শহীদ প্রভাষক এ.এম.বি মামুন হোসেনের ৪র্থ মৃত্যু বার্ষিকীর স্মরণ সভায় এমপি রবি: ছাত্র নেতা মামুন তার জীবন দিয়ে প্রমান করেছে আওয়ামী লীগের নেতা কর্মীরা বীরের মতো মরতে জানে


প্রকাশিত : মার্চ ১, ২০১৭ ||

নিজস্ব প্রতিনিধি: ২০১৩ সালের ২৮ ফেব্রুয়ারি জামাত-শিবিরের নৃশংস হামলায় নিহত সাবেক ছাত্র নেতা শহীদ প্রভাষক এ.এম.বি মামুন হোসেনের ৪র্থ মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষে স্মরণ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার বিকালে জেলা আওয়ামী লীগের আয়োজনে সাতক্ষীরা শহিদ আব্দুর রাজ্জাক পার্কে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা মুনসুর আহমেদের সভাপতিত্বে স্মরণ সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সাতক্ষীরা সদর আসনের সংসদ সদস্য মুক্তিযোদ্ধা মীর মোস্তাক আহমেদ রবি। এ সময় তিনি বক্তব্যে বলেন, সাতক্ষীরায় ২০১৩ সালের ২৮ ফেব্রুয়ারি জামাত-শিবিরের নৃশংস হামলায় নিহত সাবেক ছাত্র নেতা শহীদ প্রভাষক এ.এম.বি মামুন হোসেনের খুনিদের বিচার এই বাংলার মাটিতেই হবে। কোনভাবে ঐ খুনি হায়েনারা পালিয়ে থাকতে পারবেনা। কি দোষ করেছিল মামুন? যারা তাকে ইট দিয়ে থেতলিয়ে থেতলিয়ে হত্যা করেছিল তাদেরকে মামুন পানি ও বিস্কুট খাইয়েছিল। দীর্ঘ ৪ বছর পেরিয়ে গেছে আজো কেন মামুনের খুনিরা বিচারের আওতায় আসেনি। ঐ খুনি হায়নাদের আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে হবে। জামাত-শিবিরের নৃশংস হামলায় নিহত সাবেক ছাত্র নেতা শহীদ প্রভাষক এ.এম.বি মামুন হোসেনের আত্মত্যাগকে শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করবে ছাত্রলীগ তথা আওয়ামী লীগের প্রতিটি নেতা-কর্মী। ছাত্র নেতা মামুন তার জীবন দিয়ে প্রমান করেছে আওয়ামী লীগের নেতা কর্মীরা বীরের মতো মরতে জানে। স্মরণ সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক সৈয়দ ফিরোজ কামাল শুভ্র, জেলা আওয়ামী লীগের মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক মুক্তিযোদ্ধা ইনামুল হক বিশ্বাস, তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক এড. স. ম. গেলাম মোস্তফা, জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য এড. মোজাহার হোসেন কান্টু, জেলা মহিলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক পৌর কাউন্সিলর জ্যোৎন্সা আরা, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক ডা. মুনসুর আহম্মেদ, সিপিবি’র কমরেড আবুল হোসেন, জেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক জহিরুল হক নান্টু, এপিপি এড. তামিম আহমেদ সোহাগ, জেলা স্বেচ্ছা সেবকলীগের সভাপতি শেখ মারুফ হাসান মিঠু, সাবেক ছাত্রলীগের সভাপতি কাজী আক্তার হোসেন প্রমুখ। এ সময় উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামীলীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক পিপি এড. ওসমান গণি, জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য জেলা শ্রমিকলীগ নেতা শেখ তহিদুর রহমান ডাবলু, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান কোহিনুর ইসলাম, সাতক্ষীরা রেড ক্রিসেন্টের সেক্রেটারী শেখ নুরুল হক, বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় চার নেতা স্মৃতি সংসদের জেলা সভাপতি জয়নুল আবেদীন জসি, এড. শাহনওয়াজ পারভীন মিলি, বল্লী ইউপি চেয়ারম্যান মো. বজলুর রহমান, জেলা পরিষদের সদস্য ওবায়দুর রহমান লাল্টু, আগরদাড়ী ইউপি চেয়ারম্যান মজনুর রহমান মালি, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সরদার নজরুল ইসলাম, ইনতাজ আলী মোড়ল, মো. শাহিদুল ইসলাম, পৌর ৪নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ কামরুল হক চঞ্চল, সাধারণ সম্পাদক শেখ মোসফিকুর রহমান মিল্টন, পৌর আওয়ামী লীগ নেতা শেখ আলমগীর হাসান আলম, যুবলীগ নেতা শেখ রফিকুল ইসলাম রানা, ৮নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ কামরুল ইসলাম, বিদ্যুৎ শ্রমিকলীগের জালাল ফকির, পৌর তরুণলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. ক্যাপ্টেন হোসেনসহ জেলা আওয়ামী লীগের সকল অঙ্গ ও সহযোগি সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। সমগ্র অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন জেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক শেখ হারুন উর-রশিদ।