আশাশুনিতে কর্মসৃজন কর্মসূচির শ্রমিকদের মজুরি না দেওয়ার অভিযোগ


প্রকাশিত : জানুয়ারি ৮, ২০১৪ ||

আহসান হাবিব, আশাশুনি: আশাশুনিতে অতি দরিদ্রদের জন্য কর্মসৃজন কর্মসূচিতে (ইজিপিপি) নিয়োজিত শ্রমিকরা ৭ সপ্তাহ কাজ করেও মজুরি না পেয়ে মানবেতর জীবনযাপন করছে।
এলাকা ঘুরে শ্রমিকদের সাথে কথা বলে জানাগেছে, আশাশুনির ১১টি ইউনিয়নের ৫ হাজার ১শ ৭০ জন শ্রমিক ৪০ দিনের কর্মসূচিতে কাজ করছেন। গত ১৯ নভেম্বর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোছাম্মাৎ মমতাজ বেগম কাজের উদ্বোধন করেন। এরপর পর্যায়ক্রমে সকল ইউনিয়নে কাজ শুরু হয়। ১১টি ইউনিয়নে ৯৯টি প্রকল্পে এসব শ্রমিক কাজ করছেন। প্রতিদিন তাদের মজুরী বাবদ মাথাপিছু ২শ টাকা করে দেওয়ার কথা। এই মজুরি থেকে ১৭৫ টাকা করে সপ্তাহের শেষ দিন অর্থাৎ বৃহস্পতিবার প্রত্যেক সপ্তাহের ২শ টাকার মধ্যে ১৭৫ টাকা করে পাবে। বাকী ২৫ টাকা শ্রমিকদের ব্যাংক একাউন্টে সঞ্চয় হিসাবে জমা হওয়ার কথা। সঞ্চয়কৃত এই টাকা জুলাই’১৪ মাসে উঠাতে পারবে। তবে, গত ৭ সপ্তাহ ধরে শ্রমিকরা কাজ করেও এখনো কোন টাকা তারা পাননি। এতে শ্রমিকরা অত্যন্ত মানবেতর জীবনযাপন করতে বাধ্য হচ্ছেন। শীতের মধ্যে নিজ এবং সন্তানদের শীতবস্ত্রও পরাতে হিমশিম খাচ্ছেন তারা।
অসহায় শ্রমিকরা জানান, অনেকে বাড়ির গৃহপালিত হাঁস-মুরগী, গরু-ছাগল বিক্রি করতে বাধ্য হচ্ছেন। বাকী আছে আর মাত্র এক সপ্তাহের কাজ। এই অল্প সময়ে তারা টাকা পাবেন কি না এমন সংশয়ে দিন কাটছে তাদের।
এ ব্যাপারে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা আরিফুল হাসান জানান, শ্রমিকদের কাজের প্রয়োজনীয় কাগজপত্র পাওয়ার সাথে সাথে যথানিয়মে স্বাক্ষর করে ব্যাংকে পাঠানো হয়েছে। কিন্তুঅজ্ঞাত কারণে এত টাকা পেমেন্ট দিতে পারছে না বলে সংশ্লিষ্ট ব্যাংক কর্মকর্তা দাবি করছেন। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট ব্যাংক কর্মকর্তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করে দ্রুত টাকা পরিশোধের তাগিদ দিয়েছেন বলেও তিনি জানান।