যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের আন্দোলন শুরু


প্রকাশিত : অক্টোবর ১৭, ২০১৭ ||

যশোর প্রতিনিধি: যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (যবিপ্রবি)শিক্ষার্থীরা হলে হামলাকারীদের স্থায়ীভাবে বহিস্কার, লুট করা মালামাল ফেরত এবং হলের দায়িত্বে থাকা প্রক্টরের পদত্যাগসহ চার দফা দাবিতে আন্দোলন শুরু করেছেন। এ দাবিতে তারা সোমবার থেকে পরীক্ষা ও ক্লাস বন্ধ করে ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ ও মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছেন।
কর্মসূচি চলাকালে ৫ অক্টোবর রাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ মশিউর রহমান হলে হামলায় জড়িত ছাত্রলীগ বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সাধারণ সম্পাদক শামীম হাসানকে স্থায়ীভাবে বহিস্কার, হামলায় জড়িতদের গ্রেপ্তার, ওই রাতে লুটপাট করা ল্যাপটপ, মোবাইল ফোনসহ মূল্যবান মালামাল ফেরত এবং হলের দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রক্টরের পদত্যাগ দাবি করা হয়।
কর্মসূচি চলাকালে শিক্ষার্থীরা জানান, দাবি না মানা পর্যন্ত তারা পরীক্ষা-ক্লাস বর্জন করে আন্দোলন চালিয়ে যাবেন। মানববন্ধন চলাকালে বক্তব্য রাখেন আতিকুর রহমান অয়ন, কামরুজ্জামান বাপ্পি, আব্দুল আলিম, রুপা আক্তার, জিনিয়া আক্তার, মল্লিকা বিশ্বাস প্রমুখ।
প্রসঙ্গত, গত ৫ অক্টোবর রাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ মসিয়ূর রহমান হলে হামলার ঘটনা ঘটে। ছাত্রলীগের আভ্যন্তরীণ কোন্দলের জের ধরে সেদিন সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদকের অনুসারীরা মারপিট, লুটপাট, ভাংচুর ছাড়াও বোমাবাজি ও গুলিবর্ষণের ঘটনা ঘটায় বলে অভিযোগ। ওই ঘটনার পর ছাত্রলীগ সেক্রেটারিকে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ বহিস্কার করে।
তবে সাধারণ সম্পাদকের দাবি, সভাপতি গ্রুপের দ্বারা বিতাড়িতদের তিনি ক্যাম্পাসে নিয়ে গিয়েছিলেন বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ও পুলিশের সহায়তায়। সেখানে তারা কোনো অপকর্ম করেন নি।