শ্যামনগরে বিএনপি অফিসে ছাত্রলীগের হামলা, টিভি ও আসবাবপত্রে অগ্নিসংযোগ


প্রকাশিত : July 14, 2012 ||

শ্যামনগর প্রতিনিধি : শ্যামনগরে উপজেলা বিএনপি’র কার্যালয়ে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা হামলা চালিয়েছে। এসময় উত্তেজিত নেতাকর্মীরা অফিসের তালা ভেঙে আসবাবপত্র রাস্তায় নিয়ে এসে তাতে অগ্নিসংযোগ করে। এদিকে শ্যামনগর থানা থেকে বিএনপি অফিস মাত্র একশ গজ দূরে হলেও পুলিশ ভাংচুর শুরু হওয়ার প্রায় দেড় ঘণ্টা পর ঘটনাস্থলে পৌঁছায়। এঘটনায় এলাকায় চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে।

জানা গেছে, গতকাল সন্ধ্যা পৌনে সাতটার দিকে ছাত্রলীগের উদ্যোগে শ্যামনগর সদরে একটি মিছিল বের হয়। মিছিল থেকে জেলা বিএনপি সভাপতিসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ সম্পর্কে খারাপ ভাষায় সে­াগান দেওয়া হয়। মিছিলটি নকিপুর বাজার প্রদক্ষিণ শেষে শ্যামনগর বাসস্ট্যান্ড এলাকায় পৌঁছে পথসভা করে। এসময় উপজেলা ছাত্রলীগের আহবায়ক সাইদ-উজ জামান সাইদের সভাপতিত্বে প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এসএম জগলুল হায়দার, সাধারণ সম্পাদক গাজী আনিসুজ্জামান আনিছ, যুগ্ম সম্পাদক জাফরুল আলম বাবু, যুগ্ম সম্পাদক এ্যাড. জহুরুল হায়দার বাবু, সাংগঠনিক সম্পাদক গোলাম মোস্তফা মুকুল, উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম আহবায়ক আল-মামুন লিটন, নাজমুল হুদা রিপন, মেহেদী হাসান মারুফ, কামরুল, সোহেল, নাজমুল প্রমুখ।

এক পর্যায়ে সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা মিছিল নিয়ে বিএনপি কার্যালয়ের সামনে যেয়ে দোতলা অফিসটিতে ইট পাটকেল নিক্ষেপ করে। এসময় কয়েকজন উত্তেজিত ছাত্রলীগ কর্মী দলীয় কার্যালয়ের তালা ভেঙে ফেলে বিএনপি অফিসের মধ্যে ঢুকে ভাংচুর চালায় এবং আলমারী, চেয়ার টেবিল ও টিভিসহ বেশকিছু আসবাবপত্র বাইরে এনে তাতে অগ্নিসংযোগ করে। এক ঘণ্টারও বেশী সময় ধরে এ ঘটনা চললেও ঘটনাস্থলের আশপাশে কোন পুলিশকে দেখা যায়নি। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, প্রায় দেড়ঘণ্টা পর রাত সাড়ে আটটার পর ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা ঘটনাস্থল ছেড়ে যাওয়ার পর পুলিশ সেখানে যায়।

ছাত্রলীগ দাবি করেছে, গত বৃহস্পতিবার তালা উপজেলার এক জনসভায় জেলা বিএনপি’র সভাপতি সাবেক এমপি হাবিবুল ইসলাম হাবিব পদ্মা সেতুতে বিশ্ব ব্যাংকের অর্থায়ন বন্ধ প্রসংগে প্রধানমন্ত্রীকে দুর্নীতিবাজ বলে। এ কারণে ক্ষুব্ধ ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা গতকাল মিছিল ও পথসভা করে। এক পর্যায়ে কিছু উত্তেজিত ছাত্রলীগ কর্মী বিএনপি অফিসে হামলা চালায়। এবিষয়ে উপজেলা বিএনপির সভাপতি মাস্টার আব্দুল ওয়াহেদ বলেন, একটি রাজনৈতিক বক্তব্যকে কেন্দ্র করে তারা বিএনপি অফিসে হামলা চালিয়েছে। দলীয়ভাবে বসেই এবিষয়ে পরবর্তী মন্তব্য করা হবে বলেও তিনি জানান। শ্যামনগর থানার অফিসার ইনচার্জ আমীর তৈমুর ইলি জানান, ছাত্রলীগের লোকজন বিএনপি অফিসে ঢুকে চেয়ার টেবিল ভাংচুর করে। তবে তারা টায়ারে আগুণ লাগিয়ে দেয়।