রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণা, রবি ভাইস চেয়ারম্যান, নূরুল সেক্রেটারি নির্বাচিত


প্রকাশিত : জুলাই ৩১, ২০১২ ||

নিজস্ব প্রতিনিধি : সাতক্ষীরা রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির নির্বাচনে ভাইস চেয়ারম্যান পদে সাবেক নৌ কমাণ্ডার মীর মোস্তাক আহমেদ রবি ও সেক্রেটারি পদে পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ নূরুল হক বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। এছাড়া নির্বাহী সদস্য পদে জোৎস্না আরা ৬৬৩ ভোট, মীর মোশারফ হোসেন মন্টু ৬১৮ ভোট, প্রভাষক শেখ শরিফুল ইসলাম ৬০৩ ভোট, ছাইফুল করিম সাবু ৫৯৩ ভোট এবং আব্দুস সেলিম ৫৬৪ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন।

সূত্র জানায়, ৮৪৮ ভোট পেয়ে ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন মীর মোস্তাক আহমেদ রবি। তার একমাত্র প্রতিদ্বন্দ্বী সদর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান ও সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এসএম শওকত হোসেন পেয়েছেন ৫২৯ ভোট। এ পদে ৫৫টি ভোট বাতিল বলে গণ্য হয়।

অন্যদিকে সেক্রেটারি পদে সাতক্ষীরা পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ নূরুল হক ৭৫৬ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার একমাত্র প্রতিদ্বন্দ্বী জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ফিরোজ আহমেদ পেয়েছেন ৬১৮ ভোট। এ পদে ৬০টি ভোট নষ্ট বলে বিবেচিত হয়।

অপর দিকে নির্বাচনে নির্বাহী সদস্য পদে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী হিসেবে অধ্যাপক আবু আহমেদ ৪৯৫ ভোট, এমএম মজনু ১৬২ ভোট, কাজী আক্তার হোসেন ৫৩১ ভোট, জাহাঙ্গীর আলম ৩২৯ ভোট, আবু সাইদ ৪৪২ ভোট, আসাদুর জামান ৪০২ ভোট ও শেখ মোঃ ওবায়েদুস সুলতান বাবলু ৪৫৮ ভোট পেয়েছেন। নির্বাহী সদস্য পদে মোট ৬০টি ব্যালট বাতিল হয়।

সাতক্ষীরা রেড ক্রিসেন্ট ইউনিট কার্যনির্বাহী কমিটি নির্বাচনের প্রধান নির্বাচন কমিশনার অধ্যাপক পবিত্র মোহন দাশ গতকাল এ ফলাফল ঘোষণা করেন। এসময় প্রার্থী ও প্রার্থীদের মনোনীত এজেন্টরা উপস্থিত ছিলেন। সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসনের পক্ষে ভোট গ্রহণ ও গণনার সময় ২ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সার্বক্ষণিক দায়িত্ব পালন করেন।

রোববার সকাল ১১টায় নির্বাচনের ভোট গ্রহণ শুরু হয়। বিকাল ৫টা পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে ভোট গ্রহণের কথা থাকলেও দুপুরে অবিরাম বৃষ্টির কারণে দূর দূরান্ত থেকে ভোটাররা আসতে বিলম্ব করায় ৫টা ৪৫ মিনিট পর্যন্ত ভোট গ্রহণ করা হয়। নির্বাচনে ১৮৭৪ জন ভোটারের মধ্যে ১৪৩৪ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন। ২০১২-১৪ মেয়াদের এ নির্বাচনে ভাইস চেয়ারম্যান পদে ২ জন, সেক্রেটারি পদে ২ জন এবং নির্বাহী সদস্য পদে ১৩ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। ভোট গ্রহণ শেষে রোববার রাত ৮টায় শুরু হয় গণনা এবং তা শেষ হয় ভোর ৩টা ১৫ মিনিটে।