ঝুকিপূর্ণ ভবন : অকার্যকর করার পরিবর্তে প্লাস্টার


প্রকাশিত : মে ২৭, ২০১৩ ||

নিজস্ব প্রতিনিধি: ঝুকিপূর্ণ ভবন অকার্যকর করার পরিবর্তে প্লাস্টার করে ঢেকে ফেলা হয়েছে বড় বড় ফাটল। সাতক্ষীরা শহরের একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের অত্যন্ত ঝুকিপূর্ণ ভবনের বড় বড় ফাটল সংস্কারের নামে ফাটল ধরা দেওয়ালে নতুন করে প্লাস্টার করে ঢেকে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে।

সূত্রে জানা যায়, সাতক্ষীরা শহরের থানা সড়কের এসপি (সার্কেল অফিসের) সামনে প্রাণসায়ের খালের ধারে অবস্থিত মীম গার্মেন্টস এবং খোরশেদ স্যানিটারি। সাতক্ষীরা পৌরসভা থেকে লীজ নিয়ে এ দুটি প্রতিষ্ঠান তৈরী করেছেন কামালনগর গ্রামের মনিরউদ্দীন এবং খোরশেদ হোসেন। লীজ নেওয়া জমিতে একতলা ভবনের অনুমোদন নিয়ে দ্বিতীয় তলা এবং তৃতীয় তলায় সম্প্রসারণ করে দীর্ঘদিন যাবত ব্যবসা করছেন তারা। গত ৩/৪ মাস পূর্বে ওই ভবনের দক্ষিণ-পশ্চিম পাশের দেওয়ালে নীচতলা থেকে তৃতীয়তলা পর্যন্ত বিভিন্ন স্থানে বড়বড় ফাটল ধরে এবং ভবনের এক কোনা দক্ষিণ পাশে রয়্যাল স্যানিটারি দোকানের দিকে হেলে পড়ে। দেওয়ালে ফাটল ধরা এবং ভবন হেলে পড়ার কারণে ওই ভবণ অত্যন্ত ঝুকিপূর্ণ হয়ে পড়ে। ঝুঁকি এড়াতে এবং স্থাপনা অকার্যকরকরণের দাবিতে গত এপ্রিল মাসে রয়্যাল স্যানিটারির মালিক ব্যবসায়ী নজরুল ইসলাম সাতক্ষীরা পৌরসভা মেয়র বরাবর দরখাস্ত করেন। বিষয়টি নিয়ে পরে পৌরসভার সহকারি ইঞ্জিনিয়ার এবং সার্ভেয়ার ঘটনাস্থলে তদন্ত করেন। তদন্ত শেষ হওয়ার কিছুদিন পরে গার্মেন্টস এবং খোরশেদ স্যানিটারির মালিক রাজমিস্ত্রী দিয়ে গত শুক্রবার ভবনের বড়বড় ফাটল প্লাস্টার করে ঢেকে দিয়েছেন।