদ্ধার করে শ্যামনগর স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভর্তি করা হয়েছে। শ্যামনগর উপজেলার কাশিমাড়ী ইউনিয়নের জয়নগর গ্রামে রোববার সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে এ ঘটনা ঘটে।
আহতের পরিবার সূত্রে জানা যায়, ২ বছর পূর্বে জয়নগর গ্রামের মাওলানা নুরুল হক ফারুকীর ছেলে নাজমুস শাদাৎ বিল্লালের সাথে রঘুনাথপুর গ্রামের আব্দুস সামাদ সরদারের মেয়ে নিলুফার ইয়াসমিনের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে নিলুফারের উপর স্বামী যৌতুকের জন্য বিভিন্নভাবে চাপ সৃষ্টি করে আসছিল। কিন্তু দরিদ্র এবং কাঠ ব্যবসায়ী পিতা সামান্য কিছু আবদার রক্ষা ছাড়া তেমন কোন সহায়তা করতে না পারায় প্রায়ই তাকে স্বামীর নির্যাতনের শিকার হতে হতো। এক পর্যায়ে সম্প্রতি বিল্লাল কসমেটিকস ব্যবসা করার জন্য পুঁজি হিসেবে স্ত্রীর মাধ্যমে শ্বশুরের কাছে পঞ্চাশ হাজার টাকা দাবি করে। কিন্তু দরিদ্র শ্বশুর বাড়ির লোকজন সে দাবি রক্ষা করতে না পারায় ক্ষুব্ধ হয় বিল্লাল। এসব ঘটনার জের ধরে রোববার সন্ধ্যায় স্বামী-স্ত্রী বাদানুবাদে লিপ্ত হয়। এক পর্যায়ে বিল্লাল দেশীয় অস্ত্র ও লাঠি দিয়ে পিটিয়ে নিরুফার ইয়াসমিনকে হত্যার চেষ্টা করে। এসময় পরিবারের সদস্যসহ প্রতিবেশীরা এগিয়ে আসলে বিল্লাল পালিয়ে যায় বলে স্থানীয়রা জানায়। নির্যাতনের শিকার নিলুফারের পরিবারের সদস্যরা দাবি করেছে তারা যৌতুকের দাবির কারনে আইনের আশ্রয় নেবে।

জলাবদ্ধতা দূরীকরণের দাবিতে বুড়িগোয়ালীনিতে মানববন্ধন

শ্যামনগর প্রতিনিধি: উপজেলার বুড়িগোয়ালীনি ইউনিয়নের ঢালীপাড়া, মোল্যাপাড়া, সরদারপাড়া, টুঙ্গিপাড়াসহ আশপাশের এলাকার জলাবদ্ধতা দূরীকরণের দাবিতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।
শনিবার সকাল দশটায় সিসিডিবি’র উদ্যোগে ও বুড়িগোয়অলীনি ইউনিয়ন পরিষদের সহযোগিতায় অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে শতাধিক ভুক্তভোগী পরিবারের সদস্যরা অংশগ্রহণ করেন।
মানবন্ধন কর্মসূচিতে অংশগ্রহণকারীরা দাবি উত্থাপন করে জানান, সরকারি খাস খতিয়ানভুক্ত খাল ও জলাকারসমূহ ইজারা নিয়ে প্রভাবশালীরা মাটির ভরাট করে বসতি গড়ে তুলেছে। তারা আরও জানান, খালের মুখে মাটি ভরাটি দিয়ে পানি নিষ্কাশনের সুযোগ বন্ধ করে দেয়ায় স্থানীয় প্রায় পাঁচ হাজার মানুষ চলতি বর্ষা মৌসুমে পানিবন্দী হয়ে পড়েছে। তারা অবিলম্বে সরকারি এসব খাস খালের বন্দোবস্ত বাতিল করে হাজার হাজার মানুষকে পানিবন্দী অবস্থা থেকে নিস্কৃতি দিতে জেলা প্রশাসকসহ সংশ্লিষ্টদের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।
মানববন্ধন কর্মসূচিতে অংশগ্রহণকারীরা উল্লেখ করেন, ওয়াজেদ সরদার, সিরাজুল ইসলাম, আছিয়া বেগম, শহিদুল বিশ্বাস ও আমজাদ গাজীর মত আরও কয়েকজন প্রভাবশালী সরকারি খাল ইজারা নিয়ে সেখানে বসতি স্থাপন করে খালের মুখ আটকে পানি নিষ্কাশনের রাস্তা বন্ধ করে দিয়েছে।
মানববন্ধন কর্মসূচিতে প্রধান অতিথি ছিলেন স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম, স্থানীয় ইউপি সদস্য শহিদুল সলাম, সাজেদা বেগম, সিসিডিবি’র সমন্বয়কারী দানেশ আলী, হায়দার আলী, আব্দুল জলিল, মোহন কুমার মন্ডল, শাহাববুদ্দিন মোড়লসহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।

