জেলা প্রশাসকের রেকর্ড রুমে দালাল!


প্রকাশিত : ফেব্রুয়ারি ১৯, ২০১৮ ||

নিজস্ব প্রতিনিধি: সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসকের রেকর্ড রুম থেকে জমির খতিয়ান, মোবাইল কোর্টের নকলসহ প্রয়োজনীয় কাগজপত্র তুলতে গেলে দালাল চক্রের খপ্পরে পড়ছে সাধারণ মানুষ। এতে মোটা অংকের অর্থ আত্মসাৎ করছে ওই দালালচক্র। বিশ^স্ত সূত্র জানায়, ডিসি অফিসের রেকর্ড রুমে এসএ, ডিপি/আরএস খতিয়ানের খসড়া তুলতে গেলে মো. রেজাউল ইসলাম রেজা ছাড়া হবেনা বলে জানায় কর্মকর্তারা। রেজার কাছে গেলে ডিপি প্রতি ৩০০-৫০০টাকা নেয়। এছাড়া কোর্টের রেকর্ড রুমের নকলসহ অন্যান্য কেচের নকল তুলতে গেলে রবিউল ইসলাম রবিসহ কয়েকজন উৎকোচ গ্রহণ করে এসব তথ্য দেন। ফলে সাধারণ মানুষ বাধ্য হয়ে এই সব দালালের খপ্পরে পড়ে দিশেহারা হয়ে পড়েছে। ভুক্তভোগিরা এ ব্যাপারে সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক আবুল কাশেম মো. মহিউদ্দিনের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছে।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক ব্যক্তি জানান, রেকর্ড রুমে আসা সাধারণ মানুষের জমির বিভিন্ন খতিয়ান তুলে দেয়ার নামে একটি দালাল চক্র বিপুল অংকের টাকা হাতিয়ে নেয়ার চেষ্টা করে আসছে। দালালদের মাধ্যমে অনিয়ম ও আর্থিক লেনদেন হয়। আইনের তোয়াক্কা না করে আর্থিক ভাবে লাভবান হচ্ছে এ দালাল চক্র। আর দালালের সাথে যোগসাজসে এসব কাজে সহযোগিতা করেন কয়েকজন অসাধু কর্মকর্তাও।
জেলা প্রশাসক আবুল কাশেম মো. মহিউদ্দিন বলেন, ‘রেকর্ড রুমে দালাল চক্রের তৎপরতার ব্যাপারে আমি শুনেছি। কিছু মুহুরী ও দালাল চক্র আর্থিক লেনদেন করে এ ধরনের কাজ করছে। সমস্যাটি দ্রুত সমাধানে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’