সুন্দরবনের তীরবর্তী “স” মিল থেকে সুন্দরবনের কাঠ উদ্ধার


প্রকাশিত : April 5, 2012 ||

শ্যামনগর প্রতিনিধি : সুন্দরবনের তীরবর্তী পদ্মপুকুরের খুটিকাটা এলাকা থেকে গতকাল সকালে বনবিভাগ অভিযান চালিয়ে সুন্দরবনের মুল্যবান কাঠ উদ্ধার  করেছে। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সাতক্ষীরা রেঞ্জের বুড়িগোয়ালীনি ষ্টেশন অফিসার মাহবুবুর রহমানের নেতৃত্বে উক্ত কাঠ উদ্ধার করা হলেও এ ঘটনায় কাউকে আটক করা হয়নি। স্থানীয়রা জানিয়েছে সুন্দরবনের কাঠ পাচার চক্রের সদস্যরা উপকুলীয় এসব “স” মিলকে পুঁজি করে দীর্ঘদিন ধরে সুন্দরবনের কর্তন নিষিদ্ধ কাঠ চেরাই করে দেশের বিভিন্ন স্থানে সরবরাহ করে আসছে।

বনবিভাগ সুত্র জানায় সুন্দরবন থেকে কাঠ পাচার চক্রের কয়েক সদস্য গোপনে কাঠ নিয়ে এসে খুটিকাটা “স”মিলে চেরাই করছে মর্মে তাদের কাছে সংবাদ আসে। এঘটনার পর বুড়িগোয়ালীনি ষ্টেশন অফিসার মাহবুবুর রহমানের নেতৃত্বে ফরেষ্টার নাইমুল ইসলামসহ অন্যরা খুটিকাটা গ্রামের আঃ হমিদের পুত্র রফিকুল ইসলামের “স” মিলে অভিযান চালিয়ে প্রায় ষাট হাজার টাকা মুল্যের সুন্দরী, কেওড়া ও ধুদুল কাঠ আটক করে। এ সময় তারা “স” মিলের ২টি করাত, ১টি চাকা উদ্ধার করে।

অভিযানের সময় “স” মিলের মালিক সহ কর্মচারীরা পালিয়ে যায় বলে জানায় বনবিভাগ। স্থানীয়রা অভিযোগ করেছে যে দীর্ঘদিন ধরে অতি গোপনে উপকূলীয় এলাকার উক্ত “স” মিলসহ আটুলিয়া এবং বুড়িগোয়ালীনির আরও কয়েকটি “স” মিলে সুন্দরবনের চোরাইকৃত সুন্দরী, পশুর, ধোতুল, বাইন, কেওড়া চেরাই করার কাজ চলছে। সাতক্ষীরা রেঞ্জের সহকারী কর্মকর্তা মোঃ তৌফিকুল ইসলাম জানান, কাঠ পাচারকারীদের বিরুদ্ধে বন আইনে মামলার প্রস্তুতি চলছে।