জ্বালানি তেলের মূল্য বৃদ্ধির গণবিরোধী সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারের দাবিতে খুলনায় ওয়ার্কার্স পার্টির বিক্ষোভ সমাবেশ


প্রকাশিত : জানুয়ারি ১০, ২০১৩ ||

জ্বালানি তেলের মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে ও প্রত্যাহারের দাবিতে বুধবার বেলা সাড়ে ১১টায় পার্টির কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে ওয়ার্কার্স পার্টি, খুলনা জেলা কমিটির উদ্যোগে নগরীতে এক প্রতিবাদ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

মিছিলটি শহরের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে শহীদ হাদিস পার্কের সামনে সড়কদ্বীপে পার্টির জেলা সম্পাদক হাফিজুর রহমান ভূঁইয়া’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে নেতৃবৃন্দ বলেন, সরকার চরম গণবিরোধী মনোভাবের পরিচয় দিয়ে আবারো এক দফা জ্বালানি তেলের মূল্য বৃদ্ধি করে জনগণের উপর খাঁড়ার ঘা মেরেছে। দেশের স্বাধীনতা পক্ষের মানুষ যখন ’৭১-এর যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের দাবিতে ঐক্যবদ্ধ, তখন সরকারের এই মূল্যবৃদ্ধির পদক্ষেপের ফলশ্র“তিতে আন্দোলন ব্যাহত হতে পারে। কারণ, এই জ্বালানি তেলের মূল্য বৃদ্ধিতে অবশ্যই বিদ্যুতের দাম বাড়বে, পরিবহন ভাড়া বাড়বে, কৃষকের উৎপাদন খরচ বাড়বে, সকল প্রকার নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের উপর এর বিরূপ প্রভাব পড়বে।

নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, সাধারণ মানুষের ধৈর্যের শেষ সীমায় পৌঁছে গেছে। জ্বালানি তেলের আমদানি মূল্য বেশি থাকার অজুহাত দেখিয়ে এবং ভর্তুকি কমিয়ে মূল্য সমতা আনার কথা বলে এই মূল্য বৃদ্ধি করা হয়েছে। প্রকৃত কারণ হচ্ছে, বেসরকারি মালিকানায় কুইক রেন্টাল ও রেন্টাল বিদ্যুৎ কেন্দ্রে বিপুল পরিমাণ জ্বালানি তেল ভর্তুকি মূল্যে সরবরাহ করতে গিয়েই এই অন্যায় মূল্য বৃদ্ধি করা হয়েছে। বক্তারা অবিলম্বে এই বর্ধিত মূল্য প্রত্যাহারের জোর দাবি জানান।

সমাবেশে বক্তৃতা করেন পার্টির জেলা সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য মোজাম্মেল হক, দেলোয়ার উদ্দীন দিলু, শেখ মফিদুল ইসলাম, গাজী নওশের আলী, এম নূরুল ইসলাম নূরু, জাহাঙ্গীর আলম, গৌতম কুণ্ডু, হারেজ আলী, শ্রমিকনেতা খলিলুর রহমান, আব্দুল হামিদ মোড়ল, আমিনুল ইসলাম, ছাত্রনেতা হিরন্ময় মণ্ডল, অরূপ নাগ প্রমুখ। প্রেস বিজ্ঞপ্তি