কপিলমুনিতে ফুটবল টুর্নামেন্টে তালা ক্লাব সেমিতে


প্রকাশিত : জানুয়ারি ২৮, ২০১৪ ||

পলাশ কর্মকার, কপিলমুনি: কপিলমুনি ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠান আয়োজিত কেকেএসপি ৮ দলীয় নক-আউট ফুটবল টুর্নামেন্ট’১৪ এ তালা ক্লাব ফুটবল একাদশ ২-১ গোলে স্বাগতিক কেকেএসপি ফুটবল একাদশকে পরাজিত করে সেমি ফাইনালে খেলার যোগ্যতা অর্জন করেছে।
কপিলমুনি সহচরী বিদ্যা মন্দির স্কুল এন্ড কলেজ মাঠে সোমবার বিকাল ৪টায় অনুষ্ঠিত এ ম্যাচে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন তালা উপজেলার ১১নং জালালপুর ইউপি চেয়ারম্যান এম. মফিদুল হক লিটু। এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন প্রধান শিক্ষক রহিমা আখতার শম্পা, কেকেএসপির কার্যকরি সহ-সভাপতি শেখ ইকবাল হোসেন খোকন, প্রধান শিক্ষক হরেকৃষ্ণ দাশ, প্রধান শিক্ষক খান রেজওয়ান উল্লাহ, কেকেএসপি প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি শেখ আব্দুর রশীদ, প্রেস ক্লাব সভাপতি শেখ আব্দুস সালাম, বণিক সমিতির সাবেক সম্পাদক শেখ আসাদুর রহমান পিয়ারুল, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী শেখ আনারুল ইসলাম, কেকেএসপি সভাপতি হাসান উজ জামান, সম্পাদক এম আজাদ হোসেন, সাংবাদিক ও মানবাধিকার কর্মী মুস্তাফিজুর পারভেজ, কেকেএসপির সদস্য সাংবাদিক পলাশ কর্মকার প্রমুখ।
তালা ক্লাব ও স্বাগতিক কেকেএসপি ফুটবল একাদশের মধ্যকার তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ এ খেলায় প্রথমার্ধে আত্মঘাতি গোলে ১-০ গোলে তালা ক্লাব এগিয়ে থাকে। দ্বিতীয়ার্ধে তালা ক্লাবের ১০নং জার্সি পরিহিত তৌফিকের দর্শনীয় গোলে ২-০ করে দলকে আরো এগিয়ে নেয়। খেলা শেষের ১০ মিনিট পূর্বে কেকেএসপির ১০ নং মুরাদ ১টি গোল করে। নির্ধারিত সময়ের মধ্যে কেকেএসপি গোল পরিশোধে মরিয়া হয়ে চেষ্টা করলেও আর কোন গোল না হওয়ায় তালা ক্লাব ফুটবল একাদশ ২-১ গোলে জয়লাভ করে সেমি ফাইনালে উত্তীর্ণ হয়। সেরা খেলোয়াড় বিবেচিত হন কেকেএসপির ১০নং খেলোয়াড় মুরাদ। খেলাটি পরিচালনা করেন জাতীয় রেফারি মাহাবুবুর রহমান (খুলনা), সহকারী ছিলেন বিনয় সরকার ও মিনারুল ইসলাম মিনার, স্ট্যান্ডবাই পরিচালক ছিলেন আবু বকর হাজরা। খেলার ধারা বিবরণী দেন শেখ জাহাঙ্গীর হোসেন।