কালিগঞ্জে পুলিশের অভিযানে ৬২০ বোতল ভারতীয় ফেন্সিডিলসহ দু’মাদক ব্যবসায়ী গ্রেপ্তার


প্রকাশিত : জানুয়ারি ১৮, ২০১৭ ||

বিশেষ প্রতিনিধি: কালিগঞ্জে পুলিশের অভিযানে ৬২০ বোতল ভারতীয় ফেন্সিডিলসহ দু’মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তার হয়েছে।

তারা হলেন উপজেলার ভাড়াশিমলা ইউনিয়নের সোনাটিকারী গ্রামের কুখ্যাত মাদক ব্যবসায়ী জহুর গাজীর ছেলে শাহীন গাজী (২২) এবং একই গ্রামের রাশেদ কারিকরের ছেলে রায়হান কারিকর (১৮)।
কালিগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) লস্কর জায়াদুল হক জানান, মাদক চোরাচালানের একটি সংঘবদ্ধ চক্র মাদক বিক্রয়ের উদ্দেশ্যে তেলের ড্রামের ভিতরে বিশেষ কায়দায় মবিল ও ফেন্সিডিলের বোতল ঢুকিয়ে দেশের বিভিন্ন স্থানে পাচারের জন্য কাঁকশিয়ালী গ্রামে জনৈক আবুল হোসেনের বাড়ির সামনে রাস্তায় নিয়ে আসে। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে থানার উপ-পরিদর্শক সনাতন কুমার মন্ডল ও সহকারী উপ-পরিদর্শক বাবুল আক্তার বুধবার সকাল সাড়ে ৬ টার দিকে সেখানে অভিযান চালিয়ে  ৪ টি ড্রাম আটক করে। পুলিশ ড্রামের ভিতর থেকে বিশেষ কায়দায় রাখা ৬২০ বোতল ভারতীয় ফেন্সিডিল উদ্ধার হয়। এসময় পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে মাদক ব্যবসায়ী শাহীন গাজী ও রায়হান কারিকরকে গ্রেপ্তার করে। এ ব্যাপারে কালিগঞ্জ থানার সহকারী উপ-পরিদর্শক বাবুল আক্তার বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেছেন (মামলা নম্বর: ১৭, তারিখ: ১৮/০১/১৭ খ্রিঃ)।
প্রসঙ্গত, পুলিশের অভিযানে গ্রেপ্তার হওয়া শাহীন গাজী এলাকার কুখ্যাত মাদক স¤্রাট হিসেবে খ্যাত জহুর গাজীর ছেলে। জহুর গাজী দীর্ঘদিন যাবত ভারত থেকে ফেনসিডিল, ইয়াবা ও বিভিন্ন প্রকার মাদক দ্রব্যের বড় বড় চালান নিয়ে দেশের অভ্যন্তরে পাচারের সাথে জড়িত রয়েছে। তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় মামলা রয়েছে বলে জানা গেছে। এলাকাবাসী জানান, এক সময়ের নি:স্ব জহুর গাজী মাদকের ব্যবসা করে এখন কোটি কোটি টাকা ও সম্পদের মালিক। উপজেলার নলতার সন্নিকটে রয়েছে তার বিশাল আকৃতির বাড়ি। এছাড়াও খুলনার রাজাপুরসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে তার আরও কয়েকটি বাড়ি ও খুলনার সোনাডাঙ্গা বাইপাস সড়ক এলকায় কয়েক একর জমি রয়েছে বলে জানা গেছে।