সংরক্ষিত মহিলা সংসদ সদস্য হিসেবে মনোনীত হতে দলীয় মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন সাতক্ষীরার ছয় প্রার্থী


প্রকাশিত : জানুয়ারি ১৮, ২০১৪ ||

শেখ তানজির আহমেদ: দশম জাতীয় সংসদে প্রতিনিধিত্ব করার লক্ষ্যে সংরক্ষিত মহিলা সংসদ সদস্য হিসেবে মনোনীত হতে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন সাতক্ষীরার ছয় সম্ভাব্য প্রার্থী।
সূত্র জানায়, তৎকালীন প্রাদেশিক পরিষদের সদস্য এবং আধুনিক সাতক্ষীরার স্বপ্নদ্রষ্টা শহীদ স ম আলাউদ্দিনের কন্যা লায়লা পারভীর সেজুতি, জেলা মহিলা আওয়ামীগের সভানেত্রী রিফাত আমিন, সাতক্ষীরা সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট শাহানাজ পরাভীন মিলি, কলারোয়া উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মনোয়ারা ফারুক, শ্যামনগর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান শিল্পী রানী মৃধা ও সাতক্ষীরা জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সদস্য মমতাজুর রহমান ঝর্ণা সংরক্ষিত মহিলা সংসদ সদস্য প্রার্থী হতে দলীয় মনোনয়নপত্র কিনেছেন। এছাড়া শিশু একাডেমির পরিচালক ও সাতক্ষীরার সন্তান ফাল্গুনী হামিদ মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন বলে জানা গেছে।
দলীয় একাধিক সূত্র জানায়, সংরক্ষিত মহিলা আসনের সম্ভাব্য প্রার্থীরা ইতোমধ্যে নিজ নিজ স্থান থেকে জোর লবিং শুরু করেছেন।
দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী তৎকালীন প্রাদেশিক পরিষদের সদস্য এবং আধুনিক সাতক্ষীরার স্বপ্নদ্রষ্টা শহীদ স ম আলাউদ্দিনের কন্যা লায়লা পারভীর সেজুতি বলেন, আমি মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছি। আজ বা কাল জমা দেবো। তিনি বলেন, আমার বাবা সাতক্ষীরার মানুষের কল্যাণের জন্য আজীবন কাজ করেছেন। সুযোগ দিলে বর্তমানের চেয়ে মানুষের কল্যাণে কাজ করার পথ আরো প্রশস্থ হবে।
কলারোয়া উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মনোয়ারা ফারুক বলেন, চেষ্টা করছি মনোনয়ন লাভের। আমি মনোনয়নপত্র কিনে জমা দিয়েছি।
শ্যামনগর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান শিল্পী রানী মৃধা নিজের মনোনয়নপত্র সংগ্রহ ও জমাদানের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, আমি আজকেই আমাদের জেলা আওয়ামী লীগের সভানেত্রী রিফাত আমিন ও সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান শাহানাজ পারভীর মিলিকে মনোনয়নপত্র জমা দিতে দেখেছি।
জেলা শ্রমিক লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি শেখ হারুন-উর-রশীদ জানান, সংরক্ষিত মহিলা সংসদ সদস্য হিসেবে সাতক্ষীরা বরাবরই বঞ্চিত। স্বাধীনতার পর অদ্যাবধি আওয়ামী লীগ থেকে সাতক্ষীরার কেউ সংরক্ষিত মহিলা সংসদ সদস্য হিসেবে মনোনীত হননি। এবারও ভেবেছিলাম আমরা একটা মন্ত্রী পাব। কিন্তু পাইনি। আমরা আশা করি নেত্রী আমাদের জন্য অন্তত একটা মহিলা সংসদ সদস্য দেবেন।
তিনি বলেন, সাবেক প্রাদেশিক পরিষদের সদস্য শহীদ স ম আলাউদ্দিন আধুনিক সাতক্ষীরা গড়ে তোলার স্বপ্ন দেখতেন। তিনিই ভোমরা বন্দর প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। আমরা চাই তার কন্যা লায়লা পারভীন সেজুতিকে নেত্রী আবার সাতক্ষীরাবাসীর সেবা করার সুযোগ দিক।
প্রসঙ্গত, স্বাধীনতার পর থেকে সাতক্ষীরার কেউ সংরক্ষিত মহিলা সংসদ সদস্য হিসেবে মনোনীত না হলেও প্রয়াত ¯িœগ্ধা হক জিয়াউর রহমান সময় ও প্রয়াত সৈয়েদা ফরিদা রহমান সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার সময় সংরক্ষিত মহিলা সংসদ সদস্য হিসেবে মনোনিত হয়েছিলেন।