কলারোয়ায় ফের ভূমি ধস, আতঙ্কিত দু’গ্রামের মানুষ


প্রকাশিত : আগস্ট ৩, ২০১২ ||

কলারোয়া প্রতিনিধি : কলারোয়ায় গত বছরের ন্যায় এবারও আকস্মিকভাবে দুটি গ্রামে ভূমি ধস দেখা দিয়েছে। ফলে ওই এলাকার ১৫ হাজার মানুষ আতঙ্কিত হয়ে পড়েছে। গতকাল বুধবার কলারোয়া থেকে ১৫ কিলোমিটার পূর্বে উপজেলার কামারালি ও তরুলিয়া গ্রামের বিস্তীর্ণ মাঠের উঁচু-নিচু জমি পরিদর্শন করে দেখা যায়, ভূমি ধসে সমতল জমির মাঝে মাঝে ছোট ও বড় আকারের গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। স্থান ভেদে এসব গর্ত বা সুড়ঙ্গ ২ থেকে ১০ ফুট পর্যন্ত গভীরতা পেয়েছে। কামারালি গ্রামের ইউপি সদস্য আব্দুর রশিদ সাংবাদিকদের জানান, গত বছরের মতো এবারও একই ধরনের ধস দেখা দিয়েছে। প্রতি দিনই ভূমিতে ধস সৃষ্টি হয়ে তা নিচের দিকে চলে যাচ্ছে। কামারালি গ্রামের আব্দুর রশিদের বাড়ির পূর্ব দিক বাঁশ বাগান ও এর পার্শ্ববর্তী এলাকা থেকে এ ধস শুরু হয়ে পূর্ব দিকের তরুলিয়া গ্রামের বড় রাস্তা পর্যন্ত তা বিস্তৃত হয়েছে। এলাকাবাসী জানান, সারা দিন ভূমি ধসে সৃষ্ট গর্তের কোন পরিবর্তন না হলেও রাতের বেলা তা বেড়ে যায়। প্রতি রাতেই নতুন নতুন স্থানে ভূমি ধসে প্রথমে ছোট আকৃতির গর্তের সৃষ্টি হচ্ছে। কামারালি গ্রামের প্রভাষক আমিরুল ইসলাম, মফিজুল ইসলাম, এরফান আলি খাঁ, ইন্তাজ মোল্যা, হামিদ সরদার, মঙ্গল গাজী স্থানীয় সাংবাদিকদের জানান, আকস্মিক ভূমি ধসে তাদের জমিতে ছোট আকৃতির পুকুর সদৃশ সৃষ্টি হয়েছে। এদিকে গতকাল বুধবার সকাল ১১টায় ধস কবলিত এলাকা পরিদর্শনে যান উপজেলা নির্বাহী অফিসার আ ন ম তরিকুল ইসলাম। তিনি সরেজমিন বিষয়টি দেখেন এবং  এলাকাবাসীর সাথে কথা বলেন। এ সময় তিনি এলাকাবাসীকে আতঙ্কিত না হয়ে ধৈর্যের সাথে পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ ও প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের পরামর্শ দেন। তিনি মৃত্তিকা বিশেষজ্ঞ বা ভূ-তত্ত্ববিদদের দ্রুত এই এলাকা পরিদর্শনে নিয়ে আসার জন্য সংশ্লিষ্ট মহলে খবর পৌঁছে দেবেন বলে জানান। পরিদর্শনকালে সেখানে উপস্থিত ছিলেন ইউপি চেয়ারম্যান রবিউল ইসলাম ও তার পরিষদবর্গ।