ডুমুরিয়ায় ভদ্রা নদী খননে ভূমিহীনদের ক্ষতিপুরণ ও পুনর্বাসনের দাবি


প্রকাশিত : নভেম্বর ১৩, ২০১৭ ||

 

ডুমুরিয়া (খুলনা) প্রতিনিধি: ভদ্রা নদী খননে ভূমিহীনদের ক্ষতিপুরণ ও পুনর্বাসনের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলার শোভনা-ভদ্রদিয়া সীমান্তবর্তী চরভরাটি নদীর উপর গত শনিবার ভূমিহীনদের ব্যানারে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। তবে, আগামী ২২নভেম্বর উদ্বোধন হতে যাওয়া নদী খনন কাজ বাঁধাগ্রস্ত করতে প্রভাবশালী অবৈধ দখলদাররা নেপথ্যে থেকে ভূমিহীনদের সামনে দিয়ে অপতৎপরতা শুরু করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন উপজেলার পাচপোতা গ্রামের ভুমিহীন নজরুল ইসলাম ফকির। তিনি বলেন, এক সময়ের খর¯্রােতা ভদ্রা নদী প্রাকৃতিকভাবে পলিভরাট হয়ে সমতল ভুমিতে পরিণত হয়। এরপর আমরা নিয়মতান্ত্রিকভাবে বন্দোবস্ত নিয়ে ৩০/৩২ বছর ধরে উক্ত জমিতে বসতবাড়ি স্থাপন, কৃষি ফসল উৎপাদন ও মৎস্য চাষ করে জীবিকা নির্বাহ করছি। সম্প্রতি সরকার নদীটি খননের প্রক্রিয়া শুরু করেছে। ইতোমধ্যে পানি উন্নয়ন বোর্ড স্থাপনা সরিয়ে নিতে বলেছে। এ নদী খনন করলে আমরা অপূরণীয় ক্ষতির সম্মুখিন হবো। পরিবার পরিজন নিয়ে রাস্তায় ওঠা ছাড়া আর কোন উপায় থাকবেনা। এঅবস্থায় ভুমিহীনদের পুনর্বাসন ও ক্ষতিপূরণের দাবী জানান তারা। ভুমিহীনদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন শোভনা গ্রামের ফজলুর রহমান খান, ছাত্তার সরদার, জলিল খান, হামিদ বিশ্বাস, খাদিজা বেগম, ভদ্রদিয়া গ্রামের কামরুল মোড়ল, পলাশ দাস, পাচপোতা গ্রামের ছাত্তার শেখ প্রমুখ।