জেলায় যথাযোগ্য মর্যাদা ও বিনম্র শ্রদ্ধায় শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস পালিত


প্রকাশিত : December 15, 2012 ||

ডেস্ক রিপোর্ট: জেলায় যথাযোগ্য মর্যাদা ও বিনম্র শ্রদ্ধায় শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষে সাতক্ষীরা প্রেস ক্লাব, উদীচীসহ বিভিন্ন সংগঠন আলোচনা সভা, আবৃত্তি, মোমবাতি প্রজ্জ্বলনসহ নানা কর্মসূচির আয়োজন করে। আমাদের প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর-

শহর: শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস উপলক্ষে শুক্রবার বিকাল ৪টায় সাতক্ষীরা প্রি-ক্যাডেট স্কুলে উদীচী শিল্পী গোষ্ঠী আলোচনা সভা ও আবৃত্তি অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

উদিচি শিল্পী গোষ্ঠী সাতক্ষীরা জেলা সংসদের সভাপতি মনিরুজ্জামান ছট্টুর সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য রাখেন সাতক্ষীরা সরকারি মহিলা কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ আব্দুল হামিদ, জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার ইনামুল হক বিশ্বাস, অধ্যক্ষ সুভাষ সরকার,  দৈনিক পত্রদূত’র সম্পাদকমণ্ডলীর সভাপতি আনিসুর রহিম, পল্টু বাসার প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে আবৃত্তি করেন সৈয়দ একতেদার আলী, পল্টু বাসার, আনসার আলী, রমজান আলী, মুফতি আব্দুর রহিম কচি ও মনিরুজ্জামান মুন্না। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক শেখ সিদ্দিকুর রহমান।

ঝাউডাঙ্গা: ঝাউডাঙ্গা আল হেরা মডেল একাডেমী শুক্রবার সকাল ১০টায় শহীদ বৃদ্ধিজীবী দিবস উপলক্ষে র‌্যালী বের করে। র‌্যালী শেষে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন আল হেরা মডেল একাডেমীর অধ্যক্ষ আব্দুর রহিম, শিক্ষক আবু মুছা, আল আমিন, আবু হোসেন, আনিছুর রহমান, মহিবুল¬াহ, মহিলা শিক্ষিকা সালমা ও ইশরাত।

আলোচনা সভায় শহীদ বৃদ্ধিজীবীদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করা হয়।

পাটকেলঘাটা: পাটকেলঘাটা থানার পাঁচরাস্তা মোড়স্থ শহীদ আলাউদ্দিন চত্বরে প্রগতিশীল বুদ্ধিজীবী সমাজের উদ্যোগে শুক্রবার সন্ধ্যায় আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

এ্যাড. আব্দুস সামাদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, জেলা কৃষকলীগের সভাপতি বিশ্বজিত সাধু। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জাসদ’র কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য মীর আবুল কালাম মিলন, জেলা জাসদের সহ-সভাপতি সরদার কাজেম আলী, প্রগতিশীল বুদ্ধিজীবী সমাজের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক আতিয়ার রহমান, সরুলিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ আব্দুল হাই, বিশ্বাস আবুল কাশেম, বিশ্বাস আতিয়ার রহমান, মহাসীন আলী, ওলামা লীগের আনছার আলী, সাংবাদিক রঘুনাথ প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, বাঙ্গালি জাতিকে মেধা শূন্য করার জন্য পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান বুদ্ধিজীবীদের নির্মমভাবে ও নির্বিচারে হত্যা করে জাতির যে অপূরণীয় ক্ষতি সাধন করেছে তা কখনও পূরণ হবার নয়।

পাইকগাছা (খুলনা): পাইকগাছায় শহীদ বুদ্ধিজীবী হত্যা দিবস পালন উপলক্ষে বাংলাদেশ সেক্টর কমান্ডার্স ফোরাম, মুক্তিযুদ্ধ ’৭১ ও উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ বাজারের চৌরাস্তা মোড়ে শুক্রবার সকাল ১০টায় যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের রায় অবিলম্বের ঘোষণার দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচি পাল করেছে।

পাইকগাছা সেক্টর কমান্ডার্স ফোরাম, মুক্তিযুদ্ধ ’৭১ এর সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা শেখ সাহাদাৎ হোসেন বাচ্চু কর্মসূচিতে সভাপতিত্বে করেন।

মানববন্ধন কর্মসূচিতে প্রধান অতিথির বক্তৃতা করেন খুলনা-৬ আসনের সংসদ সদস্য এ্যাড. সোহরাব আলী সানা। বিশেষ অতিথির বক্তৃতা করেন খুলনা জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি গাজী মোহাম্মদ আলী, মক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক গাজী রফিকুল ইসলাম, যুদ্ধকালীন ক্যাম্প কমান্ডার সুবল চন্দ্র মণ্ডল, ইউপি চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ, আব্দুর রাজ্জাক মলঙ্গী, স ম আব্দুল বারেক, দিপক মণ্ডল, শামসুর রহমান ও আবুল কালাম আজাদ্।

