সড়ক অবরোধের নামে কয়েক হাজার বৃক্ষ নিধন, আইনী ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি


প্রকাশিত : March 7, 2013 ||

ডেস্ক রিপোর্ট: জামায়াত ও বিএনপি’র ডাকা হরতালে জেলায় সড়ক অবরোধের নামে নিধন করা হয়েছে কয়েক হাজার সৃষ্টিফুল, বাবলা, নিম, খইসহ বিভিন্ন ধরনের গাছ। এ সব গাছ আইনপ্রয়োগকারী সংস্থার লোকজন সরিয়ে নেওয়ার আগেই জামায়াত ও বিএনপিসহ একটি সুবিধাভোগী মহল রাস্তা থেকে তুলে স’মিল, ইটভাটাসহ বিভিন্ন স্থানে বিক্রি করেছেন।
অভিযোগ, গাছ কাটা ও বিক্রির সঙ্গে যুক্ত ওই মহলটির বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা না নিলে আগামী দিনে যে কোন হরতালে রাস্তার ধারে গাছ কাটার মহোৎসব চলবে। ফলে নতুন করে পরিবেশ বিপর্যয়ের আশঙ্কা দেখা দেবে।
জেলা ওয়ার্কার্স পার্টির সম্পাদক অ্যাড. মুস্তাফা লুৎফুল¬াহ জানান, বুধবার সকাল থেকে সদর উপজেলার বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, গ্রাম থেকে মহল্ল¬া ও পাড়ায় পাড়ায় রাস্তার দু’ধারে ছিল হরতালে সড়ক অবরোধের নামে কেটে ফেলা গাছের গোড়ার সারি। কোথাও কোথাও রাস্তার পাশে গাছের গুড়ি ও ডাল দেখা গেছে। সবমিলিয়ে জেলায় কয়েক হাজার সৃষ্টিফুল, বাবলা, নিম ও খৈ গাছ কাটা হয়েছে। এসব গাছ কাটার পর হরতাল শেষ না হতেই মঙ্গলবার রাত থেকে জামায়াত, বিএনপি ও একটি সুবিধাভোগী মহল সড়ক থেকে গাছের গুড়ি ও ডাল সংগ্রহ করে বিক্রি করেছেন নিকটবর্তী কোন স’ মিলে বা ইটভাটায়। আবার অনেকে বাড়িতে ব্যবহারের জন্য আসবাবপত্র তৈরির প্রস্তুতি নিয়েছেন। আবার কেউ বা রাস্তায় গাছ না পেয়ে কাটা গাছের গোড়া মাটি থেকে তুলে নিয়ে যাচ্ছেন। জেলা জুড়ে যে পরিমান গাছ কাটা হয়েছে তাতে প্রায় কোটি টাকার ক্ষতির পাশাপাশি জেলায় পরিবেশ বিপর্যয় দেখা দেবে। হরতালের নামে সরকারি গাছ কেটে সড়ক অবরোধে সংশ্লি¬ষ্ট কর্তৃপক্ষ ব্যবস্থা না নিলে আগামীতে হরতালের নামে রাস্তার দু’ধার উজাড় করা হবে। উৎসাহিত হবে একটি মহল। তিনি পরিবেশ রক্ষায় হরতালের নামে রাস্তার গাছ কর্তনকারীদের বিরুদ্ধে পরিবেশ আইনে ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।