কালিগঞ্জে শিশু পাচারকালে দু’জন আটক, উদ্ধার


প্রকাশিত : নভেম্বর ১৫, ২০১২ ||

বিশেষ প্রতিনিধি: কালিগঞ্জে শেখ সবুজ (১৩) নামের এক শিশুকে ভারতে পাচারের প্রস্তুতিকালে দু’জনকে আটক করেছে পুলিশ। আটককৃতরা হলো উপজেলার ধলবাড়িয়া ইউনিয়নের খুব্দিপুর গ্রামের আবু বক্কর গাজীর ছেলে আব্দুল আলিম (৪৬) ও রতনপুর ইউনিয়নের আড়ংগাছা গ্রামের মৃত শুকচাঁদ গাজীর ছেলে আবুল হোসেন (৬০)। পুলিশ পাচারকারির বাড়িতে লুকিয়ে রাখা শিশু সবুজকে উদ্ধার করেছে।

পুলিশ জানায়, উপজেলার মথুরেশপুর ইউনিয়নের শীতলপুর গ্রামের মৃত রুস্তম আলীর ছেলে শেখ সবুজ প্রায় ৩ বছর যাবত আড়ংগাছা গ্রামে তার ভগ্নিপতির বাড়িতে থেকে কাটুনিয়া সিদ্দিকিয়া মাদ্রাসায় লেখাপড়া করছিল। এক পর্যায়ে বিভিন্ন প্রলোভন দেখিয়ে মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে আবুল হোসেন ও আব্দুল আলিমের নেতৃত্বে আরও কয়েকজন পরস্পর যোগসাজশে শিশু সবুজকে অপহরণ করে। তারা শিশুটিকে ভারতে পাচারের উদ্দেশ্যে আব্দুল আলিমের বাড়িতে লুকিয়ে রাখে। এদিকে সবুজের ভগ্নিপতি ও তার পরিবারের সদস্যরা বিভিন্ন স্থানে খোজাঁখুঁিজ করে তাকে না পেয়ে বিষয়টি থানায় জানান। এর প্রেক্ষিতে কালিগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) সেকেন্দার আলীর নেতৃত্বে পুলিশ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে বুধবার সকাল পৌনে ১২টার দিকে আব্দুল আলিমের বাড়ি থেকে অপহৃত সবুজকে উদ্ধারসহ দু’পাচারকারিকে আটক করে। ভারতে পাচারের জন্য শিশুটিকে অপহরণ করা হয়েছিল বলে আটককৃতরা পুলিশের কাছে স্বীকার করেছে। এর আগেও তারা পার্শ্ববর্তী কাটুনিয়া গ্রামের আব্দুর রশিদের ছেলে পীরগাজন প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৫ম শ্রেণির ছাত্র আমজাদ হোসেন ওরফে ছোট্টুকে (১৪) অপহরণ করে ভারতে পাচার করেছে বলে জিজ্ঞাসাবাদে জানিয়েছে। শিশু সবুজকে অপহরণের ঘটনায় মানব পাচার ও প্রতিরোধ আইনে কালিগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলা নম্বর : ১৭, তারিখ : ১৪/১১/১২।