তালার খলিষখালীতে ভূমি অফিসের কাজ চলে রান্না ঘরের মধ্যে!


প্রকাশিত : ফেব্রুয়ারি ২০, ২০১৭ ||

খলিষখালী (পাটকেলঘাটা) প্রতিনিধি: বর্তমান সরকারের উন্নয়নের কথা বলে কাগজে কলমে শেষ হবে না।

 

কিন্তু সরকার যেখান থেকে প্রতিবছর লক্ষ লক্ষ টাকা রাজস্ব আয় করে সেই অফিসটি যদি সরকারের কোন কাজে না আসে তাহলে সরকার কিভাবে সেখান থেকে রাজস্ব আদায় করবে। এ প্রশ্ন এখন অত্র অফিসের কর্মকর্তাদের নয়।  এ প্রশ্ন এখন খলিষখালী ইউনিয়নের সাধারণ জনগণের। দীর্ঘ ১৫/২০ বছর আগে জেলার অন্যতম উন্নয়নমূলক থানা হিসাবে সরকার তালা উপজেলাকে প্রাধান্য দিয়ে থাকে। কিন্তু উপজেলার খলিষখালী ইউনিয়ন ভূমি অফিসটি রান্না ঘরের মধ্যে ভূমি অফিসের সকল কাজকর্ম চলে আসলেও সরকার আজও পর্যন্ত নতুন ভবন করার কোন উদ্যোগ গ্রহন করেননি। রোববার দুপুর ১২টায় ঐ  ভূমি অফিসে গেলে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা অসিম হালদার এ প্রতিনিধিকে জানান দীর্ঘ দিন যাবৎ নতুন ভবন করার জন্য সংশ্লিষ্ট দপ্তরে একাধিক আবেদন করেছি। কিন্তু কোন লাভ হয়নি। তিনি আরো জানান গত ১৫-১৬ অর্থবছরে প্রায় ১৯লক্ষ টাকা এ অফিস থেকে সরকারের রাজস্ব আয় করে উপজেলার মধ্যে প্রথম হয়েছি। এবার ১৬-১৭ অর্থ বছরে ২২ লক্ষ টাকা রাজস্ব আদায়ের টার্গেট দিয়েছে সরকার। ইতোমধ্যে প্রায় ১২লক্ষ টাকা রাজস্ব আদায় করেছি। বাকীটা জুনের মধ্যেই হবে বলে তিনি আশাবাদী। কিন্তু তিনি অত্যন্ত দু:খের সঙ্গে জানান দীর্ঘ প্রায় ১৫-২০ বছর আগে বর্তমান অফিসটি রান্না ঘর ছিল। সেই থেকে এই রান্না ঘরের মধ্যে কাজকর্ম চলে আসছে। শুধু তাই নয় সরকারের গুরুত্বপূর্ণ কাগজপত্র থাকে যা অত্যন্ত ঝুকিপূর্ণ। কারণ এই ঘরটি টিন শেড। তাছাড়া চার পাশ দিয়ে দেয়ালটি ফেটে চৌচির হয়ে গেছে। যেকোন মুহূর্তে ভেঙ্গে পড়তে পারে। তার পরও অত্র অফিসের কর্মকর্তা কর্মচারীরা জীবনের ঝুকি নিয়ে কাজ করে যাচ্ছে। তাই খলিষখালীবাসির প্রাণের দাবি সরকারের এই গুরুত্বপূর্ণ দপ্তরে একটি নতুন ভবন জুরুরি ভিত্তিতে তৈরী করার জন্য জেলা প্রশাসক মহাদ্বয়ের সুদৃষ্টি কামনা করেছেন সাধারণ জনগণ।