গভীর রাতে সরকারি গাছ কাটার অভিযোগ


প্রকাশিত : আগস্ট ১৩, ২০১৭ ||

নিজস্ব প্রতিনিধি: একটি সংঘবদ্ধ চক্র সাতক্ষীরা-চুকনগর সড়কের পাটকেলঘাটা ৩০ মাইল এলাকার রাস্তার দুধারে লাগানো সরকারি গাছ কেটে আত্মসাৎ করে চলেছে। গত বৃহষ্পতিবার মাঝরাতে ওই চক্রটি একটি খইগাছ ও একটি আকাশমনি গাছ কেটে নেয়। ওই গাছ নিয়ে যাওয়ার আগে স্থানীয় জনগণ জানতে পারায় শুক্রবার দুপুরে বন বিভাগে হস্তান্তর করা হয়। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বিনেরপোতা এলাকার কয়েকজন জানান, বৃহষ্পতিবার গভির রাতে এলাকার বিভিন্ন অপকর্মের হোতা নগরঘাটা ইউপি চেয়ারম্যানের ছত্রছায়ায় সাইফুল ইসলাম, মেস্তাক, আলমগীর, হুমায়ুন কবির (কাঠের ব্যাপারী) এর নেতৃত্বে কয়েকজন কুড়াল ও করাত দিয়ে সাতক্ষীরা-চুকনগর সড়কের ৩০ মাইল নামক স্থানের রাস্তার পাশের একটি খইগাছ কেটে ফেলে। গাছ কাটার শব্দের স্থানীয়রা জানতে পারলে সাইফুল ও মোস্তাক পালিয়ে যায়। এদিকে এলাকাবাসি জানান, সাইফুল ত্রিশ মাইল থেকে শুরু করে পাটকেলঘাটা পর্যন্ত রাস্তার দু’পাশের ১০ লক্ষাধিক টাকার গাছ কেটে বিক্রয় করে আত্মসাৎ করেছেন এবং এদের অত্যাচারে এলাকাবাসি অতিষ্ঠ। তারা সরকারি গাছ কাটা, জমি দখল, চাঁদাবাজি, ডাকাতি সহ বিভিন্ন অপকর্ম করে থাকে এবং এসব অপকর্ম ইউপি চেয়ারম্যানের সহযোগিতায়। এলাকাবাসি জানান, তারা বিএনপি থাকাকালিন বিএনপির নেতা ছিল এবং এখন তারা নব্য আওয়ামী লীগের হাইব্রিড নেতা হয়ে দাপিয়ে বেড়াচ্ছে। তাদের বিরূদ্ধে শত অভিযোগ থাকার পরও সংশ্লিষ্ঠ কর্তৃপক্ষ নিশ্চুপ থাকার বিষয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন এলাকাবাসি এবং গাছ কাটার শব্দ শুনতে পেয়ে এলাকার জনগণ তাদের ধাওয়া করে এবং সেই সময় তারা গাছ রেখে পালিয়ে যায়। পালিয়ে যাওয়ার সময় এলাকাবাসি তাদের চিনতে পারে। এব্যাপারে বন বিভগের কর্মকর্তা মারুফ বিল্লাহ কে অবহিত করা হলে তিনি চোরাই কাঠগুলো উদ্ধার করেন এবং মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে তিনি জানান।