ভুমি দস্যু কওছার ও শফিকুলের বিরুদ্ধে পাউবোর জায়গার মাটি কেটে বিক্রির অভিযোগ: কর্তৃপক্ষ নিরব


প্রকাশিত : ফেব্রুয়ারি ১, ২০১৭ ||

নিজস্ব প্রতিনিধি: বিল শিমুল বাড়িয়ায় পানি উন্নয়ন বোর্ড ১ এর জায়গা থেকে ভুমিদস্যু কওছার আলী ও শফিকুল ইসলাম গায়ের জোরে মাটি কেটে ইট ভাটাসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে বিক্রি করছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

 

সরজমিনে যেয়ে দেখা যায়, সাতক্ষীরা সদরের শিমুলবাড়িয়ার কেয়ামদ্দিনের পুত্র কওছার আলী, বালিথা গ্রামের ছবিরউদ্দিন সানার পুত্র শফিকুল ইসলাম সাতক্ষীরা পাউবো ২ এর বিল শিমুল বাড়িয়া মৌজার দাগ নং ২৪৫ এর ৫৭ খতিয়ান থেকে এক একর ২৩ শতক জমি থেকে এসকেবেটার মেশিন দিয়ে কয়েকদিন যাবৎ এলাকার বেড়ির মাটিসহ সরকারি জমির মাটি কেটে অত্র এলাকার বিভিন্ন ইট ভাটাসহ ব্যক্তি মালিকদের নিকট বিক্রি করে লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয় নিচ্ছে ভূমিদস্যু চক্ররা। বিষয়টি গ্রামবাসী সাতক্ষীরা ২এর পানি উন্নয়ন বোর্ডে অভিযোগ করলে পানি উন্নয়ন এসও খায়রুজ্জামান ভূমি দস্যুদের মাটি কাটা বন্ধের নির্দেশ দেয়। কিন্তু কতৃপক্ষের নির্দেশ উপেক্ষা করে মাটি কাটা চলমান রেখেছে। এ বিষয়ে বিল শিমুল বাড়িয়ার একাধিক ব্যক্তি নাম প্রকামে অনিচ্ছুক এ প্রতিনিধিকে বলেন, এলাকার সন্ত্রাসী ও এলাকার ত্রাস কওছার ও শফিকুল সকল অপকর্ম করে থাকলেও প্রশাসন তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিচ্ছেন না। তারা আরও বলেন ঐ গডফাদাররা পানি উন্নয়ন বোর্ডের কিছু অসাধু ব্যক্তিদের নগদ তুষ্ঠ করে মাটি কেটে এলাকার ক্ষতি সাধন করে চলেছে। এতে করে বর্ষা মৌসুমে ভেড়িবাধ ভেঙ্গে যাওয়ার আশঙ্কায় এলাকার সাধারণ মানুষের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে।  উক্ত বিষয়ে পানি উন্নয়ন বোর্ডের এসও খায়রুজ্জামানের সাথেকথা হলে তিনি বলেন, আমরা মৌখিক ভাবে মাটি কাটতে নিষেধ করেছি কিন্তু এখন তারা মাটি কাটা অব্যাহত রেখেছে। আমরা তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেব। সার্বিক বিষয়ে পানি উন্নয়ন বোর্ডের (এক)  দায়িত্ব প্রাপ্ত অফিসার মোমিন আলীর সাথে ফোনে কথা হলে তিনি বলেন, জানা নেই বিষয়টি জেনে ব্যবস্থা নেবে।