কেআর ডলফিনের ইজিবাইক শোরুম উদ্বোধন ও সাংষ্কৃতিক সন্ধ্যা

 

শুক্রবার সাতক্ষীরা যশোর রোড সংলগ্ন সিটি কলেজ মোড়ে কে আর ডলফিনের ইজিবাইকের নতুন শোরুম উদ্বোধন করেন চয়না কোম্পানীর এমডি লিসেন (চায়না) ও কেআর ডলফিনের এমডি কাজী আজিজুর রহমান (রনি)। এসময় উপস্থিত ছিলেন যশোর শাখার ম্যানেজার নজরুল ইসলাম, প্রভাষক কবির হোসেন টিটু, সহকারী মাসুদ রানা লিটন এ ছাড়া উপস্থিত ছিলেন সাতক্ষীরা ইজিবাইক মালিক সমিতির সভাপতি আবুল কাশেম, সাধারণ সম্পাদক জাহিদ হোসেন প্রমুখ।

ব্রহ্মরাজপুর ২নং ওয়ার্ড স্বেচ্ছাসেবক লীগের সম্মেলন

 

সদর উপজেলার ব্রহ্মরাজপুর ইউনিয়ন ২নং ওয়ার্ড স্বেচ্ছাসেবক লীগের দ্বি-বার্ষিক সম্মেলন বৃহস্পতিবার রাতে মাছখোলা শিবতলা মোড়ে অনুষ্ঠিত হয়েছে। ব্রহ্মরাজপুর ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহবায়ক রাশেদুজ্জামান রাশেদের সভাপতিত্বে সম্মেলনে প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা আ’লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান বাবু। প্রধান বক্তা ছিলেন সদর থানা স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহবায়ক এড. ফারুক হোসেন। বিশেষ অতিথি ছিলেন ৯নং ব্রহ্মরাজপুর ইউনিয়ন আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক নুর ইসলাম মাগরেব। অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পিপি এড. সৈয়দ জিয়াউর রহমান বাচ্চু, ইউপি মেম্বার ও সাংবাদিক রেজাউল করিম মিঠু, ৬নং ওয়ার্ড আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কুদ্দুস, ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ম আহবায়ক শাহাদাৎ হোসেন রাজ, ইউনিয়ন আ’লীগের শাহাদাৎ হোসেন, পলাশ কুমার সানা, আলাউদ্দীন, মাছুম বিল্লাহ, আকরাম হোসেন বাপ্পী, আব্দুল হামিদ ভূট্ট, শেখ জহিরুল ইসলাম, এমএম রমান স্বপন, এড. আমিনুর, সিরাজুল ইসলাম, হাফেজ জাকির হোসেন প্রমূখ। সমগ্র অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন জেলা বঙ্গবন্ধু সৈনিক লীগের সহ-সভাপতি রুহুল কুদ্দুস। ২নং ওয়ার্ড স্বেচ্ছাসেবক লীগের দ্বি-বার্ষিক সম্মেলনে ২১সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন হয়। কমিটিতে নির্বাচিত সদস্যরা হলেন সভাপতি বিল্লাল হোসেন, সহ-সভাপতি আজগর আলী, সুনীল কুমার সানা, সাধারণ সম্পাদক ইদ্রীস আলি, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আরিফ মুস্তফা, রাজু, সাংগঠনিক সম্পাদক ইদ্রিস আলী, জাকির হোসেন, দপ্তর সম্পাদক সোহাগ আহম্মেদ, প্রচার সম্পাদক ইউনুস আলি, সমাজ কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক আবু রায়হান, ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক ওমর ফারুক, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক আল-আমিন, কৃষি বিষয়ক সম্পাদক মিলন হোসেন, কার্যকারী সদস্য যথাক্রমে সাইদ হোসেন, হাবিবুর রহমান, হযরত আলি, শাওন, রেজা, তানভীর ও রিয়াদ।

