মৌখিক চুক্তিতে সরকারি জমি বিক্রি!


প্রকাশিত : মার্চ ১৫, ২০১৮ ||

নিজস্ব প্রতিনিধি: মৌখিক চুক্তিতে সরকারি জমি বিক্রি ও জবর দখলের অভিযোগ উঠেছে। জানা গেছে, আশাশুনি উপজেলার নওয়াপাড়া গ্রামে বেতনা নদীর চরে এ ঘটনা ঘটেছে। একই গ্রামের মৃত তমেউদ্দীন সরদারের পুত্র মাও. আব্দুল মাজেদ সরদার, আলী হোসেন সরদারসহ স্থানীয় কয়েকজন মিলে প্লট আকারে ওয়াপদা সরকারি জমি মৌখিক চুক্তিতে লক্ষ লক্ষ টাকায় বিক্রি করেছে বলে জানা যায়। বিষয়টি জানা জানি হলে এলাকার জনগণের মধ্যে ক্ষোভ ও হতাশা সৃষ্টি হয়েছে। তাছাড়া ২৫ ফেব্রুয়ারি অনলাইন স্থানীয় ও জাতীয় পত্রিকায় জেলা প্রশাসকের হস্তক্ষেপ কামনা করে সংবাদ প্রকাশ হলে ডিসি অফিস স্মারক নং- ১৫৪ তাং ১৩-২-২০১৮. এসপি স্বারক নং- ১২৭৯. এক্সএন স্মারক নং- ২০২৩ অভিযোগ পত্রটির প্রত্যাহারের বিভিন্ন দপ্তরে দেনদরবার করতে থাকে। কোন উপায়ন্তর না পেয়ে মো. দাউদ হোসেন ও তার পরিবারের সংবাদ সম্মেলন, মিথ্যা মামলা, উচ্ছেদসহ বিভিন্ন প্রকার হুমকি প্রদান করছে। এমনকি মো. দাউদ হোসেনের দুই পুত্র জেলার বাইরে কর্মস্থলে অবস্থান করলেও সংবাদ সম্মেলন, মিথ্যা মামলা দিয়ে তাদের ফাঁসানোর চেষ্টা করছে বলে জানা যায়। এ জমিতে নওয়াপাড়া গ্রামের মৃত ইসমাইল সরদারের পুত্র মো. দাউদ হোসেন, সুলাইমান সরদার, রবিউল ইসলাম, আরশাদুল ইসলাম, জামাত আলী সরদার, সামাদ, গফুর,দীর্ঘ ৪০ বছর অধিকাল যাবত বসত বাড়ি, পাকা টয়লেট, নলকূপ স্থাপন করে শান্তিপূর্ণভাবে ভোগদখল করে আসছে। এ নিয়ে বেউলা ওসমানিয়া দাখিল মাদ্রাসার শিক্ষক মাও. আব্দুল মাজেদ গং অবৈধভাবে বিক্রি ও জবর দখল করার পাইতারা করছে। বিষয়টি তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা গ্রহণের সংশ্লিষ্ট উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন এলাকার সচেতন মহল।