মধুসূদন একাডেমী পুরস্কারের জন্য বাংলা একাডেমীর পরিচালক ড. সাইমন জাকারিয়া মনোনীত


প্রকাশিত : ফেব্রুয়ারি ১, ২০১৮ ||

 

কেশবপুর (যশোর) প্রতিনিধি: বাংলা একাডেমীর সহপরিচালক ড. সাইমন জাকারিয়া ‘মধুসূদন একাডেমী পুরস্কার’-২০১৮ এর জন্য মনোনীত হয়েছেন। মধুসূদন একাডেমীর প্রেস বিজ্ঞপ্তি সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

গত শনিবার সন্ধ্যায় সাগরদাঁড়িতে মধুসূদন একাডেমীর ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান ডা. আবুবকর সিদ্দিকের সভাপতিত্বে  নির্বাহী কমিটির এক সভায় মধুসূদন চর্চায় আবদানের জন্য ড. সাইমন জাকারিয়াকে ওই পুরস্কারের জন্য মনোনীত করা হয়। মধুসূদন একাডেমীর পরিচালক গবেষক ও কবি খসরু পারভেজ জানান, বাংলা একাডেমীর সহ-পরিচালক গবেষক ও নাট্যকার ড. সাইমন জাকারিয়া মধুসূদন দত্তের ‘মেঘনাদবধ কাব্য’ অবলম্বনে ‘মেঘনাদবধের পর’ নাটকটি রচনা ও প্রকাশ করেছেন। তাছাড়া  ড. সাইমন জাকারিয়া তাঁর রচিত ‘বিনোদিনী’ নাটকের মাধ্যমে মধুসূদনকে সমকালের প্রেক্ষাপটে নাট্যকর্মী ও সাধারণ মানুষের কাছে পৌঁছিয়ে দেবার প্রয়াস পেয়েছেন। তিনি আরও জানান, ‘মেঘনাদবধের পর’ নাটকটি ঢাকা ও লন্ডনে একাধিকবার মঞ্চায়নের মাধ্যমে তিনি স্বদেশ ও আর্ন্তজাতিক বিশ্বে মধুসূদনকে নতুন ভাবে উপস্থাপন করেছেন। এ সব কর্মকান্ডের মাধ্যমে মধুসূদন চর্চায় আবদানের জন্য ড. সাইমন জাকারিয়াকে ‘মধুসূদন একাডেমী পুরস্কার’-২০১৮ জন্য মনোনীত করা হয়েছে। চলতি বছরের ২৯ জুন মহাকবি মাইকেল মধুসূদন দত্তের মৃত্যুবার্ষিকী অনুষ্ঠানে তাঁকে ক্রেস্ট, সম্মাননাপত্র ও নগদ অর্থ প্রদান করা হবে। ১৯৯২ সালে ড. নীলিমা ইব্রাহীম ও কবি আজিজুল হককে এ পুরস্কার প্রদানের মধ্য দিয়ে ‘মধুসূদন একাডেমী পুরস্কার’ চালু করা হয়।