আহলেহাদীছ আন্দোলনের মাসিক ইজতেমা ও কমিটি গঠন

শুক্রবার বাদ আছর আহলেহাদীছ আন্দোলন সোনাবাড়িয়া এলাকার উদ্যোগে বারিকের মোড় আহলেহাদীছ জামে মসজিদে এলাকা সভাপতি আব্দুল লতিফ সরদারের সভাপতিত্বে মাসিক ইজতেমা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, আলহলেহাদীছ আন্দোলনের কেন্দ্রীয় প্রশিক্ষণ সম্পাদক আলতাফ হোসেন। বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ আহলেহাদীছ যুবসংঘ সাতক্ষীরা সাংগঠনিক জেলার সেক্রেটারী মুজাহিদুর রহমান। এছাড়াও আরো উপস্থিত ছিলেন, আহলেহাদীছ যুবসংঘ কলারোয়া উপজেলার সভাপতি লিয়াকত আলী, সোনাবাড়িয়্ াএলাকার সভাপতি মাও. মাহফুজ আনাম, আমজাদ হোসেন, আব্দুর জব্বার, আব্দুস সবুর, মাস্টার অজিহার রহমান প্রমুখ। মাসিক এজতেমায় আনারুল ইসলামকে সভাপতি করে ১১ সদস্যের বারিকের মোড় শাখা কমিটি ঘোষণা করা হয়। প্রধান অতিথি আগামী ১ ও ২ মার্চ আহলেহাদীছ আন্দোলন বাংলাদেশের উদ্যোগে রাজশাহীতে অনুষ্ঠিতব্য জাতীয় তাবলীগী এজতেমায় সকল শাখা ও গ্রাম থেকে বাস নিয়ে যোগদান করার আহ্বান জানান। প্রেস বিজ্ঞপ্তি

আশাশুনি রিপোর্টার্স ক্লাবের নব নির্বাচিত নেতৃবৃন্দকে বিভিন্ন মহলের অভিনন্দন

 

শেখ হেদায়েতুল ইসলাম: আশাশুনি রিপোর্টার্স ক্লাবের নব নির্বাচিত সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান, সেক্রেটারি আকাশ হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক এমএম নুর আলম ও অর্থ সম্পাদক মো. মইনুল ইসলামসহ নেতৃবৃন্দকে আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন আশাশুনি উপজেলা প্রশাসন। উপজেলা প্রশাসনের পক্ষে এ শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানান উপজেলা নির্বাহী অফিসার সুষমা সুলতানা। এসময় তিনি নব নির্বাচিত নেতৃবৃন্দকে আশাশুনি উপজেলাবাসীর কল্যানে কাজ করার আহবান জানান।

এদিকে অনুরূপভাবে আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন সাতক্ষীরা ০৩ আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের স্থায়ী কমিটির সভাপতি উপমহাদেশের প্রখ্যত চিকিৎসক ডা. আ ফ ম রুহুল হক। এসময় তিনি নব নির্বাচিত নেতৃবৃন্দকে সততা ও নিষ্ঠার সাথে আশাশুনি রিপোর্টার্স ক্লাবের নেতৃত্ব দেয়ার আহবান জানান।

ভোমরা স্থলবন্দর মটর সাইকেল এসোসিয়েশনের নির্বাচন সম্পন্ন

 

সীমান্ত প্রতিনিধি: ২৬ জানুয়ারী সকাল ১০টা হতে বিকাল ৪টা পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে আনন্দমুখর পরিবেশে ভোমরা নব উদয়ন সংঘ ক্লাবের ২য় তলায়, ভোমরা মটরসাইকেল চালক এসোসিয়েশনের  আগামি ৩ বছর মেয়াদি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচন কমিশনার সহিলউদ্দিন জানান, মোট ভোটার সংখ্যা ৮১ জন। ভোট প্রদান করেন ৭৭ জন। সভাপতি হিসেবে  মো. দাউদ আলী ৪৫ ভোট পেয়ে জয়ী হয়। তার প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী পায় ৩২ ভোট। সাধারণ সম্পাদক পদে আব্দুস সবুর ৪৫ ভোট পেয়ে নিবাচিত হয় তার প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী জাকির হোসেন পায় ২২ ভোট। অপর প্রার্থী সোহরাব হোসেন পায় ৮ ভোট। এছাড়া সাংগঠনিক সম্পাদক পদে মো. আইয়ুব হোসেন ৪৫ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়। অর্থ সম্পাদক ইইছুপ আলী ৩৮ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়। বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় দপ্তর সম্পাদক আবদুর রশিদ, সদস্য আলা উদ্দিন, বাবুর আলী নির্বাচিত হয়। আগামি ৩ বছর এই কমিটি তাদের কার্যক্রম পরিচালনা করবেন।

কলারোয়ায় মসজিদে মসজিদে সাংসদ পুত্র অনিক আজিজের দোয়া অনুষ্ঠান

 

