হিন্দুদের চিঠি দিয়ে হুমকির প্রতিবাদে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষা কমিটির মানববন্ধন


প্রকাশিত : February 2, 2014 ||

ডেস্ক রিপোর্ট: জেলা সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষা কমিটির নেতৃবৃন্দ শহরের পলাশপোল-সবুজবাগসহ বিভিন্ন এলাকায় হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজনকে চিঠি দিয়ে হুমকি দেওয়ার ঘটনার তীব্র নিন্দা জ্ঞাপন করেছেন।
নেতৃবৃন্দ বলেন, যুদ্ধাপরাধ মামলায় কাদের মোল্লার ফাঁসির ঘটনার আগে ও পরে সাতক্ষীরা জেলায় ভয়াবহ সাম্প্রদায়িক তাণ্ডব চালানো হয়। বিভিন্নস্থানে হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজনের বাড়ি ঘরে লুটপাটের পর ভাঙচুর ও গানপাউডার ছিটিয়ে আগুন ধরিয়ে সর্বস্ব ধ্বংস করা হয়। হুমকি দিয়ে তাদের সহায় সম্পদ ফেলে দেশত্যাগে বাধ্য করার চেষ্টা চালানো হয়। ঘটনার সাথে জড়িত অধিকাংশ অপরাধী এখনো ধরা পড়েনি। এমন অবস্থায় পলাশপোল সবুজবাগসহ বিভিন্ন এলাকায় হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজনকে চিঠি দিয়ে হুমকি দেওয়ার ঘটনা নতুন করে আতংকের সৃষ্টি করেছে। এসব ঘটনায় জড়িতদের আইনের আওতায় আনতে হবে।
শনিবার সকাল ১১টায় সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের সামনে সারাদেশে সংখ্যালঘুদের উপর হামলার প্রতিবাদে জেলা সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষা কমিটি আয়োজিত মানববন্ধন কর্মসূচিতে বক্তারা এসব কথা বলেন। নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, সাতক্ষীরার পরিস্থিতি যখন অস্বাভাবিক- এমন পরিস্থিতিতে সম্প্রতি এক সংবাদ ব্রিফিংয়ে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ‘সাতক্ষীরার মিছিলে পুলিশ গুলি চালিয়ে যুবদলের জিয়ারুল ইসলামকে হত্যা করেছে’ মর্মে সাংবাদিকদের সামনে মিথ্যা তথ্য উপস্থাপন করে জাতিকে বিভ্রান্ত করেছেন। সাতক্ষীরার প্রেক্ষাপটে একজন জাতীয় পর্যায়ের দায়িত্বশীল রাজনৈতিক নেতার এ ধরনের মিথ্যা তথ্য সমৃদ্ধ বক্তব্য আমাদের হতাশ করেছে।
মানববন্ধন কর্মসূচিতে সাতক্ষীরা জেলা সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষা কমিটির সদস্য আজাদ হোসেন বেলালের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন সদস্য সচিব আবুল খায়ের সরদার, আবুল কালাম আজাদ, আনিসুর রহিম, মোস্তাফিজুর রহমান উজ্জল, নিত্যানন্দ সরকার, জোৎস্না দত্ত, বর্ষা, এড. তপন সরকার, রেবু প্রমুখ।