নলতা হাইস্কুলের শতবর্ষ পূর্তি উপলক্ষে সভা অনুষ্ঠিত


প্রকাশিত : মার্চ ৩১, ২০১৭ ||

নিজস্ব প্রতিনিধি: ঐতিহ্যবাহী নলতা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শতবর্ষ পূর্তি অনুষ্ঠান আগামী ৬ ও ৭ এপ্রিল অনুষ্ঠিত হবে। উক্ত অনুষ্ঠানকে সফল ও সার্থক করার জন্য বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৮ টায় নলতা কেন্দ্রীয় আহছানিয়া মিশন অফিসের ২য় তলায় এক প্রস্তুতিমূলক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। দীর্ঘক্ষণ ব্যাপী অনুষ্ঠিত উক্ত সভায় সভাপতিত্ব করেন নলতা হাইস্কুল শতবর্ষ উদ্যাপন কমিটির আহবায়ক ও পাক রওজা শরীফের শ্রদ্ধেয় খাদেম আলহাজ্জ মৌলভী আনছার উদ্দীন আহমদ। শতবর্ষ উদ্যাপন কমিটির সদস্য সচিব ও নলতা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুল মোনায়েম এর সঞ্চালনায় সভায় বিভিন্ন সাব কমিটির কর্মকর্তাগণ উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন। কর্মকর্তাদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন নলতা কেন্দ্রীয় আহছানিয়া মিশনের সাধারণ সম্পাদক মো. আব্দুল মজিদ, জেলা পূজা উদ্যাপন কমিটির সভাপতি বাবু মনোরঞ্জন মুখার্জী, সাইদুর রহমান শিক্ষক, ডা. আকছেদুর রহমান, আলহাজ্জ ইউনুচ, অধ্যাপক গাজী আজিজুর রহমান, মালেকুজ্জামান, আনিছুজ্জামান (খোকন), মুক্তিযোদ্ধা আবু দাউদ, মুক্তিযোদ্ধা শহিদুল ইসলাম, মুক্তিযোদ্ধা আবুল হোসেন, ডা. নজরুল ইসলাম, রফিকুল ইসলাম খোকন, ডা. আবুল কাশেম, এনামুল হক খোকন, আবুল ফজল, প্রাক্তন ইউপি চেয়ারম্যান আনছার আলী, মুক্তিযোদ্ধা শহীদুল ইসলাম, আবুল হোসেন, একরামুল রেজা, খায়রুল হাসান, আনোয়ারুল হক, ইকবাল মাসুদ, সহযোগী অধ্যাপক আফছার আলী বাবলু, আশরাফুল ইসলাম, সহকারী অধ্যাপক আব্দুল হামিদ, সহকারী অধ্যাপক ও সংবাদকর্মী মনিরুজ্জামান মহসিন, সংবাদকর্মী আহাদুজ্জামান আহাদ, মীর জাহাঙ্গীর হোসেন, হাবিবুল্লাহ শিক্ষক, আহছান কবীর টুটুল, এবাদুল হক, রমজান আলী, বদরুল আহছান বাবু, সোহরাব হোসেন সবুজ, আক্তার হোসেন, আসলাম হোসেন, রফিকুল ইসলাম প্রমূখ। সভায় অনুষ্ঠানকে সফল করার জন্য আগামী কয়েক দিন সকাল সাড়ে ৮ টায় ও সন্ধ্যার পরে অনুষ্ঠানের আহবায়ক ও পাক রওজা শরীফের শ্রদ্ধেয় খাদেম সাহেবের সাথে প্রতিদিন দুইটি করে সাব কমিটির মিটিং সম্পন্ন করা সহ নানা সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। ২দিন ব্যাপী সংক্ষিপ্ত অনুষ্ঠান সূচী হল- ৬ এপ্রিল বৃহস্পতিবার বিকাল ৩টায় রেজিস্ট্রেশন গিফ্ট বিতরণ, সন্ধ্যা ৭ থেকে সাড়ে ৮টা পাক মাজার শরীফে মিলাদ ও দোয়া অনুষ্ঠান, রাত ৯টার পরে স্থানীয় ও জেলার শিল্পীদের নিয়ে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। ৭ এপ্রিল শুক্রবার সকাল ৮টায় সকলের উপস্থিতিতে বেলুন উড়িয়ে অনুষ্ঠানের উদ্ধোধন, ৮.১০ মিনিটে র‌্যালী, ৯.৪৫ মিনিটে অতিথিদের আসন গ্রহণ, স্বাগত ভাষণ, শোক প্রস্তাব, বর্তমান শিক্ষার্থীদের থেকে বক্তব্য, প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের থেকে শুভেচ্ছা বক্তব্য, সংশ্লিষ্ট মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা, বিশেষ অতিথির বক্তব্য, প্রধান অতিথির বক্তব্য ও স্মরণিকার মোড়ক উন্মোচন, সভাপতির ভাষণ। দুপুর ১২টায় বৃক্ষরোপন কর্মসূচী, সাড়ে ১২টা থেকে সাড়ে ৩টা পর্যন্ত নামাজ ও দুপুরের খাওয়ার বিরতী। বিকাল ৪টায় খেলাধুলা অনুষ্ঠান ও র‌্যাফেল ড্র, ৬.৩০ মিনিটে পাক রওজা শরীফ জিয়ারত ও দোয়া অনুষ্ঠান, ৭ টায় ভিডিও প্রদর্শনী, ৭.১৫ মিনিটে সম্মাননা পুরস্কার বিরতণ ও শুভেচ্ছা, ৭.৩০ মিনিটে আলোক উৎসব, ৮ টায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান এবং রাত ১০টায় ধন্যবাদ জ্ঞাপন ও সমাপ্তি।