‘গডফাদার’ সবুরের ভোঁ দৌড়


প্রকাশিত : ফেব্রুয়ারি ২৪, ২০১৭ ||

পত্রদুত রিপোর্ট: সাতক্ষীরার গডফাদার পরিচিত আলিপুরের আব্দুস সবুরকে ধাওয়া করলো আলিপুরের লোকজন। বৃহস্পতিবার সকাল ৯টার দিকে বাঁকালে নির্মাণাধীন ট্রাক টার্মিনালে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় সবুর দৌড়ে আলিপুর পেট্রোল পাম্পে আশ্রয় নিয়ে গণপিটুনির হাত থেকে রক্ষা পায়।
এলাকাবাসি জানান, আলিপুর ও পাশ্ববর্তী এলাকার কমপক্ষে ৫হাজার বিঘা সরকারি খাস ও অর্পিত সম্পতি ভোগ দখল করে আসছে সবুর পরিবার। বিপুল পরিমান এই সরকারি সম্পত্তির অধিকাংশই জাল জালিয়াতির মাধ্যমে ইতোমধ্যে সবুর পরিবার মালিকও বনে গেছে। সম্প্রতি সবুর তার পেট্রোল পাম্পের বেচা-কেনা বাড়াতে জেলা প্রশাসনকে ব্যবহার করে পেট্রোল পাম্পের সামনে সাতক্ষীরা ট্রাক টার্মিনাল নির্মাণের উদ্যোগ নেয়। এখানে নামমাত্র কিছু খাস জমি থাকলেও অধিকাংশই ব্যক্তি মালিকানাধীন রেকর্ডীয় সম্পত্তি খাস বলে দখল করার পায়তারা চালানো হচ্ছে। এলাকাবাসীরা আরো জানান, প্রস্তাবিত ট্রাক টার্মিনালে আলিপুরেরর অহিদার রহমানের ২০শতক, আবুলের ৬৬শতক, আব্দুল কাদের মধুর ২০ শতক, হাসান গং ৪৫ শতক, আবু ঢালীর ১৮ শতক, রূপচাদ সরদারের ২০০ শতক, মেহের আলীর ২০ শতক, তাবারকের ২০ শতক, জেহের আলীর ২০শতক, আনসার আলীর ২০ শতক ও জামাল ঢালীর ১৭ শতক জমি রয়েছে।
আলিপুরের রূপচাদ সরদারের ছেলে রফিকুল ইসলাম জানান, বৃহস্পতিবার সকাল থেকে সবুরের লোকজন তার পৈত্রিক ঘেরের জমি থেকে মাটি কাটতে শুরু করে। তিনি জানতে পেরে এলাকাবাসীকে সাথে নিয়ে ঘটনাস্থলে আসেন। এ সময় লেবারদের মাটি কাটার বিষয়ে জানতে চাইলে তারা সবুরের নির্দেশে মাটি কাটছে বলে জানায়। কথাকাটাকাটির একপর্যায়ে সেখানে সবুর হাজির হয়। এ সময় উত্তেজনার সৃষ্টি হলে সবুর দৌড়ে পাশ্ববর্তী পেট্রোল পাম্পে আশ্রয় নেয় এবং লেবাররা মাটি কাটা বন্ধ করে চলে যায়।
রফিকুল ইসলাম আরো জানান, আলিপুরের হাজার হাজার বিঘা খাসজমি সবুর ভোগ দখল করছে। আর সাধারণ মানুষের রেকর্ডিয় সম্পত্তি এখন খাস বানিয়ে তা ট্রাক টার্মিনালে ব্যবহারের চেষ্টা করছে। তিনি তাদের পৈত্রি সম্পত্তি রক্ষার্থে কতৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।