কলারোয়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় আহত আরও ১ জনের মৃত্যু


প্রকাশিত : November 27, 2012 ||

কলারোয়া প্রতিনিধি: মহাসড়কে স্যালোচালিত বাহন চলাচলের বিরুদ্ধে লাগাতার আপত্তি ও আন্দোলন চলে আসলেও কোনোভাবেই এর চলাচল বন্ধ করা যাচ্ছে না। সময়ের ব্যবধানে তা বেড়েই চলেছে। অনিয়ন্ত্রিত ও ঝুঁকিপূর্ণ এই বাহন (নছিমন-আলমসাধু) দুর্ঘটনা ঘটিয়ে চলেছে নিরন্তর। বেপরোয়া এই বাহনে প্রাণ হারাচ্ছেন মানুষ। যেমনটি ঘটলো সোমবার রাত সোয়া ৮টার দিকে যশোর-সাতক্ষীরা মহাসড়কের কলারোয়ার যুগিবাড়ি হোসেন ফিলিং স্টেশনের সামনে। সেখানে একটি ট্রাকে (কুষ্টিয়া-ট-১১-০০৩৯) কলারোয়াগামী একটি স্যালোচালিত ‘নছিমন’ ধাক্কা খেয়ে পাশ্ববর্তী ডোবায় পড়ে যায়। এতে নছিমন বাহনের চালক ঘটনাস্থলেই নিহত হয়। মারাত্মক আহত এক যাত্রীকে খুলনায় নেওয়ার সময় রাতে পথিমধ্যে সে মারা যায়। পুলিশ নিহত ২ জনের পরিচয় পেয়েছে। নিহতরা হলো, নছিমন চালক উপজেলার কেরালকাতা গ্রামের মোসলেম উদ্দিনের ছেলে ফারুক হোসেন (২৮) ও কলারোয়া পৌরসভার তুলসীডাঙ্গা গ্রামের শহিদুল হকের ছেলে আরিজুল ইসলাম (৩২)।

কলারোয়া থানার অফিসার ইনচার্জ সিকদার আক্কাছ আলী ২ জন নিহত হওয়ার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে মঙ্গলবার সাংবাদিকদের বলেন, স্যালোচালিত যানবাহন মহাসড়কে বন্ধ করার জন্য প্রয়োজনীয় সব ধরনের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। কোনোভাবেই এ বাহনগুলোকে মহাসড়কে চলাচল করতে দেয়া হবে না।