শ্যামনগর উপজেলা চেয়ারম্যান জামায়াত নেতা আব্দুল বারী গ্রেপ্তার


প্রকাশিত : নভেম্বর ১৭, ২০১২ ||

শ্যামনগর প্রতিনিধি: শ্যামনগর উপজেলা জামায়াতের সাবেক আমীর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মাও. আব্দুল বারীকে পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে। শুক্রবার সকালে শ্যামনগর থানার এসআই সফিকের নেতৃত্বে পুলিশ বাদঘাটা গ্রামের নিজ বাসা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করেন। জনৈকা রাশিদাতুল কোবরা নামের এক মহিলার দায়েরকৃত মামলায় তাকে গ্রেপ্তারের খবর নিশ্চিত করেছে পুলিশ। এদিকে উক্ত মামলা রাজনৈতিক বলে দাবি করে অবিলম্বে মিথ্যা ঐ মামলা থেকে তার মুক্তি দাবি করেছে দলীয় নেতৃবৃন্দ।

পুলিশ সূত্র জানায়, গত ১৫ নভেম্বর দুপুরের দিকে বাদঘাটা গ্রামের (আদি বাড়ি পদ্মপুকুর) আবুল বাসারের স্ত্রী পাওনা টাকা আনতে গেলে মাও. আব্দুল বারী তাকে ধর্ষণের চেষ্টা করে। ঐ ঘটনায় রাতেই তিনি বাদী হয়ে নারী নির্যাতন ও ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে আব্দুল বারীর বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের (মামলা নং ১৪) পর পুলিশ শুক্রবার সকালে তাকে নিজ বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করে।

মামলার বিবরণ সূত্রে জানা যায়, এর আগে চাকুরি দেয়ার প্রতিশ্রুতিতে মাও. আব্দুল বারী বাদিনীর নিকট থেকে চার লাখ ছেচল্লিশ হাজার টাকা গ্রহণ করে। তিনি চাকুরি দিতে ব্যর্থ হলেও টাকা ফিরিয়ে দেয়া নিয়ে টালবাহানা শুরু করে। এক পর্যায়ে গত ১৫ নভেম্বর তাকে টাকা নেয়ার জন্য নিজ বাড়িতে ডেকে নিয়ে আব্দুল বারী তাকে ধর্ষণের চেষ্টা করে বলে বাদিনী তার মামলার এজাহারে উল্লেখ করে।

এদিকে উপজেলা জামায়াত ইসলামীর আমীরসহ জামায়াত নেতৃবৃন্দ দাবি করেছে উদ্দেশ্যমূলকভাবে এবং হয়রানি করার উদ্দেশ্যে মিথ্যা ঐ মামলা দিয়ে মাও. আব্দুল বারীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।