কলারোয়া প্রতিনিধি: কলারোয়া উপজেলার ১২ টি ইউনিয়ন ও পৌরসভার সকল জামে মসজিদে শুক্রবার জুম্মা নামাজ শেষে সাংসদ পুত্র প্রয়াত অনিক আজিজের দোয়া অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। কলারোয়া কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে অনুষ্ঠিত দোয়ানুষ্ঠানে উপস্থিত থেকে মুসল্লিদের উদ্দেশ্যে কথা বলেন সংসদ সদস্য এড. মুস্তফা লুৎফুল্লাহ। তিনি সকলের কুশল বিনিময় করে একমাত্র ছেলে সদ্য প্রয়াত অনিক আজিজের জন্য দোয়া কামনা করেন। কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের এই দোয়া অনুষ্ঠানে শরিক হন উপজেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম লাল্টু, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আরাফাত হোসেন, কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের সভাপতি শেখ তোজাম্মেল হোসেন মানিক, উপজেলা ওয়ার্কার্স পার্টির সম্পাদক মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রঊফ, ওয়ার্কার্স পার্টির নেতা অধ্যাপক আবুল খায়ের, উপজেলা আ’লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সম মোরশেদ আলি ও রবিউল আলম মল্লিক, আ’লীগ নেতা সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান অধ্যাপক এমএ কালাম, পৌর আ’লীগের সভাপতি আজিজুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম, অধ্যাপক আব্দুর রহিম, কলারোয়া বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা ফারুকুজ্জামান, কলারোয়া রিপোর্টার্স ক্লাবের সভাপতি আজাদুর রহমান খান চৌধুরী, কলারোয়া সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহিম, কলারোয়া প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক শেখ জুলফিকারুজ্জামান জিল্লুসহ বিপুল সংখ্যক মুসল্লিগণ। অপরদিকে কলারোয়া উপজেলা পরিষদ জামে মসজিদের দোয়া অনুষ্ঠানে শরিক হন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা আ’লীগের সভাপতি ফিরোজ আহম্মেদ স্বপন। এছাড়া কলারোয়া থানা জামে মসজিদের দোয়া অনুষ্ঠানে শরিক হন উপজেলা আ’লীগের সাবেক আহবায়ক সাজেদুর রহমান খান চৌধুরী। সাংসদ পুত্র প্রয়াত অনিক আজিজের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনায় উপজেলার সকল জামে মসজিদে অনুরূপ দোয়া অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

প্রয়াত হাফিজুর রহমান ভ্ইূয়ার মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে ওয়ার্কার্স পার্টি খুলনা জেলা কমিটির সভা

 

পত্রদূত ডেস্ক: বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি খুলনা জেলা কমিটির এক সভা শুক্রবার সকাল ১০টায় খালিশপুর জুট ওয়ার্কার্স ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে সাধারণ সম্পাদক এড. মিনা মিজানুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়।  সভায় পার্টির প্রাক্তন পলিট ব্যুরোর সদস্য ও জেলা সভাপতি প্রয়াত হাফিজুর রহমান ভূইয়ার ১ম মৃত্যুবার্ষিকী যথাযথ মর্যাদায় পালন ও ৩ মার্চ পার্টির ২১ দফার ভিত্তিতে ঢাকায় মহাসমাবেশ সফল করতে সাংগঠনিক বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়। হাফিজুর রহমান ভূইয়ার মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষে ১৩ ফেব্রুয়ারি ফুলতলায় জেলা পার্টির উদ্যোগে এক জনসভা অনুষ্ঠিত হবে। এ জনসভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন পার্টির সভাপতি ও সমাজকল্যাণ মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন, এমপি। এছাড়া সভায় পার্টির মহাসমাবেশ সফল করতে খুলনা অঞ্চলের সকল থানা-উপজেলায় গণসংযোগ, প্রচার মিছিল, পদযাত্রা, হাটসভা, গ্রাম বৈঠক, উঠান বৈঠক, কর্মীসভাসহ বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়। সভায় বক্তব্য রাখেন, জেলা সম্পাদকম-লীর সদস্য আনসার আলী মোল্লা, মোজাম্মেল হক, দেলোয়ার উদ্দিন দিলু, শেখ মফিদুল ইসলাম, এসএম ফারুখ-উল-ইসলাম, জেলা সদস্য মনিরুজ্জামান, শেখ মিজানুর রহমান, মনির আহমেদ, শেখ সেলিম আখতার স্বপন, খলিলুর রহমান প্রমুখ।

