সাতক্ষীরায় অনন্তপুরের দাউদ আলির সংবাদ সম্মেলন শ্যামনগরে মাদ্রাসা কমিটি কর্তৃক জমি দখল চেষ্টা!


প্রকাশিত : ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০১৭ ||

নিজস্ব প্রতিনিধি: শ্যামনগরের ভুরুলিয়া ইউনিয়নের অনন্তপুর গ্রামের দাউদ আলির ১১ শতক ভূমি নিয়ে বিরোধে জড়িয়ে পড়েছেন এলাকার আশরাফ সরদার, আবদুল আজিজ, কালিগঞ্জের মৌতলার নিমাই চাঁদ দে, প্রশান্ত কুমার দে, পরমানন্দকাটি গ্রামের মোকছেদ আলি ও অনন্তপুরের আজিবর সরদার। এসব বিষয় নিয়ে তিনি রোববার দুপুরে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলন করে জমি দখলের প্রতিকার দাবি করেন।
দাউদ আলি বলেন, এই বিরোধের জেরে দাউদের বিরুদ্ধে কালিগঞ্জ থানায় একটি চাঁদাবাজির মামলা হয়। এই মামলা মিথ্যা প্রমানিত হওয়ায় কালিগঞ্জের সহকারি পুলিশ সুপার উভয়পক্ষের মধ্যে আপোষ মীমাংসা করে দেন। এতে দাউদকে স্বত্ত্ব বিচারে আশ্রয় দেওয়ার ইঙ্গিত দেওয়া হয়। তিনি জানান আপোষনামার মূল কপি বিবাদী পক্ষের নিমাই চাঁদের কাছে রয়েছে। কিন্তু সেই আপোষ অমান্য করে বাদি পক্ষের ছয়ভাইকে জটিলতায় ফেলে দিয়েছেন প্রতিপক্ষের লোকজন।
তিনি জানান স্থানীয় মসজিদের সভাপতি আশরাফ সরদার মুসল্লিদের সাথে নিয়ে মাদ্রাসার জমি রক্ষার কথা বলে উসকানিমূলক বক্তব্য দেন। এসব নিয়ে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদে নালিশ দেওয়া হলে চেয়ারম্যান ওই জমিতে কাজ বন্ধ রেখে উভয়পক্ষকে কাগজপত্র নিয়ে আসতে বলেন। কিন্তু তারপরও ২০১৬ সালের ৩০ জুলাই প্রতিপক্ষ বিরোধীয় জমিতে কাজ শুরু করে। চেয়ারম্যান চৌকিদার পাঠিয়ে কাজ বন্ধ করে দেন। তিনি জানান চেয়ারম্যানের আদেশ অমান্য করে এমনকি শ্যামনগর থানা পুলিশের আদেশ অমান্য করে প্রতিপক্ষ ।
দাউদ আলি অভিযোগ করে বলেন বাদীপক্ষের ভাই জহুর আলি ও শওকত আলিকে কালিগঞ্জ থানার একটি মামলায় আসামি করে তাদের হয়রানি করা হচ্ছে। তিনি মাদ্রাসা কমিটি কর্তৃক জমি দখলের এসব প্রচেষ্টার বিপক্ষে প্রশাসনের সহায়তা কামনা করেছেন।