জয়নগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটি গঠন

কাশিমাড়ী প্রতিনিধি: শনিবার সকাল ১০টায় শ্যামনগরের ৫৭নং জয়নগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটি গঠন করা হয়েছে।
কমিটিতে মাওলনা নজরুল ইসলাম ৮ ভোট পেয়ে সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন। নির্বাচন পরিচালনা করেন আব্দুল হাকিম, আলী আফসার গাজীও প্রফেসর গোলাম মোস্তফা।
এছাড়া কাশিমাড়ী আদর্শ মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও কলেজের অধ্যক্ষ এসএম আব্দুল হাই এ সময় উপস্থিত ছিলেন ।

কাশিমাড়ী ইউনিয়নের বাজেট ঘোষণা

রবিউল ইসলাম, কাশিমাড়ী: শনিবার বিকাল ৩টা ৩০ মিনিটে কাশিমাড়ী ইউনিয়ন পরিষরে ২০১৩-১৪ অর্থ বছরের উন্মুক্ত বাজেট অধিবেশন ও বার্ষিক পরিকল্পনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।
অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন কাশিমাড়ী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান গাজী আব্দুল হামিদ। অনুষ্ঠানে ইউপি সদস্য ও ইউনিয়নের গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।
অনুষ্ঠানে কাশিমাড়ী ইউনিয়ন পরিষদের সচিব বিকাশ কান্তি হালদার ২০১৩-১৪ অর্থ বছরের জন্য ২ কোটি ১৭ লক্ষ ৯ হাজার টাকানর বাজেট ঘোষণা করেন।

বুড়িগোয়ালীনিতে ৪০ দিনের কর্মসূচির অর্থ ফেরত

আব্দুল হালিম, বুড়িগোয়ালিনী (শ্যামনগর): বুড়িগোয়ালিনী ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডে হতদরিদ্রদের ৪০ দিনের কাজের অর্থ সরকারি কোষাগারে ফেরত দেয়া হয়েছে।
সূত্র জানায়, ২৮ দিনের কাজের ১০৬ শ্রমিকের ১৮৫৫০ টাকা মুন্সিগঞ্জ অগ্রণী ব্যাংকের মাধ্যমে সরকারি কোষাগারে ফেরত দেয়া হয়েছে।

মালয়েশিয়ায় প্রাণ হারালেন আব্দুল মজিদ

হুমায়ন কবির সোহাগ, ঈশ্বরীপুর (শ্যামনগর): পরিবারের স্বচ্ছলতা ফেরাতে সোনার হরিণের খোঁজে ২০০৭ সালে মালয়েশিয়ায় পাড়ি জমান শ্যামনগর উপজেলার শ্রীফলকাটি গ্রামের মৃত নেদু মোড়লের পুত্র আব্দুল মজিদ মোড়ল (৫৫)। শেষবারের মত পরিবার পরিজনের সাথে দেখা করে গত ২০ এপ্রিল মালয়েশিয়াতে ফিরে যান তিনি। কিন্তু মাত্র দুই মাস পর গত ২০ জুন দিবাগত রাতে সেখানের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান আব্দুল মজিদ মোড়ল। তার এই অনাকাংক্সিক্ষত মৃত্যুতে শোকের ছায়া নেমে এসেছে পুরো পরিবারে। কে জানত আর কোনদিন ফিরবে না তাদের একমাত্র উপার্জনকারী ব্যক্তিটি। মৃত্যুকালে তিনি ২ মেয়ে ও এক ছেলেসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। আগামী ২৬ জুন তার লাশ দেশে ফেরার কথা রয়েছে।

