পাইকগাছায় ১০০ ফুট সড়কের জন্য যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন: দ্রুত সংস্কারের দাবি


প্রকাশিত : আগস্ট ১৮, ২০১৭ ||

 

পাইকগাছা (খুলনা) প্রতিনিধি: পাইকগাছা উপজেলার সীমান্তবর্তী দারুণমল্লিক-খুলনা সড়কের রায়পুর নামক স্থানে ১শ ফুট এলাকা জুড়ে রাস্তা ডেবে যাওয়ায় বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে যোগাযোগ ব্যবস্থা। জেলা শহরে যাতায়াতের অন্যতম মাধ্যম ক্ষতিগ্রস্থ সড়কটি জরুরী ভিত্তিতে সংস্কার সহ কালভার্ট নির্মাণের দাবী জানিয়েছেন এলাকাবাসী।

উল্লেখ্য, জেলার কয়রা ও পাইকগাছা উপজেলা সহ দাকোপ ও বটিয়াঘাটার হাজার হাজার মানুষের যাতায়াতের একমাত্র মাধ্যম হচ্ছে দারুণমল্লিক-খুলনা সড়ক। স্থানীয় সরকার বিভাগের আওতায় সড়কটির বটিয়াঘাটার সুরখালী ইউনিয়ানের রায়পুরস্থ নামক স্থানে মরাভদ্রা নদীর উপর পানি সরবরাহের জন্য একটি পাইপ রয়েছে। পুরাতন পাইপটি ভেঙ্গে যাওয়ায় সড়কের ১শ ফুট এলাকা জুড়ে ডেবে গেছে। যার ফলে গত তিন দিন যাবৎ সম্পূর্ণ যোগাযোগ ব্যবস্থা বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। এতে জেলা শহরে যাতায়াতের জন্য চরম ভোগান্তিতে রয়েছে অত্র এলাকার হাজার হাজার মানুষ। মটরসাইকেল চালক সুকৃতি বিশ্বাস জানান, এটি অত্র এলাকার জন্য অত্যান্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি সড়ক। সড়কে মটরসাইকেল চালিয়ে কয়েক’শ পরিবার জীবিকা নির্বহ করে থাকে। ইজিবাইক চালক সুশান্ত রায় জানান, সড়কটি ক্ষতিগ্রস্থ হওয়ায় গত ৩ দিন যাবৎ কোন যানবাহন চলছে না। এতে সাধারণ মানুষের পাশাপাশি ভোগান্তিতে পড়েছে শত শত যানবাহন চালক। শিক্ষক দীলিপ রায় জানান, অতি সহজে এ সড়ক দিয়ে এলাকার মানুষ জেলা শহরে যাতায়াত করে থাকে। বর্তমানে এলাকাবাসীর যাতায়াত বন্ধ হওয়ার উপক্রম হয়েছে। দেলুটি ইউপি চেয়ারম্যান রিপন কুমার মন্ডল জানান, সড়কের ক্ষতিগ্রস্থ স্থান বটিয়াঘাটা উপজেলার আওতায় পড়েছে। এ জন্য ওই উপজেলার সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে সংস্কারের উদ্যোগ নিতে হবে। সংস্কারের ব্যাপারে দীর্ঘদিন চেষ্টা করা হচ্ছে। কিন্তু সবাই আশ্বাস দিলেও এ পর্যন্ত সংস্কারের কোন উদ্যোগ নেয়নি কেউ। সড়ক দিয়ে এক দিকে যেমন যানবাহন চালিয়ে শতশত পরিবার জীবিকা নির্বাহ করে থাকে তেমনি এলাকার হাজার হাজার মানুষের যাতায়াতের একমাত্র মাধ্যম হচ্ছে এ সড়ক। সড়কের ক্ষতিগ্রস্থ স্থান সংস্কার করা সহ উক্ত স্থানে একটি কালভার্ট নির্মাণ জরুরী হয়ে পড়েছে বলে স্থানীয় এ জনপ্রতিনিধি জানান।