কলারোয়ায় শিক্ষকের বিরুদ্ধে ভিক্ষুককে ধর্ষণের অভিযোগ


প্রকাশিত : জুলাই ২৬, ২০১২ ||

মনিরুল ইসলাম মনি : কলারোয়ায় শিক্ষকের বিরুদ্ধে এক ভিক্ষুককে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। গতকাল সকাল ১০টার দিকে কলারোয়া উপজেলার তুলসীডাঙ্গা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

অভিযোগ উঠেছে, ওই শিক্ষককে রক্ষার জন্য একটি প্রভাবশালী মহল দৌড়ঝাপ শুরু করেছে। মোটা অংকের টাকা নিয়ে বিষয়টি ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করা হচেছ। ঘটনাটি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও থানা পুলিশ জানার পরও অভিযুক্ত শিক্ষকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ না করায় তাদের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে।

এলাকাবাসী জানায়, উপজেলার বাটরা গ্রামের এক ভিক্ষুক (২৫)  প্রতিদিনের ন্যায় গতকাল সকালে বাড়ি থেকে বের হয়ে ভিক্ষা করতে।  বৃষ্টির মধ্যে ওই ভিক্ষুক তুলশিডাঙ্গা এলাকার এক বেসরকারি স্কুলের শিক্ষক আমজাদ হোসেনের বাড়িতে যান। এ সময় ওই শিক্ষক টাকা দেওয়ার কথা বলে তাকে কৌশলে তার ঘরের ভিতরে ডেকে নিয়ে যান। ঘরে ঢোকার সাথে সাথে ঘরের দরজা বন্ধ করে দিয়ে তাকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। এ সময় তার ডাক চিৎকারে পাশ্ববর্তী লোকজন এগিয়ে এসে ওই মহিলাকে উদ্ধার করে। এ ঘটনায় অফিস পাড়ায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়। ঘটনাটি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও থানা পুলিশ পর্যন্ত গড়ায়। কিন্ত থানায় কোন মামলা হয়নি। একটি মহল মোটা অংকের টাকা নিয়ে ঘটনাটি চাপা দেওয়ার চেষ্টা করছে বলে অভিযোগ উঠেছে। প্রসঙ্গত, শিক্ষক আমজাদ হোসেনের বিরুদ্ধে একাধিক নারী কেলেংকারির অভিযোগ রয়েছে।