পাটকেলঘাটায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে কৃষকদলের সভায় বিএনপি নেতা-কর্মীদের হামলা নিহত ১, আহত ২০, গ্রেপ্তার ১


প্রকাশিত : মে ১, ২০১৩ ||

মুজিবুর রহমান, পাটকেলঘাটা: আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে পাটকেলঘাটায় কৃষক দলের বর্ধিত সভায় বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতা-কর্মীদের অতর্কিত হামলায় এক কৃষকদল নেতা নিহত হয়েছেন। এ সময় সরুলিয়া ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি রাশেদুল হক রাজুসহ ১৫-২০ জন আহত হন।
দলীয় সূত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার সকাল ১০টায় পাটকেলঘাটার স্থানীয় বিএনপি দলীয় কার্যালয়ে তালা উপজেলা কৃষক দলের সভা চলছিল। এ সময় বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের ৪০-৫০ জন দলীয় নেতা-কর্মী লোহার রডসহ দেশীয় অস্ত্র নিয়ে সভায় হামলা চালিয়ে আসবাবপত্র ভাঙচুর করে। হামলায় তালা সদর ইউনিয়ন কৃষক দলের সাধারণ সম্পাদক ইউপি সদস্য আটারই গ্রামের আবুল কাশেম গোলদারের ছেলে ইনছার আলী (৪৫) ও রাশেদুল হক রাজু মারাত্মক আহত হয়। তাদেরকে প্রথমে স্থানীয় স্বাগতা ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়। পরে অবস্থার অবনতি হলে দ্রুত খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সন্ধ্যা ৬টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইনছার আলী মৃত্যুবরণ করেন। এদিকে তার মৃত্যুর সংবাদ পাটকেলঘাটায় পৌঁছালে নেতা-কর্মীরা বিক্ষোভে ফেটে পড়েন। সন্ধ্যায় রাজু গ্র“পের নেতা জেলা বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক হাসান হোসেন বাবু, তালা উপজেলা যুব দলের সভাপতি হাফিজৃর রহমান, কৃষক দলে সভাপতি আলী হোসেন, বিএনপি নেতা মজিবর রহমানের নেতৃত্বে বিএনপি নেতা বদরুজ্জামান ও খালিদ হাসানকে গ্রেপ্তার এবং ফাসির দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সভা করে।
এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত পুলিশ স্থানীয় চেয়ারম্যান বদরুজ্জামানকে গ্রেপ্তার করেছে।
পাটকেলঘাটা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আকতারুজ্জামান জানান, মামলার প্রস্তুতি চলছে। এদিকে মিছিল শেষে পাঁচ রাস্তা মোড়ে প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়।
এতে বক্তব্য রাখেন, জেলা বিএনপি’র যুগ্ম-সম্পাদক হাসান-হোসেন বাবু, যুবদলের সভাপতি হাফিজুর রহমান, আব্দুর রকিব, আলি হোসেন প্রমূখ। বক্তারা এই হত্যাকাণ্ডের সাথে জড়িতদের গ্রেপ্তার পূর্বক দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান। সাথে সাথে আগামীকাল পাটকেলঘাটায় প্রতিবাদ সভা থেকে বৃহত্তর কর্মসূচি ঘোষণা করবেন বলে জানান।