বিজিবি’র অভিযানে ১২ হাজার কেজি ভারতীয় আলু উদ্ধার, ১৬ চোরাকারবারি আটক


প্রকাশিত : জানুয়ারি ৮, ২০১৩ ||

নিজস্ব প্রতিনিধি: বিজিবি সদস্যরা প্রায় ১২ হাজার কেজি ভারতীয় আলু আটক করেছে। এ সময় আলু পাচারের সাথে জড়িত ১৬ চোরাকারবারিকে আটক করা হয়। সোমবার ভোরে সাতক্ষীরা-ভোমরা সড়কের আলীপুর ও সকাল সাড়ে আটটার দিকে শহরতলীর বাঁকাল এলাকা থেকে এ বিপুল পরিমান ভারতীয় আলু আটক করা হয়।

আটককৃত চোরাকারবারিরা হলো সাতক্ষীরা সদর উপজেলার ভোমরা এলাকার শফিকুল ইসলাম, ভাড়–খালি গ্রামের গোলাম হোসেন, ইসরাত হোসেন, জাহিদুল ইসলাম, শাহাদাত হেসেন, মোস্তাফিজুর রহমান, শহিদুল ইসলাম, মোখলেছুর রহমান, জাকির হোসেন, মো. রানা, আব্দুল হাকিম, আবু সাঈদ, ইসরাফিল হোসেন এবং দেবহাটা উপজেলার পারুরিয়া এলাকার জামাল হোসেন, কুলিয়া গ্রামের মফিজুল ইসলাম ও হাবিবুর রহমান।

সাতক্ষীরা ৩৮ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অপারেশন কর্তকর্তা মেজর আবু মোতাহার মো. সোহায়েল জানান, গতকাল ভোরে ১৫-১৬টি ইঞ্জিন ভ্যান ভর্তি করে চোরাকারবারিরা ভারতীয় আলু ভোমরা থেকে সাতক্ষীরা শহরের দিকে নিয়ে আসছে, এমন সংবাদের ভিত্তিতে নায়েক সুবেদার নজরুল ইসলামের নেতৃত্বে সাতক্ষীরা-ভোমরা সড়কের আলীপুর এলাকা থেকে ও শহরতলীর বাঁকাল এলাকা থেকে পৃথক অভিযান চালিয়ে ওই আলু আটক করা হয়। এসময় চোরাচালানের সাথে জড়িত ১৬ জন কে আটক করা হয়।

সাতক্ষীরা ৩৮ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্ণেল আবু বাছির আলু ঘটনাটি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, বাংলাদেশে আলুর দাম বেশি হওয়ায় চোরাকারবারিরা ভারত থেকে চোরা পথে আলু নিয়ে আসছে। এ ঘটনায় সংশ্লিষ্ট নায়েক সুবেদার বাদী হয়ে সাতক্ষীরা সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।