সুন্দরবনে র‌্যাবের অভিযানে বনদস্যু নুর বাহিনীর প্রধানসহ ২ জন আটক, ৩টি আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার


প্রকাশিত : ফেব্রুয়ারি ১৪, ২০১৭ ||

শ্যামনগর প্রতিনিধি: পশ্চিম সুন্দরবনে র‌্যাব সদস্যদের অভিযানে বনদস্যু নুর বাহিনীর প্রধান নুর ইসলাম ওরফে নুরসহ তার এক সহযোগী আটক হয়েছে। সোমবার সকালে তাদেরকে সাতক্ষীরা রেঞ্জ’র কলাগাছিয়া সংলগ্ন পশুরতলা খালের মধ্য হতে আটক করা হয়। এসময় তাদের নিকট থেকে তিনটি আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার করে র‌্যাব সদস্যরা। আটক হওয়া অপর ব্যক্তি নুর বাহিনী প্রধানের অন্যতম সহযোগী আব্বাস আলী। র্যাব ৮ এর একটি চৌকষ টিম সোমবারের অভিযানে অংশ নেয়।
বাহিনী প্রধান নুর ইসলাম ওরফে নুর যশোরের বাগআঁচড়া এলাকার জাকির আলী জালালের এবং আব্বাস আলী সাতক্ষীরার আলীপুর এলাকার মৃত বসির আলীর ছেলে।
তাদেরকে শ্যামনগর থানা পুলিশের কাছে সোপর্দ করা হয়েছে। এঘটনায় র্যাবের ডিএডি আমজাদ হোসেন বাদি হয়েছে তাদের বিরুদ্ধে মামলা করেছে।
র‌্যাব ও পুলিশ সুত্রে জানা যায় সোমবার ভোরে র‌্যাব সদস্যরা গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পশ্চিম সুন্দরবনের সাতক্ষীরা রেঞ্জ’র পশুরতলা এলাকায় অভিযান চালায়। এসময় সেখানে অবস্থানরত বনদস্যুরা র‌্যাবের উপস্থিতি বুঝতে পেরে গুলি শুরু করলে র্যাব ও পাল্টা গুলি চালায়। এক পর্যায়ে অন্যরা ঘটনাস্থল থেকে পালাতে সক্ষম হলেও র‌্যাব সদস্যরা বাহিনী প্রধান নুরসহ তার এক সহযোগীকে আটক করে। এসময় ঘটনাস্থল থেকে দুটি দেশী বন্দুক ও একটি পিস্তল উদ্ধার করার তথ্য দেয় র‌্যাব এর অভিযান পরিচালনাকারী টিম।
শ্যামনগর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান জানিয়েছে সুন্দরবনে অভিযানে আটক দুই বনদস্যুদের অস্ত্রসহ র‌্যাব সদস্যরা পুলিশের কাছে সোপর্দ করেছে। এঘটনায় আটককৃতদের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে বলেও তিনি নিশ্চিত করেন।