শ্যামনগরে জাতীয় হিন্দু যুব মহাজোট ও ছাত্র মহাজোটের মানববন্ধন

 

সুন্দরবনাঞ্চল (শ্যামনগর) প্রতিনিধি: শুক্রবার বিকালে শ্যামনগর উপজেলা প্রেসক্লাবের সামনে জাতীয় হিন্দু যুব মহাজোট ও ছাত্র মহাজোট শ্যামনগর উপজেলা শাখার আয়োজনে ঢাকা বিশ^বিদ্যালয়ের শিক্ষক আনিচ আলমগীর কর্তৃক হিন্দু ধর্মালম্বীদের দেবী সরস্বতি সম্পর্কে কটুক্তি করা ও গোপালগঞ্জ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ^বিদ্যালয়ের ভিসি কর্তৃক সরস্বতি পূজা করতে না দেওয়ার প্রতিবাদে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

জাতীয় হিন্দু যুব মহাজোট শ্যামনগর উপজেলা শাখার সভাপতি সিদ্ধার্থ কুমার মন্ডলের সভাপতিত্বে মানববন্ধন চলাকালীন বক্তব্য রাখেন জাতীয় হিন্দু মহাজোট সাতক্ষীরা জেলা শাখার সদস্য প্রধান শিক্ষক জয়দেব বিশ^াস। বক্তব্য রাখেন ছাত্র মহাজোট শ্যামনগর উপজেলার সদস্য মনোদ্বীপ মন্ডল,ভবসিন্ধু মন্ডল। অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন রনজিত দেবনাথ,দেবাশিষ মালো, অশোক মিস্ত্রী, সুকুমার বিশ^াস, দীনবন্ধু মন্ডল প্রমুখ।

 

দৈনিক সাতনদী পত্রিকার নির্বাহী সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম কবিরের মাতা রহিমা খাতুনের ইন্তেকাল

 

নিজস্ব প্রতিনিধি: দৈনিক সাতনদী পত্রিকার নির্বাহী সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম কবিরের মাতা রহিমা খাতুন ইন্তেকাল করেছেন (ইন্না…রাজেউন)। মৃত্যুকালে মরহুমার বয়স হয়েছিল (৯২)। বিকাল ৪টার দিকে সদর উপজেলার মাধপকাঠি গ্রামে তার নিজ বাড়িতে ইন্তেকাল করেন। মরহুমার বাদ মাগরিব মাধপকাঠি প্রথম দফা জানাযা শেষে ২য় দফা তুজলপুর গ্রামে জানাযা নামাজ অনুষ্ঠিত হবে। পরে তুজলপুর পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়। মৃত্যুকালে ৩ ছেলে ও ৩ মেয়েসহ অসংখ্য আত্মীয় স্বজর রেখে গেছেন।

দৈনিক সাতনদী পত্রিকার নির্বাহী সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম কবীরের মায়ের মৃততে গভীর শোক প্রকাশ করে বিবৃতি প্রদান করেছেন সাতক্ষীরা ২ আসনের এমপি মুক্তিযোদ্ধা মীর মোস্তাক আহমেদ রবি, প্রথম আলোর নিজস্ব প্রতিবেদক কল্যাণ ব্যানার্জী, দৈনিক সাতদনী পত্রিকার সম্পাদকও প্রকাশক হাবিবুর রহমান,জেলা জাতীয় পার্টির সহ-সভাপতি সরদার আব্দুল মুজিদ, বিটিভির সাতক্ষীরা প্রতিনিধি ও ইউপি চেয়ারম্যান মোজাফ্ফর রহমান, আমাদের সময় ও মাছরাঙ্গা টিভি সাতক্ষীরা প্রতিনিধি ও দৈনিক সাতনদী পত্রিকার ব্যবস্থাপনা সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান উজ্জল, সাতনদী পত্রিকার সিনিয়র প্রতিনিধি আব্দুল মান্নান সবুজ, ঝাউডাঙ্গা আঞ্চলিক প্রেসক্লাবের সভাপতি ও দৈনিক পত্রদূতের নিজস্ব প্রতিনিধি মনিরুল ইসলাম মনি, যুবলীগ নেতা জাহিদ হোসেন, আব্দুল খালেক, কৃষক ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক গোলাম রহমান মানবজমিন পত্রিকার জেলা প্রতিনিধি ও সাতনদীর বিশেষ প্রতিনিধি ইয়ারব হোসেন দক্ষিণের মশালের ঝাউডাঙ্গা প্রতিনিধি আমজাদ হোসেন ও সাংবাদিক আব্দুল আজিজ প্রমুখ।

