কলারোয়ায় গলায় ফাঁস দিয়ে স্ত্রীকে হত্যা, স্বামী গ্রেপ্তার


প্রকাশিত : আগস্ট ২৫, ২০১২ ||

কলারোয়া প্রতিনিধি: কলারোয়ায় এক পাষন্ড স্বামী গলায় ফাঁস লাগিয়ে হত্যা করেছে তার স্ত্রীকে। ঘটনাটি ঘটেছে গতকাল শুক্রবার উপজেলার কুমারনল গ্রামে। পুলিশ ঘাতক স্বামীকে গ্রেপ্তার করেছে। পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, রোমেছা খাতুন (৩৫) উপজেলার কুমারনল গ্রামের আবুল কাশেম মোল্যার ছেলে আব্দুস সবুরের (৪৯) দ্বিতীয় স্ত্রী। গৃহবধূ রোমেছা কুমারনল গ্রামের মৃত মেহের আরি সরদারের মেয়ে। দীর্ঘদিন ধরে এদের সম্পর্ক ভালো যাচ্ছিলো না। বিরোধ ও মতের অমিল লেগেই থাকতো। বনাবনির বিশাল ঘাটতি থেকেই স্ত্রী রোমেছার প্রতি বিরোধ ও দূরত্ব বাড়তে থাকে স্বামী সবুরের। অবশেষে সেই বিরোধের জের ধরে গতকাল সকাল ১০টার দিকে স্ত্রী রোমেছার গলায় কাপড়ের ফাঁস লাগিয়ে ও মুখে বালিশ চাপা দিয়ে হত্যা করে পাষন্ড স্বামী আব্দুস সবুর। নিহত রোমেছার ভাই গতকাল সাংবাদিকদের জানান, তিনি ঈদ খরচের জন্য র্তা বোনের হাতে ২ হাজার টাকা দেন। ওই টাকা নেওয়ার জন্য স্বামী সবুর রোমেছার ওপর চাপ দিতে থাকে। কিন্তু রোমেছা তা দিতে অপরাগতা প্রকাশ করে। এই ঘটনার জেরে তার বোনকে হত্যা করা হয় বলে ভাই জালাল উদ্দিনের দাবি। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে ঘাতক স্বামী আব্দুস সবুরকে গ্রেপ্তার ও গৃহবধূ রোমেছার লাশ উদ্ধার করে। জানা গেছে, রোমেছার এটি দ্বিতীয় বিয়ে। এর আগের ঘরে তার ১ ছেলে ও ৩ মেয়ে রয়েছে। কলারোয়া থানার ওসি সিকদার আক্কাস আলি গতকাল এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, এ ব্যাপারে নিহতের ভাই জালাল উদ্দিন বাদী হয়ে থানায় একটি হত্যা মামলা(নং-২১) দায়ের করেছেন।