উপকারভোগীদের নগদ অর্থ সহায়তা প্রদান

মোস্তাফিজুর রহমান, আটুলিয়া (শ্যামনগর): বুধবার সুশীলন’র টাইগার পয়েন্টে সুন্দরী প্রকল্পের উপকারভোগীদের মাঝে অইজিএ বাবদ নগদ অর্থ সহায়তা প্রদান করা হয়েছে।
এ সময় সুন্দরবন সংলগ্ন বুড়িগোয়ালিনী ইউনিয়নের ১০০ জন, মুন্সিগঞ্জ ইউনিয়নের ১২৮ জন এবং প্রতাপনগর ইউনিয়নের ৬০ জন উপকারভোগীর মাঝে মাথাপিছু ৬৮০৪ টাকা করে প্রদান করা হয়।
অনুষ্ঠানে মুন্সিগঞ্জ ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের মেম্বর মোস্তাফিজুর রহমান বকুল, বুড়িগোয়ালিনী ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের মেম্বর সাইফুল ইসলাম, মাহফুজা খানম এবং তাপস কুমার দাস উপস্থিত ছিলেন।

খাগড়াদানা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন অনুষ্ঠিত

শ্যামনগর অফিস: শ্যামনগর উপজেলার ৯১নং খাগড়াদানা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে।
শুক্রবার বিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে অনুষ্ঠিত ত্রি-বার্ষিক নির্বাচনে গাজী মিজানুর রহমান ৪৯৯, গাজী আহম্মদ আলী ৪৮৭, সালমা খাতুন ৫১৩ ও মমতাজ বেগম ৪৭৮ ভোট পেয়ে অভিভাবক সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হন। এবারের নির্বাচনে মোট ৮৭২ জনের মধ্যে ৭৫২ ভোটার ভোট দেন।
এছাড়া নির্বাচনের পূর্ব মুহূর্তে শেখ নুর মোহাম্মদ, ফিরোজা বেগম এবং জায়েদা বেগম নিজেদের প্রার্থীতা প্রত্যাহার করে নেন।

কাশিমাড়ীতে ৪ দলীয় ফুটবল টুর্ণামেন্টে হসপস একাদশ চ্যাম্পিয়ন
কাশিমাড়ী (শ্যামনগর) প্রতিনিধি: কাশিমাড়ীর গোবিন্দপুর কলেজিয়েট বিদ্যালয়ের মাঠে শুক্রবার চার দলীয় ফুটবল টুর্ণামেন্টের ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে।
বিকাল চারটায় অনুষ্ঠিত ফাইনালে কাশিমাড়ীর হসপস একাদশ প্রতিদ্বন্দ্বী কৃষ্ণনগর ফুটবল একাদশকে ২-০ গোলে পরাজিত করে। খেলায় বিজয়ী দলের শামিম দু’টি গোল করেন। খেলা শেষে পুরস্কার বিতরণ করেন গোবিন্দপুর কলেজিয়েট বিদ্যালয়ের অধ্যক্ষ গাজী সফিকুল ইসলাম। এসময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার দেবী রঞ্জন, মুক্তিযোদ্ধা আবুল বাসার, মেম্বর সহিদুল ইসলাম, হামিদুল উসলাম ও শচিন্দ্রনাথ মন্ডল প্রমুখ। খেলা পরিচালনা করেন বাবর আলী।