 

ডুমুরিয়ায় সরকারের উন্নয়ন প্রচারে গণসংযোগ

 

ডুমুরিয়া (খুলনা) প্রতিনিধি: আওয়ামী লীগ নেতা প্রফেসর ড. মাহাবুব-উল ইসলাম বৃহস্পতিবার দলীয় নেতাকর্মীদের সাথে নিয়ে খর্ণিয়া ইউনিয়নের খর্ণিয়া বাজার, ভদ্রদিয়া, বামুন্দিয়া, গোনালী, বাহাদুরপুর, উকড়া, বালিয়াখালী ও নতুন রাস্তা এলাকায় গণসংযোগ, উঠান বৈঠক ও পথসভায় বক্তব্য রাখেন। এ সময় তিনি শেখ হাসিনা সরকারের বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মকান্ড তুলে ধরে পুনরায় সকলকে নৌকা প্রতিকে ভোট দিয়ে শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করার আহবান জানান। উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগ নেতা-শেখ জাহাবুর রহমান, বাসুদেব কুন্ডু, আকরাম সরদার, আমির সরদার, শেখ মুজিবুর রহমান, সম সিদ্দিকুর রহমান, শেখ কামরুল ইসলাম, কাজী জসীমউদ্দীন মুক্ত, শেখ আ. জব্বার, আসাদ মোড়ল, জিয়া বিশ্বাস, সাগর খলিফা, তুহীন শেখ, আ. সবুর মোল্যা, ইয়াছিন শেখ প্রমূখ।

চিংড়ি চাষ নিয়ে চাম্পাফুলে আন্তর্জাতিক কর্মশালা

 

চাম্পাফুল (কালিগঞ্জ) প্রতিনিধি: চিংড়ি চাষ নিয়ে শিশু ও শিল্পীদের সাথে অন্তর্জাতিক কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার সকাল ১০টায় উপজেলার গোদাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে চেয়ারম্যান প্রভাষক মোনায়েম হোসেনের সভাপতিত্বে কর্মশালায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সংস্থার সহকারি প্রফেসর ড. সেরগই। প্রধান অতিথি বলেন, দক্ষিণ অঞ্চলের জনগোষ্ঠীর একটা বিরাট অংশ চিংড়ি চাষের উপর নির্ভরশীল। চিংড়ি চাষ অর্থনীতিতে যেমন ভূমিকা রেখেছে তেমনি প্রভাবিত করেছে এলাকার মানুষের জীবন। দরিদ্রতার কারণে আর প্রশিক্ষণের অভাবে চাষীদের নির্ভর করতে হয় ভাগ্যের উপর। তিনি মনে করেন আজকের এই আয়োজন বা কর্মশালা কিছুটা হলেও চিংড়ি চাষের প্রসারে ভূমিকা রাখবে। এতে করে একদিকে যেমন বিদেশের মানুষ বাংলাদেশের মৎস চাষীদের জীবন-জীবিকা সম্পর্কে জানবে অন্য দিকে দেশে ও বিদেশে এসব অবহেলিত জনগোষ্ঠীকে সাহায্যের জন্য দাতারা নতুন করে উৎসাহিত হবেন। অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সনামধন্য শিল্পী শহীদ কবির, শামিম কবির, মাহমুদ নয়ন ,মুন নবীন শিল্পী ববিতা আক্তার, অলিকুমার রপ্তান, আইসিডিডিআরবি এর গভেষক নৃবিজ্ঞানী ম. আহসান রাজীব, পরিকল্পনাবীদ ইরফান শাকিল, ৮নং ইউপি সদস্য আব্দুল হান্নান পাড়, চাম্পাফুল আপ্রচ মাধ্যমিক বিদ্যাপীঠের সহকারী প্রধান শিক্ষক স.ম আবুল খায়ের, চাম্পাফুল বাজার কমিটির সেক্রেটারী আক্তারুজ্জামান শাহীন, চাম্পাফুল আঞ্চলিক প্রেসক্লাবের সভাপতি মনিরুজ্জামান মনি সহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তি উপস্থিত ছিলেন। নিয়াজ মোরশেদ ও সৌরভ দেবনাথের পরিচালনায় প্রতিভাবান শিশুদের জন্য টেলিস্কোপের মাধ্যমে মহাকাশ পর্যবেক্ষণ, ঘুড়ি উড়ানো, এলাকার চিংড়ি চাষীর সুখ দু:খের চিত্র প্রদর্শনির প্রশিক্ষণের মাধ্যমে প্রতিযোগীতা করেন। অনুষ্ঠান শেষে শিক্ষার্থীদের মধ্যে শিক্ষা উপকরণ তুলে দেন অতিথিবৃন্দ।

