যশোরে অপহরণের চেষ্টাকালে এক ব্যক্তিকে পিটিয়ে হত্যা


প্রকাশিত : মার্চ ১৪, ২০১৪ ||

যশোর প্রতিনিধি: যশোরে পৃথক পৃথক ঘটনায় তিনজন নিহত এবং তিনজন আহত হয়েছেন।
পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, যশোর সদর উপজেলার বড় ভেকুটিয়া গ্রামে বুধবার রাতে এক স্কুলছাত্রীকে অপহরণ করতে এসে খুন হয়েছে মফিজুর রহমান (৪০) নামে এক দুর্বৃৃত্ত। ক্ষুব্ধ গ্রামবাসী তাকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে হত্যা করেছে। ওই গ্রামের একটি পুকুর থেকে তার লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। হত্যাকাণ্ডের সাথে জড়িত সন্দেহে পুলিশ খাদিজা বেগম নামে এক মহিলাকে আটক করেছে।
অপরদিকে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় দু’ব্যক্তি নিহত এবং ৩ জন গুরুতর আহত হয়েছেন। নিহতরা হলেন- হাফিজুর রহমান (৩০) ও সুজাত (৩০)।
নিহতদের পারিবারিক সূত্র জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার বিকেল ৩টার দিকে যশোরের শার্শা উপজেলার শিকড়ী গ্রামে নসিমন ও মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে মোটরসাইকেল চালক হাফিজুর রহমান গুরুতর আহত হয়। যশোর ২৫০ শয্যা হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। হাফিজুর রহমান শার্শার দিঘীরপাড় গ্রামের মুনসুর আলীর পুত্র।
একইদিন বাঘারপাড়া উপজেলার চতুরবাড়িয়া-খাজুরা সড়কের খালিয়া ব্রিকসের সামনে আলম সাধুর সাথে একটি গাড়ির সংঘর্ষ হয়। এতে সুজাত (৩৫) নামে এক যাত্রী ঘটনাস্থলে নিহত হন। সুজাত বাঘারপাড়া গ্রামের বড় খুদড়া গ্রামের আবু কালামের পুত্র। এ ঘটনায় আহত মাগুরার শালিখা উপজেলার গোয়ালখালী গ্রামের মামুন আল আজাদের স্ত্রী শাহনাজ পারভীন, তার ছেলে শোভন ও কন্যা বর্ষা। আহতদের বিভিন্ন ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়েছে।