দেবহাটায় ফেনসিডিলসহ ৩ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেপ্তার


প্রকাশিত : সেপ্টেম্বর ২৮, ২০১২ ||

ডেস্ক রিপোর্ট: দেবহাটার পুষ্পকাটি সরদার বাড়িতে র‌্যাব-৬ এর একটি দল অভিযান চালিয়ে এক শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে। আটককৃত মাদক ব্যবসায়ীর নাম সালাউদ্দিন কাদের ওরফে বাবু (২২)। সে দেবহাটা উপজেলা  আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক ও উপজেলা আইন শৃংখলা কমিটির সদস্য শওকাত সরদারের ছেলে। তার বিরুদ্ধে বিশেষ ক্ষমতা আইনে দেবহাটা থানায় মামলা (নং-১৫/তাং-২৬-০৯-১২ ) হয়েছে।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, গত বুধবার দিনগত রাত সাড়ে ৯ টার দিকে উপজেলার পুস্পকাটি সরদার বাড়ি মোড়ে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ক্রেতা সেজে র‌্যাব-৬ এর একটি দল ফেনসিডিল ক্রয় করার জন্য তার কাছে যায়। এসময় সালাউদ্দিনের কাছে থাকা ৬ বোতল ফেনসিডিলসহ তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। প্রতক্ষদর্শীরা জানায়, র‌্যাব সদস্যরা তাকে গ্রেপ্তারের সময় উল্টো তাদেরকে মারধর করার জন্য উদ্যত হয় সে। আওয়ামী লীগের নাম ভাঙিয়ে সে এলাকায় ফেনসিডিল ব্যবসার রামরাজত্ব কায়েম করেছিল এবং অন্যন্য ফেনসিডিল ব্যবসায়ীদের নিকট থেকে প্রতিমাসে নিয়মিত মাসোহারা তুলতো। এছাড়া তারা পিতা-পুত্র মিলে বিভিন্ন লোকের কাছ থেকে ভয়ভীতি প্রদর্শন করে এবং চাকুরী দেওয়ার নাম করে লক্ষ লক্ষ টাকা নিয়ে রাতারাতি আঙুল ফুলে কলাগাছ হয়ে এখন বিলাশবহুল বাড়ি বানিয়েছে। তাদের বাপ-বেটার ভয়ে এলাকার কেউ মুখ খুলতে সাহস করতো না। গত তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সময় প্রায় ৫০০০ বোতল ফেনসিডিলের মামলায় বছর খানেক জেল খেটেছে তার পিতা শওকাত সরদার। পরে সে জামিনে বের হয়ে এসে এখন আওয়ামী লীগ নেতা সেজে উপজেলা আইন শৃংখলা কমিটির সদস্য হয়েছে। গতকাল র‌্যাবের হাতে সালাউদ্দিন গ্রেপ্তার হওয়ায় এলাকার মানুষ স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলেছে। অন্যদিকে একই রাতে ডিবি পুলিশ অভিযান চালিয়ে দেবহাটার মাদক রাজ্য হিসেবে খ্যাত বহেরা গ্রাম থেকে মৃত আত্তাব মোড়লের পুত্র কুখ্যাত মাদক ব্যবসায়ী মোসলেম (৪৫) কে ৫০ বোতল ফেনসিডিলসহ এবং অপর এক মামলায় সখিপুর ধোপাডাঙ্গা মোড় থেকে ফেনসিডিলসহ মাদক ব্যবসায়ী আঃ বারী (৫০) কে গ্রেপ্তার করে।