 

 

কলারোয়া জাসদের সম্মেলন প্রস্ততি সভা

 

 

 

 

২৬ জানুয়ারি (শুক্রবার) জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জাসদ কলারোয়া উপজেলা শাখার সম্মেলন প্রস্তুতি সভা পাবলিক ইন্সটিটিউটে সকাল সাড়ে ১০টায় উপজেলা জাসদ সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা আনোয়ার হোসেনের সভাপতিত্বে ও উপজেলা জাসদের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক আব্দুর রাজ্জাকের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত হয়। সম্মেলন প্রস্তুতি সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা জাসদের সাংগঠনিক সম্পাদক আশরাফ কামাল। জঙ্গিবাদ-সন্ত্রাসবাদ মোকাবেলা, নির্বাচন বানচালের ষড়যন্ত্র রুখে দাঁড়ানো, দুর্নীতি বৈষম্যের অবসান, সুশাসন ও সমাজতন্ত্রের পথে এগিয়ে আসার আহবান জানিয়ে কলারোয়া জাসদ মধ্য ফেব্রুয়ারীতে সম্মেলনের সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়। প্রস্তুতি সভায় বক্তব্য রাখেন, জালালাবাদ ইউনিয়ন সভাপতি রেজাউল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক আবু সাঈদ, যুগিখালী ইউনিয়ন সভাপতি আবু বক্কর মলি¬ক, সাধারণ সম্পাদক আফসার, হেলাতলা ইউনিয়ন সভাপতি মুনসুর আলী, সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান, কেরালকাতা ইউনিয়ন সভাপতি আব্দুল মজিদ, কয়লা ইউনিয়ন সভাপতি আব্দুল আলিম, হেয়াড় ইউনিয়ন সভাপতি নিজাম উদ্দীন, জয়নগর ইউনিয়ন সভাপতি ইসমাইল হোসেন, সাধারণ সম্পাদক মোরতাজুল হক প্রমুখ। প্রেস বিজ্ঞপ্তি

কলারোয়ায় ‘হাতে খড়ি’র বার্ষিক পুনর্মিলনী ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান

 

কলারোয়া প্রতিনিধি: কলারোয়ায় শিশুদের সুকুমার বৃত্তির চর্চা ও বিকাশ কেন্দ্র রূপে পরিচিতি পাওয়া প্রতিষ্ঠান ‘হাতে খড়ি’র বার্ষিক পুনর্মিলনী ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান শুক্রবার কলারোয়া বঙ্গবন্ধু মহিলা কলেজে অনুষ্ঠিত হয়। দিনব্যাপি এই অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা শ্রেষ্ঠ শিক্ষানুরাগী অধ্যাপক এম ফারুক। ‘হাতে খড়ি’র পরিচালক কাজী শাহিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন কলারোয়া রিপোর্টার্স ক্লাবের সভাপতি আজাদুর রহমান খান চৌধুরী ও কলারোয়া প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক শেখ জুলফিকারুজ্জামান জিল্লু। অনুষ্ঠানে ‘হাতে খড়ি’র শিক্ষার্থী ছাড়াও মার্শাল আর্টস ও শিক্ষার্থীরা অংশগ্রহণ করে। অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন মিসেস নাদিরা আক্তার লিপি, শেখ আলম, আশরাফুজ্জামান বাবু, শিমুল, শেখ আরিফ, রিন্টু, রিপন, তাজিয়া খান চৌধুরী, তিথি, তাসফিক খান চৌধুরী প্রমুখ। পুনর্মিলনীর এই অনুষ্ঠানের অন্যতম আকর্ষণ ছিলো অংশগ্রহণমূলক চড়–ই ভাতি উৎসব।

খান এন্ড খান চৌধুরী ফাউন্ডেশনের পুনর্মিলনী বার্ষিক প্রীতিভোজ ও গুণীজন সম্মাননা

 

