আহছানিয়া মিশন ক্যান্সার হাসপাতাল লটারিতে বিজয়ী যারা


প্রকাশিত : মার্চ ১০, ২০১৮ ||

 

আহ্ছানিয়া মিশন ক্যান্সার অ্যান্ড জেনারেল হসপিটালের লটারির ড্র সম্পন্ন হয়েছে। আজ শনিবার ধানমন্ডিস্থ আহ্ছানিয়া মিশনের প্রধান কার্যালয়ে এই ড্র অনুষ্ঠিত হয়। পুরস্কারের জন্য নির্ধারিত মোট ৮ শ্রেণির (১ম হতে ৮ম পর্যন্ত) পুরস্কারের মধ্যে ৪র্থ হতে ৮ম পর্যন্ত পুরস্কার সকল সিরিজের টিকিটের জন্য প্রযোজ্য হবে।

ড্র-তে ৩০ লক্ষ টাকা মূল্যের প্রথম পুরস্কার জয়ীর নম্বর ঞ ০৫০২৮০১। ২য় পুরস্কার ১টি ৫ লক্ষ টাকা জয়ীর নম্বর ঞ ০০৫৭৬৯০। ৩য় পুরস্কার ১টি ১ লক্ষ টাকা জয়ীর লটারি নম্বর ক ০৩০৪৫৩০।

লটারিতে ১০ হাজার টাকা মূল্যের ৪র্থ পুরস্কার ১০টি বিজয়ী নম্বর ০০৯০৫৫৩ (ক থেকে ঞ পর্যন্ত প্রযোজ্য)। ৫ হাজার টাকা মূল্যের ৫ম পুরস্কার ১০টি নম্বরগুলো বিজয়ী নম্বর ০১৬৪২৪৫ (ক থেকে ঞ পর্যন্ত প্রযোজ্য)। ৬ষ্ঠ পুরস্কার ১০টি ৩ হাজার টাকা (প্রতিটি)। ৬ষ্ঠ পুরস্কার বিজয়ী নম্বর ০৪৮২৯৯৭ (ক থেকে ঞ পর্যন্ত প্রযোজ্য)। ৭ম পুরস্কার ১০টি ২ হাজার টাকা (প্রতিটি)। ৭ম পুরস্কার বিজয়ী নম্বর ০১৬৯৯৮১ (ক থেকে ঞ পর্যন্ত প্রযোজ্য)।

৮ম পুরস্কার ২০০টি ১ হাজার টাকা (প্রতিটি)। ক থেকে ঞ পর্যন্ত ১০টি সিরিজই প্রযোজ্য। ৮ম পুরস্কার যথাক্রমে- ০৪৪৬৫৭২, ০৮৩৯৪৪১, ০৮৫২১৫৫, ০০১২০০২, ০২৮৬৭৪১, ০০৯৭০৬১, ০২১৭২৮১, ০২৮৩২৬৯, ০১০০৪৩৫, ০২৭৭৯০৭, ০৬৩১৬৮২, ০৬৫২০৫০, ০৩৩৯৫৯৬, ০৩৮৬৪৪৫, ০৮৪১৩৪৮, ০২৪৭৬৪০, ০৪২৮৬৫১, ০১২১৫১২, ০৩৮৭২৬২ ও ০১৮৮৯০৪ নম্বর।

উল্লেখ্য, গত ৯ এপ্রিল ২০১৪ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আহ্ছানিয়া মিশন ক্যান্সার হাসপাতালের প্রাথমিকভাবে চিকিৎসা কাজের উদ্বোধন করেন। ১৫ তলা বিশিষ্ট এই ক্যান্সার হাসপাতালটি সম্পুর্ণরূপে চালু করার জন্য আরো অর্থের প্রয়োজন। সে লক্ষে আহ্ছানিয়া মিশন ক্যান্সার হাসপাতালের তহবিল গঠনের জন্য ১৪ জানুয়ারি ২০১৮ থেকে চতুর্থবারের মতো সরকার অনুমোদিত আহ্ছানিয়া মিশন ক্যান্সার হাসপাতাল লটারি-২০১৮-এর টিকিট বিক্রির কার্যক্রম শুরু হয়।

আগামী ৩০ দিনের মধ্যে পুরস্কারের জন্য বিজয়ীর নাম, ঠিকানা, সত্যায়িত ছবি ও টিকিটসহ লিখিত দাবি লটারি পরিচালনা কমিটির নিকট দাখিল করতে হবে। ডাকযোগে প্রেরিত টিকিট অপ্রাপ্তির জন্য লটারি পরিচালনা কমিটি দায়ী থাকবে না।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন লটারি পরিচালনা কমিটির আহ্বায়ক ঢাকা বিভাগের অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (সার্বিক) মোহাম্মদ মুনির হোসেন। সদস্য সচিব ছিলেন অর্থ বিভাগের যুগ্ম সচিব (প্রশাসন) মো. নজরুল ইসলাম। আরো উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ব্যাংকের জি এম মো. মাছুম পাটোয়ারী, অভ্যন্তরীণ সম্পদ বিভাগের উপ সচিব (স্ট্যাম্প) ডা. মো. হামিদুল হক, ঢাকা আহছানিয়া মিশনের সাধারণ সম্পাদক ড. এস এম খলিলুর রহমান, উপ পরিচালক (প্রশাসন) আনোয়ার হোসেন চৌধুরীসহ বাংলাদেশ ব্যাংকের একটি দল।