তালার জালালপুর ইউপি চেয়ারম্যানকে হয়রানীর করার অভিযোগ


প্রকাশিত : জানুয়ারি ৪, ২০১৪ ||

ইলিয়াস হোসেন, তালা: স্থানীয় নির্বাচনকে কেন্দ্র করে তালার জালালপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান এম. মফিদুল হক লিটুকে ব্যপক ভাবে হয়রানী করা হচ্ছে। এর সাথে অভিনবভাবে প্রতারণা করে সাংবাদিকতাকে কাজে লাগিয়ে প্রতারক চক্র লিটুকে “ঘায়েল করতে” ব্যাপক তৎপরতা শুরু করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।
সূত্রে জানাগেছে, তালা উপজেলা বিএনপির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এম. মফিদুল হক লিটু ব্যাপক জনপ্রিয়তা নিয়ে জালালপুর ইউনিয়ন পরিষদ’র চেয়ারমান নির্বাচিত হবার পর থেকে নির্বাচনী প্রতিপক্ষরা তাঁর বিরুদ্ধে একের পর এক চক্রান্ত করে আসছে। কিন্তু তাতে কোনও সুবিধা না পেয়ে প্রতিপক্ষরা এবার প্রতারণার মাধ্যমে সাংবাদিকতাকে ব্যবহার করে চেয়ারম্যান মফিদুল হক লিটুকে প্রশাসন দিয়ে হয়রানী করার চেষ্টা করছে।
সাতক্ষীরা থেকে প্রকাশিত একটি দৈনিকের তালা ব্যুরো প্রধান আব্দুর জব্বার জানান, আমাকে না জানিয়ে আমার নাম ও মুঠোফোন নম্বর ব্যবহার করে পাইকগাছা উপজেলার কপিলমুনি বাজারের অবস্থিত কপোতাক্ষ কম্পিউটার নামের একটি দোকান থেকে ঐ দোকানের ই-মেইল আইডি ব্যবহার করে আমার পত্রিকা অফিসে সংবাদ পাঠিয়েছেন।
এব্যাপারে কপোতাক্ষ কম্পিউটারের প্রোপাইটার তৈয়েবুর রহমান জানান, যে ই-মেইল আইডি থেকে ঐ সংবাদটি পাঠানো হয়েছে সে আইডি টি আমার ব্যণিজ্যিক কাজে ব্যবহৃত হয়। সেই সুবাদে ৩১ ডিসেম্বর ২০১৩ ইং তারিখ বিকাল ৪টার পর আমার দোকান থেকে দৈনিক কালের চিত্রের পাইকগাছা প্রতিনিধি মোঃ নজরুল ইসলাম উক্ত সংবাদটি সাতক্ষীরা থেকে প্রকাশিত দৈনিক পত্রদূত অফিসে পাঠায়। তবে এব্যাপারে দৈনিক কালের চিত্রের পাইকগাছা প্রতিনিধি মোঃ নজরুল ইসলাম এর সাথে মুঠো ফনে যোগাযোগ করলে তিনি অসুস্থ্য বলে সংযোগটি বিচ্ছিন্ন করে দেন।