শ্যামনগরে ঐতিহ্যবাহী বারুণী উৎসব পালিত


প্রকাশিত : এপ্রিল ১০, ২০১৩ ||

সুন্দরবনাঞ্চল (শ্যামনগর) প্রতিনিধি: উপজেলার সোনার মোড়ে অনুষ্ঠিত হল বারুণী মেলা। সোমবার বারুণী উৎসব উপলক্ষে খুব সকাল থেকে শ্যামনগরসহ বিভিন্ন এলাকা থেকে পুণ্যার্থীরা সোনার মোড়স্থ যমুনার কূলে এসে উৎসবে অংশগ্রহণ করেন। এ অনেকেই গঙ্গা দেবীর মূর্তি নিয়ে মন্দির স্থলে আসেন।
উৎসবের পুরোহিত হরিপদ মুখ্যার্জী জানান, এবার বারুণীর যোগ শুরু হয়েছে রোববার বিকাল ৪.৩২ মিনিটে। সোমবার বিকাল ৪টা পর্যন্ত এ যোগ ছিল। এ সময়ে বহু ভক্ত যমুনায় পুণ্য স্নান করেন। বারুণী উৎসবে বিভিন্ন এলাকার ব্রাক্ষণ সমাজের অনেক ব্যক্তি এসে পূজা অর্চনা করেন। ]
পুরোহিত হরিপদ মুখ্যার্জী, বিবেকানন্দ মুখ্যার্জী ও অন্যান্যরা জানান, তিন/চারশ বছর আগে থেকে এ বারুণী উৎসব চলে আসছে। মেলার আয়োজক বংশীপুর সম্ভ্রান্ত ঘোষ পরিবার। মেলার আয়োজকদের মধ্যে প্রধান পরিচালক বরুণ কান্তি ঘোষ বলেন, বারুণী উৎসব উপলক্ষে এ এলাকায় ইতপূর্বে ১৫/২০ দিন বা এক মাসব্যাপী মেলা চলত। বর্তমানে এক দিন বা দুইদিন মেলা চলে।
উৎসবের কর্তা ব্যক্তি নিত্যরঞ্জন ঘোষ, পুরোহিত হরিপদ মুখার্জীসহ অনেকে বলেন, বারুণী উৎসব উপলক্ষে বহু পুণ্যার্থী যমুনায় পুণ্য স্নান করেন অথচ এখানে একটি পাকা ঘাট করা সম্ভব হয়নি। বহু বছর ধরে উৎসব হলেও এখানে একটি মন্দির প্রতিষ্ঠা করা সম্ভব হয়নি। এছাড়া নারী পুরুষের জন্য পৃথক বিশ্রামাগারও নেই। এ সকল স্থাপনা নির্মাণে আয়োজকরা যথাযথ কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করেন।
মেলায় আসা ব্যবসায়ী শান্তি মন্ডল, তাপস মন্ডলসহ অন্যান্যরা বলেন, হরতাল থাকায় এবার মেলায় পুণ্যার্থী/দর্শনাথীর সংখ্যা কম, বিধায় বিক্রিও কম।
এদিকে বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদের নেতৃবৃন্দ, হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের নেতৃবৃন্দসহ অন্যান্যরা মেলা পরিদর্শন করেছেন।