২০ লাখ টাকা ঘুষ দাবির অভিযোগ: ধানদিয়া স্কুলের সভাপতি ও ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে মামলা


প্রকাশিত : মার্চ ২৪, ২০১৮ ||

 

নিজস্ব প্রতিনিধি: ২০লাখ টাকার ঘুষ দাবি করায় কলারোয়ায় এক স্কুলের সভাপতি ও ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা দায়ের হয়েছে। জানা গেছে, কলারোয়ার ধানদিয়া ইউনিয়ন ইন্সটিটিউশন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষকের পদটি শুন্য হওয়ায় গত ৫ নভেম্বর-১৭, তারিখে দৈনিক সমকাল পত্রিকায় উক্ত পদে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশিত হয়। সে অনুযায়ী ১০/১২ জন ব্যক্তি উক্ত পদে চাকরির জন্য দরখাস্ত করেন। পরে ওই স্কুলের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি স্থানীয় জয়নগর ইউপি চেয়ারম্যান সামসুদ্দিন আল মাসুদ বাবু ও ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক শ্রী বিকাশ চন্দ্র বৈদ্য উপজেলার খোর্দ্দ-বাটরা-গ্রামের মৃত খোশাল গাজীর ছেলে হাবিবুর রহমানের কাছে ২০লাখ টাকা ঘুষ দাবি করেন। একইভাবে আবুল কাশেম নামে আরেক আবেদনকারীর নিকটে ৩০ লাখ টাকা ঘুষ দাবি করেন। এই ঘুষের টাকা দিয়ে তাদেরকে নিয়োগ প্রদান করা হবে বলে জানিয়ে দেয়। এর মধ্যে গোপনে আব্দুল আজিজ নামে এক অযোগ্য ব্যক্তির কাছ থেকে ২০লাখ টাকা নিয়ে তাকে প্রধান শিক্ষক হিসেবে নিয়োগ প্রদানের জন্য ২৪ মার্চ নিয়োগ বোর্ডের দিন ধার্য করে। এবং তাকে নিয়োগ প্রদানের জন্য পায়তারা করছে। বিষয়টি হাবিবুর রহমান লিখিতভাবে জেলা শিক্ষা কর্মকর্তার নিকট অভিযোগ করেন।

এদিকে বিষয়টি নিয়ে তালবাহানা করায় প্রধান শিক্ষক পদে দরখাস্তকারী হাবিবুর রহমান কলারোয়ার সিনিয়র সহকারী জজ আদালতে ধানদিয়া ইউনিয়ন ইন্সটিটিউশন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি সামসুদ্দিন আল মাসুদ, ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক বিকাশ চন্দ্র বৈদ্যসহ ১৮জনকে বিবাদী করে একটি মামলা দায়ের করেন। যার মামলা নং-২৫/১৮।

এদিকে সেল ফোনে ধানদিয়া ইউনিয়ন ইন্সটিটিউশন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি সমসুদ্দিন আল মাসুদ সাংবাদিকদের জানান, তার স্কুলে এ ধরণের কোন ঘটনা জানা নেই। তিনি কারোর কাছে ঘুষ দাবি করেন নি।