এদিকে বিকাল ৩টায় শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস পালন উপলক্ষে প্রেস ক্লাব পাইকগাছার উদ্যোগে এক আলোচনা সভা সংগঠনের অস্থায়ী কার্যালয়ে প্রেসক্লাব পাইকগাছার সভাপতি প্রকাশ ঘোষ বিধানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। সভায় বক্তৃতা করেন সহ-সভাপতি আব্দুর রাজ্জাক বুলি, সাধারণ সম্পাদক মহানন্দ অধিকারী মিন্টু, কোষাধ্যক্ষ পঞ্চানন সানা, এ্যাড. প্রশান্ত মন্ডল, দীপ অধিকারী, আহম্মেদ আলী বাচা, রায় সমীর কুমার, সঞ্জয় ঢালী, সপ্তদিপা সাহিত্য পরিষদের সহ-সভাপতি নলিনী কান্ত সানা, কাজী ইমদ্দাুল হক স্মৃতি সংসদের সহ-সভাপতি সমীরণ ঘোষ প্রমুখ।

শ্যামনগর: শুক্রবার সকালে শ্যামনগর উপজেলা পাবলিক লাইব্রেরির আয়োজনে শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

লাইব্রেরির মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন পাবলিক লাইব্রেরির সহ-সভাপতি অধ্যক্ষ আশেক ই এলাহী। লাইব্রেরির সম্পাদক অধ্যাপক মানবেন্দ্র দেবনাথের সঞ্চালনায় সভায় বক্তব্য রাখেন অবসরপ্রাপ্ত উপাধ্যক্ষ নাজিম উদ্দীন, মুক্তিযোদ্ধা নজরুল ইসলাম, অধ্যক্ষ আব্দুস সামাদ, প্রধান শিক্ষক কৃষ্ণানন্দ মুখ্যার্জী, শিক্ষক রবীন্দ্র নাথ বিশ্বাস, শিক্ষার্থী তপন কুমার মন্ডল, পলাশ চন্দ্র গায়েন, অমৃত কুমার মন্ডল, রনজিৎ বর্মন, ফারুক হোসেন, অধ্যাপক দেবপ্রসাদ মন্ডল, প্রদর্শক মোহিত কুমার প্রমুখ।

কলারোয়া: কলারোয়ায় বিনম্র শ্রদ্ধা ও যথাযথ মর্যাদায় শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস পালিত হয়েছে। শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় কলারোয়া কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে মোমবাতি প্রজ্জ্বলন করে শহীদ বুদ্ধিজীবীদের প্রতি শ্রদ্ধা প্রদর্শন করা হয়।

কলারোয়া পাবলিক ইনস্টিটিউট আয়োজিত আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন প্রতিষ্ঠানের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা আনোয়ার হোসেন। মহান মুক্তিযুদ্ধে জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তানদের ভূমিকা তুলে ধরে আলোচনা করেন মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রউফ, মুক্তিযোদ্ধা শেখ তৌফিকুর রহমান, শেখ আমানুল¬াহ কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ আবুল খায়ের, কাজীরহাট কলেজের অধ্যক্ষ এসএম সহিদুল আলম, কাজী আব্দুল ওহাব, সাংবাদিক অধ্যাপক শেখ জাভিদ হাসান, মাস্টার দীপক কুমার শেঠ, প্রভাষক আরিফ মাহমুদ, শেখ জুলফিকারুজ্জামান জিল¬ু, এমএ সাজেদ, অধ্যাপক রমাকান্ত সরকার, প্রভাষক আব্দুল কাদের, প্রদর্শক আবু তৈয়ব, হাবিবুল্যাহ, মুক্তিযোদ্ধার সন্তান ইমামুল ইসলাম প্রমুখ।

খুলনা প্রেস ক্লাব

শুক্রবার সকাল ১১টায় শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস উপলক্ষে খুলনা প্রেসক্লাব আয়োজিত আলোচনা সভা ক্লাবের ভিআইপ লাউঞ্জে অনুষ্ঠিত হয়। প্রেস ক্লাবের সভাপতি বেগম ফেরদৌসী আলীর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক এসএম হাবিবের পরিচালনায় আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন দৈনিক পূর্বাঞ্চল সম্পাদক লিয়াকত আলী, ওয়াদুদুর রহমান পান্না, মকবুল হোসেন মিন্টু, জাকির হোসেন, এসএম জাহিদ হোসেন, হাসান আহমেদ মোল¬¬া, ক্লাব সদস্য সুবীর কুমার রায়, শেখ আব্দুলাহ, দেবনাথ রনজিৎ কুমার, খুলনা সাংবাদিক ইউনিয়নের কোষাধ্যক্ষ মহেন্দ্রনাথ সেন প্রমুখ।

