ডাকাতি ও ছিনতাই রোধে পুলিশের নতুন উদ্যোগ


প্রকাশিত : August 20, 2012 ||

ইয়ারব হোসেন: ডাকাতি ও ছিনতাইসহ অন্যান্য অপরাধ রোধে পুলিশ নতুন উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। পুলিশের এ উদ্যেগ গ্রহণে জেলার কোথাও কোন বড় ধরনের অপরাধ সংঘটিত হয়নি। রাতে পুলিশের গাড়িতে করে পৌঁছে দেওয়া হচেছ ঢাকা থেকে আসা মানুষকে। শহর ও উপজেলা সদরগুলোতে নারীরা সন্ধ্যা থেকে গভীর রাত পর্যন্ত কেনাকাটা করে বাড়ি ফিরছে।

খোঁজনিয়ে জানা গেছে, জেলায় ঈদকে সামনে রেখে যাতে কোন প্রকার অপরাধমূলক কর্মকান্ড না ঘটে সে জন্য জেলা প্রসাশন ও পুলিশের পক্ষ থেকে ব্যাপক প্র¯ু—তি গ্রহণ করা হয়। পুলিশের পক্ষ থেকে রোড ডাকাতি, ছিনতাই ও টানাপার্টি রোধে শহরের কয়েকটি পয়েন্টে ও সন্ধ্যার পর থেকে উপজেলা সদরসহ বিভিন্ন স্থানে চেকপোস্ট স্থাপন করা হয়েছে। নামানো হয়েছে সাদা পোশাকের পুলিশ। সাদা পোশাকের পুলিশ ছদ্দবেশে জেলা সদরসহ গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে অবস্থান করছে। পুলিশের কয়েকটি টিম বিভিন্ন স্থানে টহল দিচেছ। কোন প্রকার অপরাধ সংঘটিত হলে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য পুলিশকে প্র¯ু—ত রাখা হয়েছে। রাতের বেলা সাতক্ষীরা-যশোর সড়ক, সাতক্ষীরা-খুলনা সড়ক, সাতক্ষীরা- কালিগঞ্জ সড়ক, ভোমরা, বৈকারি ও আশাশুনি সড়কসহ জেলার ছোট ও বড় সড়কে পুলিশ টহল দিচেছ। রাতে ঢাকা থেকে ফেরা মানুষের জন্য বিশেষ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। গভীর রাতে যাত্রীদের কাউন্টারে থাকার ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। আবার অসুস্থ ও মহিলা যাত্রীদের পুলিশের গাড়িতে করে তাদের বাড়িতে পৌঁছে দেওয়া হচেছ। পুলিশের এ পদক্ষেপকে সাধারণ মানুষ স্বাগত জানিয়েছে।

পুলিশ সুপার মো. আছাদুজ্জামান জানান, ঈদ উপলক্ষ্যে পুলিশের পক্ষ থেকে ব্যাপক প্র¯ু—তি গ্রহণ করা হয়েছে। পুলিশ সদস্যরা সর্বত্র টহল দিচ্ছে। সাথে সাদা পোশাকে ডিবি পুলিশকে মাঠে নামানো হয়েছে। একই সাথে মহিলা পুলিশ সদস্যরা শহরে টহল দিচেছ। ঈদকে সামনে রখে এখনও পর্যন্ত জেলার কোথাও বড় ধরনের কোন অপরাধ সংঘটিত হয়নি।