 

নিজস্ব প্রতিনিধি: খান এন্ড খান চৌধুরী ফাউন্ডেশন (কেসিএফ) এর পুনর্মিলনী, বার্ষিক প্রীতিভোজ ও গুণীজন সম্মাননা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার দুপুর ২টায় কেসিএফ এর আয়োজনে মোজাফ্ফর গার্ডেন এন্ড রিসোর্ট সেন্টারে অনুষ্ঠিত সভায় সভাপতিত্ব করেন সাতক্ষীরা কেসিএফ’র সভাপতি রেজওয়ান খান মুন্না। অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের জনপ্রশাসন বিভাগের (অব.) চেয়ারম্যান ড. মোহাম্মদ মাহাব্বত খান, জেলা প্রশাসক আবুল কাশেম মো. মহিউদ্দিন, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো. নজরুল ইসলাম, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান বাবু। কেসিএফ’র সহ-সভাপতি ইঞ্জি. সিরাজুল ইসলাম খানের পরিচালনায় উপস্থিত ছিলেন, কেসিএফ’র সাধারণ সম্পাদক আব্দুল আনিস খান চৌধুরী বকুল, যুগ্ম সম্পাদক খলিলুর রহমান খান, সাংগঠনিক সম্পাদক ইকতিয়ার হোসেন খান চৌধুরী, আব্দুল মোনায়েম খান চৌধুরী (রান্টু), আব্দুল মোমেন খান চৌধুরী সান্টু, আব্দুল মোকাদ্দেস খান চৌধুরী মিন্টু, আব্দুল ওয়ারেশ খান চৌধুরী পল্টু, ইকবাল কবির খান বাপ্পি, তৈয়ব হাসান বাবু, তারেকুজ্জামান খান, রাসেল খান চৌধুরী, সুমন খান চৌধুরী, মাহবুব ফারুকী ববি, নান্না চৌধুরী, শিলা, দিপা, মেরী, রিনা, নাছিমা খান চৌধুরীসহ খান ও চৌধুরী পরিবারের সদস্যবৃন্দ।

 

সম্মিলিত সামাজিক আন্দোলনের জেলা সমন্বয় সভা

 

নিজস্ব প্রতিনিধি: নেতৃবৃন্দের উপস্থিতিতে সম্মিলিত সামাজিক আন্দোলন জেলা শাখার সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার বেলা এগারটায় সাতক্ষীরার প্রাণকেন্দ্র মিলনায়তনে সংগঠনের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য শরীফুল্লাহ কায়সার সুমনের সভাপতিত্বে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় বক্তব্য রাখেন মুক্তিযোদ্ধা ইয়াছিন আলী, সুকুমার দাস বাচ্চু, অধ্যাপক আকবর হোসেন, আশরাফুল ইসলাম খোকন, নজরুল ইসলাম, পিযুষ বাউলিয়া পিন্টু, জিয়াউর রহমান, আব্দুস সামাদ বাচ্চু, ডা. আলী হোসেন, আমিনা বিলকিস ময়না, প্রভাষক মাশহাদুর রহমান সোহাগ, কৃষ্ণ ব্যানার্জী, প্রভাষক রাশেদ রেজা তরুণ, শেখ মোদাচ্ছের হোসেন কান্টু, সোহরাব হোসেন সবুজ, দীপক চক্রবর্তী, সাজ্জাদুল হক, পল্লব মজুমদার, মাসুদ রানা, মুস্তাছিন আহমেদ, আসাদুজ্জামান, হাসানুর রহমান, মোহসিনা মুক্তা, নওয়াজ শরীফ রায়হান প্রমুখ। সভার শুরুতে গণ জাগরণ আন্দোলনের সংগঠক প্রয়াত অনীক আজিজের স্মরণে এক মিনিট নিরবতা পালন করা হয়। সভা পরিচালনা করেন রাশেদ হোসেন। সভা থেকে আগামী ২৩ ফেব্রুয়ারি প্রথম জেলা সম্মেলনের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। জেলা সম্মেলনের পূর্বে উপজেলা শাখার সম্মেলন সম্পন্ন করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। এছাড়া জেলা সম্মেলন সফল করতে শরীফুল্লাহ কায়সার সুমনকে আহবায়ক ও প্রভাষক মাশহাদুর রহমান সোহাগকে সদস্য সচিব করে ৩১ সদস্য বিশিষ্ট জেলা সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটি গঠন করা হয়।