বিদেশের যাওয়ার চেয়ে আউটসোসিংয়ের মাধ্যমে ঘরে বসে অনেক বেশি উপার্জন করা সম্ভব: জেলা প্রশাসক


প্রকাশিত : ফেব্রুয়ারি ২০, ২০১৭ ||

নিজস্ব প্রতিনিধি: আউটসোসিংয়ে বিশ্বের অনেক দেশের তুলনায় বাংলাদেশের তরুণ অনেক এগিয়ে রয়েছে। বর্তমানে যারা বেকার যুব রয়েছে তাদের জন্য আউটসোর্সিং খুবই জরুরি। বিদেশে গিয়ে রোদে পুড়ে কাজ করার চেয়ে, একটা বিষয়ে দক্ষ হয়ে ঘরে বসে আউটসোসিংয়ের মাধ্যমে অনেক বেশি উপার্জন করা সম্ভব। “আমরা হবো জয়ী, আমরা দুর্বার, ডিজিটাল বাংলাদেশ বির্নিমানে আইসিটি হবে হাতিয়ার” এস্লোগানে সাতক্ষীরায় লার্নিং এন্ড আর্নিং ডেভেপমেন্ট প্রকল্পের আওতায় কর্মস্থানের সুযোগসহ বিনা ফিতে ৫০দিন ব্যাপি (২০০) ঘন্টার প্রশিক্ষণের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে  প্রধান  অতিথির বক্তব্যে সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক আবুর কাশেম মো. মহিউদ্দিন এ এসব কথা বলেন।
চাকরির পিছনে না ঘোরার ও পরামর্শ তিনি আরো বলেন, শহরে অনেক তরুণ বিসিএস দেয়ার অনিহা প্রকাশ করে আউট সোর্সিং এ ঝুকছে। আউটসোসিংয়ে বিশ্বের মধ্যে বাংলাদেশ তিন নম্বরে রয়েছে। ঢাকার পাশাপাশি অন্যান্য জেলাতে সেই সুযোগ সৃষ্টি করতে সরকার এ সকল উদ্যোগ নিয়েছে। এছাড়া তিনি যুব সমাজকে মাদক থেকে বিরত থাকার পরামর্শ দেন। রোববার বিকেলে সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসকের হলরুমে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) অরুন কুমার বিশ্বাসের সভাপতিত্বে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সহকারী প্রোগ্রামার মৃদুল কান্তি দাশ, লার্নিং এন্ড আর্নিং ডেভেপমেন্ট প্রকল্পের কো-অর্ডিনেটির আওলাদ হোসেন, ডিজিটাল মার্কেটিং ট্রেইনার মহিউদ্দিন হোসেন ও আরফাত হোসেন প্রমুখ।
প্রসঙ্গত, ৫০দিন ব্যাপি (২০০) ঘন্টার লানিং এন্ড আর্নিং এ প্রশিক্ষণের আওতায় প্রতিদিন ২ঘন্টা কারে ২ব্যাচে ৪৪জন শিক্ষার্থী প্রশিক্ষণ গ্রহন করবে।