দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা আইন প্রয়োগে গুরুত্ব দিতে হবে: কেসিসি মেয়র


প্রকাশিত : সেপ্টেম্বর ১২, ২০১২ ||

খুলনা ব্যুরো: খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক বলেছেন, আইন থাকলে যদি তা বাস্তবায়ন না হয় তাহল আইন থাকা আর না থাকা সমান। তাই, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনায় সরকার ভাল উদ্যোগ নিয়েছে। একটি সময়োপযোগী আইন প্রণয়ন করছে। এ আইনের প্রচার ও বাস্তবায়নে সকলকে এগিয়ে আসতে হবে। তাহলেই আইনের সুফল সর্বত্র ছড়িয়ে দেয়া সম্ভব হবে। গতকাল মঙ্গলবার ‘দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা আইন : ঝুঁকিপূর্ণ জনগণের জীবন-জীবিকার রক্ষাকবচ’ শীর্ষক বিভাগীয় পর্যায়ের এক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এ কথা বলেন। হিউম্যানিটিওয়াচ, অক্সফাম ও ইমার্জেন্সি ক্যাপাসিটি বিল্ডিং (ইসিবি) এর যৌথ আয়োজনে খুলনা মহানগরীর ওয়েস্টার্ণ ইন্্ মিলনায়তনে সেমিনারটি অনুষ্ঠিত হয়।

সেমিনারে সভাপতিত্ব করেন খুলনা জেলা প্রশাসক মোঃ মেজবাহ উদ্দিন। বিশেষ অতিথি ছিলেন সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম মঞ্জু, পরিবেশ অধিদপ্তরের খুলনা বিভাগীয় পরিচালক ড. তরুণ কান্তি শিকদার, পানি উন্নয়ন বোর্ডের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী আব্দুল লতিফ মিয়া এবং আইলা দুর্গত সংহতি মঞ্চের আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট ফিরোজ আহমেদ। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনায় ছিলেন পরিবেশ অর্থনীতিবিদ অধ্যাপক আনোয়ারুল কাদির। সেমিনারে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা আইনের প্রয়োজনীয়তা বিষয়ক মূল ধারণাপত্র উপস্থাপন করেন অক্সফামের হিউম্যানিটারিয়ান ক্যাম্পেইন অফিসার তাপস রঞ্জন চক্রবর্তী। দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা আইন কার্যকর করার জন্য প্রচারাভিযানের অভিজ্ঞতা তুলে ধরেন হিউম্যানিটিওয়াচের কর্মসূচি সমন্বয়কারী শরিফুল ইসলাম সেলিম।

অনুষ্ঠানে বৃহত্তর খুলনা উন্নয়ন সংগ্রাম সমন্বয় কমিটির সভাপতি এসএম দাউদ আলী, ফুলতলা উপজেলার নির্বাহী অফিসার হাবিবুর রহমান, বটিয়াঘাটা উপজেলা নির্বাহী অফিসার শান্তিমণি চাকমা, দাকোপ উপজেলা নির্বাহী অফিসার আব্দুল হালিম ও ডুমুরিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার কামরুল হাসান, কৃষক লীগের কেন্দ্রীয় নেতা শ্যামল সিংহ রায়, প্রান্তজন’র এসএম শাহজাদা, এইচএম আলাউদ্দিন, বাহলুল আলম, বাসুদেব বিশ্বাস বাবলা, মনিরুল হক বাচ্চু বক্তৃতা করেন।