খুলনা সাংবাদিক ইউনিয়ন

শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস উপলক্ষে খুলনা সাংবাদিক ইউনিয়নের  (কেইউজে) উদ্যোগে শুক্রবার বেলা ১১টায় ইউনিয়নের নিজস্ব কার্যালয়ে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন খুলনা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি মকবুল হোসেন মিন্টু।

বক্তৃতা করেন ইউনিয়নের সাবকে সভাপতি ওয়াদুদুর রহমান পান্না, বাংলাদেশ ফটো জার্নালিস্টস এ্যাসোসিয়েশনের খুলনা বিভাগীয় সভাপতি জাকির হোসেন, খুলনা প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক এসএম হাবিব, সাবেক সাধারণ সম্পাদক সাহেব আলী, খুলনা সাংবাদিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক সুবীর রায়, ইউনিয়নের কোষাধ্যক্ষ মহেন্দ্র নাথ সেন, সদস্য দেবনাথ রনজিৎ কুমার, শেখ আব্দুল¬াহ প্রমুখ। সভায় বক্তারা যুদ্ধাপরাধীদের বিচার দ্রুত সম্পন্ন করাসহ জামায়াত শিবিরের রাজনীতি নিষিদ্ধ করার দাবি জানান।

খুলনা নগর বিএনপি

শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস উপলক্ষে খুলনায় বিএনপি আয়োজিত আলোচনা সভায় নজরুল ইসলাম মঞ্জু এমপি বলেছেন, বিজয়ের চূড়ান্ত মুহূর্তে এসে জাতিকে মেধাশূন্য করার জন্য পাক বাহিনী ও তাদের এ দেশীয় দোসররা বুদ্ধিজীবীদের হত্যা করেছিল। তিনি বলেন, আমাদের যুদ্ধ জয় ছিল সাড়ে ৭ কোটি বাঙ্গালির অর্জন, কোন ব্যক্তি বা গোষ্ঠীর নয়। যুদ্ধ বিধ্বস্ত দেশ পুনঃগঠনের পরিবর্তে যারা কাধে বন্দুক ঝুলিয়ে লুটপাটে লিপ্ত হয়ে নিজেদের কোটিপতি বানিয়েছে, তাদের দ্বারা দেশের ভাগ্য বদল সম্ভব নয়।

দেশের চলমান রাজনৈতিক অস্থিরতা সম্পর্কে আলোচনায় তিনি বলেন, বিরোধী দলকে স্বাভাবিক রাজনৈতিক কর্মসূচি পালনে বাধা দেয়া হচ্ছে।

শুক্রবার সকালে দলীয় কার্যালয়ে শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস উপলক্ষে খুলনা মহানগর ও জেলা বিএনপি আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন। এর আগে রাতে নগরীর গল¬ামারি শহীদ ম্মৃতিস্তম্ভে পু®পস্তবক দিয়ে শ্রদ্ধা জানান তারা।

আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা এম নূরুল ইসলাম দাদু ভাই। আবু হোসেন বাবুর পরিচালনায় আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন, অ্যাডভোকেট গাজী আব্দুল বারী, শেখ মোশারফ হোসেন, জলিল খান কালাম প্রমুখ।

খুলনা ওয়ার্কার্স পার্টি

শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টায় সমমনা ৭টি বাম দলের উদ্যোগে বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি খুলনা জেলা কার্যালয়ে মহান শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন ওয়ার্কার্স পার্টির পলিট ব্যুরোর সদস্য, খুলনা জেলা সম্পাদক কমরেড হাফিজুর রহমান ভূইয়া। সভার শুরুতে শহীদ বুদ্ধিজীবীদের স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানিয়ে ০১ (এক) মিনিট দাঁড়িয়ে নিরবতা পালন করা হয়।

সভায় বক্তৃতা করেন, সাম্যবাদী দলের জেলা সাধারণ সম্পাদক এফ এম ইকবাল, ওয়ার্কার্স পার্টির জেলা সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য দেলোয়ার উদ্দিন দিলু, গণতন্ত্রী পার্টির জেলা সভাপতি কামাল হোসেন জোয়ার্দার, জাতীয় শ্রমিক ফেডারেশনের নগর কমিটির সাধারণ সম্পাদক শ্রমিকনেতা এসএম ফারুকুল ইসলাম, ছাত্র মৈত্রীর জেলা সভাপতি তাইজুল ইসলাম, যুব-আন্দোলনের জেলা আহবায়ক মোস্তফা, ছাত্রনেতা হিরন্ময় মণ্ডল, বিপ্্রদাস প্রমুখ।

সভায় নেতৃবৃন্দ শহীদ বুদ্ধিজীবী হত্যাকারীদের অবিলম্বে বিচার, আইন করে ধর্মভিত্তিক রাজনীতি নিষিদ্ধ, যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের রায় ঘোষণা ও কার্যকরী করার আহবান জানান। অনুষ্ঠানের সঞ্চালকের দায়িত্ব পালন করেন ওয়ার্কার্স পার্টির জেলা সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য শেখ মফিদুল ইসলাম।