জেলায় উৎসবমুখর ভাবে পালিত হলো জাতীয় গ্রন্থাগার দিবস


প্রকাশিত : ফেব্রুয়ারি ৫, ২০১৮ ||

আব্দুর রহমান: জেলায় উৎসবমুখর ও জাঁকজমকপূর্ণভাবে পালিত হলো ‘জাতীয় গ্রন্থাগার দিবস-২০১৮। দিবসটি উপলক্ষে সোমবার (৫ফেব্রুয়ারি) সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসন ও জেলা সরকারি গণগ্রন্থগারের যৌথ আয়োজনে জেলা অফিসার্স ক্লাব থেকে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের নিয়ে একটি বর্নাঢ্য র‌্যালি বের হয়। র‌্যালিটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে জেলা সরকারি গণগ্রন্থাগার মিলনায়তনে আলোচনা সভায় মিলিত হয়। আলোচনা সভায় জেলা সরকারি গণগ্রন্থাগার’র লাইব্রেরিয়ান ও জাতীয় গ্রন্থাগার দিবস উদ্যাপন কমিটির সদস্য সচিব মো. আল-মামুন হাওলাদারের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক আবুল কাশেম মো. মহিউদ্দিন। এসময় তিনি বলেন, ‘লেখা পড়ার মাধ্যমেই শিক্ষার্থীদের মেধার বিকাশ ও জ্ঞান অর্জন সম্ভব। গ্রন্থাগার হল জ্ঞানের ভান্ডার। জ্ঞানার্জন, গবেষণা, চেতনা ও মূল্যবোধের বিকাশ, সংস্কৃতি চর্চার মাধ্যমে মানুষকে আলোকিত করে তোলা এবং পাঠাভ্যাস নিশ্চিতকরণে গ্রন্থাগারের ভূমিকা অপরিসীম। বর্তমান সরকার বেসরকারি গ্রন্থাগারে বিনামূল্যে বই সরবরাহ এবং আর্থিক অনুদান দিচ্ছে। আগামী দিনে লাইব্রেরিতে তথ্যপ্রযুক্তিভিত্তিক সেবা তথা অনলাইন লাইব্রেরি ম্যানেজমেন্ট সেবা প্রদান করা হবে। জেলা প্রশাসক শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্য করে বলেন, শুধু মূল পাঠ্যপুস্তক অধ্যায়ন করলে জ্ঞান অর্জন করা সম্ভব নয়! ভালো ক্যারিয়ার গড়তে হলে মূল বইয়ের পাশাপাশি অন্যান্য বইগুলোও পড়তে হবে। গ্রন্থাগারের সুষ্ঠু ব্যবহার করে শিক্ষার্থীদের নিয়মিত গ্রন্থাগারে সময় দেওয়ার আহবান জানান তিনি।’
বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন জেলা শিক্ষা অফিসার এসএম ছায়েদুর রহমান, সাতক্ষীরা কমার্স কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর আব্দুল হামিদ, জেলা নাগরিক কমিটির আহবায়ক অধ্যাপক আনিছুর রহিম, উপ ভাষা গবেষক কাজী মুহম্মদ অলিউল্লাহ, বেসরকারি গণগ্রন্থাগার সমিতি’র জেলা সভাপতি রেবেকা সুলতানা, কবি ও প্রাবন্ধিক কবির রায়হান, বাবর আলী প্রমুখ।