জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস পালিত


প্রকাশিত : মার্চ ২৮, ২০১৭ ||

নিজস্ব প্রতিনিধি: যথাযথ মর্যাদা, বিন¤্র শ্রদ্ধা আর ভালোবাসায় সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসনের আয়োজনে বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্যদিয়ে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষে শনিবার সকালে ৩১বার তোপধ্বনির মধ্য দিয়ে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবসের শুভ সুচনা করা হয়। রোববার সকাল ৮টায় সাতক্ষীরা সদর-০২ আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর মোস্তাক আহমেদ রবি, তালা-কলারোয়া ০১ আসনের সংসদ সদস্য এ্যাড. মুস্তফা লুৎফুল্লাহ, জেলা প্রশাসক আবুল কাশেম মো. মহিউদ্দিন ও জেলা পুলিশ সুপার মো. আলতাফ হোসেন সাতক্ষীরা স্টেডিয়ামে বেলুন ও ফেস্টুন ও শান্তির প্রতিক কবুতর অবমুক্ত করে আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করেন।
এসময় উপস্থিত ছিলেন সংসদ সদস্য অধ্যাপক ডা. আ.ফ.ম রুহুল হক, সাতক্ষীরা জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. নজরুল ইসলাম, জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মুনসুর আহমেদ, জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এ.এন.এম মঈনুল ইসলাম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) এ.এফ.এম এহতেশামুল হক, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) অরুন কুমার মন্ডল, সিভিল সার্জন ডা. তওহিদুর রহমান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কে.এম আরিফুল হক, পৌর মেয়র তাজকিন আহমেদ চিশতি, সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার নূর হোসেন সজল, সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর লিয়াকত পারভেজ, জেলা প্রশাসক পত্মী সেলিনা আফরোজ, জেলা পুলিশ সুপার পত্মী মেহের আক্তার নিগার, জেলা পরিষদের প্রধান নির্বার্হী কর্মকর্তা পত্মী সেলিনা সুলতানা, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) পত্মী রঞ্জনা মন্ডল, জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক এ.কে.এম আনিছুর রহমান, সাতক্ষীরা সরকারি পলিটেকনিক ইন্সটিউটের অধ্যক্ষ প্রকৌশলী জি.এম আজিজুর রহমান, সরকারি টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজের অধ্যক্ষ মো. মোদাচ্ছের আলী, জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মোশাররফ হোসেন মশু, ডেপুটি কমান্ডার আবু বক্কার ছিদ্দিক, সদর উপজেলা কমান্ডার মো. হাসানুল ইসলাম, মুক্তিযোদ্ধা আবুল খায়ের সরদার, মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল খালেক, জেলা তথ্য অফিসার শাহানেওয়াজ করিম, সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এস.এম আব্দুল্লাহ আল মামুন, সদর উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মো. জালাল উদ্দিন, জেলা শ্রমিকলীগ নেতা শেখ তহিদুর রহমান ডাবলু, আমিনুর রহমান উল্লাসসহ সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের কর্মকতাবৃন্দ। পরে পুলিশ, বিএনসিসিসহ ৫৩টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছাত্র-ছাত্রীদের সমম্বয়ে দৃষ্টি নন্দন মার্চপাস্ট, শরীরচর্চা প্রদর্শনী ও ডিসপ্লে প্রদর্শন ও পুরস্কার বিতরণ করা হয়। এছাড়া সাতক্ষীরা স্টেডিয়ামে রেডক্রিসেন্ট সোসাইটির উদ্যোগে স্বেচ্ছায় রক্তদান কর্মসুচী পালন করা হয়। শহিদ আব্দুর রাজ্জাকের মাজার জিয়ারতসহ অন্যান্য শহিদ মুক্তিযোদ্ধাদের মাজার জিয়ারত করা হয়, জেলা শিল্পকলা একাডেমিতে ২’শ ৫০ জন মুক্তিযোদ্ধা পরিবারকে সংবর্ধনা ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। পৌরসভা দিঘীতে ছোট বড় সকলের জন্য সাতাঁর প্রতিযোগীতা, হাঁসধরা প্রতিযোগীতা ও পুরস্কার বিতরণ করা হয়। এছাড়া বিকালে সাতক্ষীরা স্টেডিয়ামে ভলিবল প্রতিযোগিতা ও কাবাডি প্রতিযোগিতা, সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে মহিলাদের আলোচনা সভা ও ক্রীড়া অনুষ্ঠান, সৌখিন ফুটবল প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয় এবং সন্ধ্যায় কেন্দ্রীয় শহিদ মিনার চত্বরে পুরস্কার বিতরণী, আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।