বাঁশদহায় আ.লীগ নেতার বিরুদ্ধে ভূয়া প্রকল্প দেখিয়ে ১০লক্ষ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ


প্রকাশিত : মার্চ ৩০, ২০১৮ ||

 

মনিরুল ইসলাম মনি: সদর উপজেলা ১নং বাঁশদহা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মাষ্টার মফিজুল ইসলামের বিরুদ্ধে সরকারি কাবিটা ও টিআরের ১০ লক্ষ টাকা ভূয়া প্রকল্প দেখিয়ে আত্মসাতের অভিযোগ উঠেছে। এলাকাবাসি সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক বরাবর লিখিতভাবে এ অভিযোগ করেছেন। অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে বাঁশদহা ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের পাঁচরকি গ্রামের পুর্বপাড়া ইটের সোলিংয়ের মুখ হতে সাহাজদ্দীনের ডিপ পযর্ন্ত মাটির রাস্তার সংস্কারের নামে কাজ না করে ১০লক্ষ টাকা আত্মসাত করেছেন ওই মাষ্টার। এছাড়া ২০১৭-২০১৮ অর্থ বছরে একই এলাকায় কাউনডাঙ্গা মিজানের খেজুর বাগান হতে লুৎফরের বাড়ি পযর্ন্ত মটিররাস্তা সংস্কারের নামে কাজ না করে তিন লক্ষ টাকা আত্মসাত করেছেন। টিআরের ৩নং ওয়ার্ডের আজাহারুলের বাড়ি থেকে মজিদের বাড়ি পযর্ন্ত রাস্তা সংস্কারের ভূয়া প্রকল্প দেখিয়ে দুই লক্ষ ৩৭ হাজার টাকা কাজ না করে তুলে নিয়েছেন। ২নং ওয়ার্ডে ৪০দিনের হতদরিদ্র কর্মসুচির লোক দিয়ে কাজ করে একই রাস্তায় ভূয়া প্রকল্প দেখিয়ে ৩ লক্ষ টাকা ৯৭ হাজার টাকা তুলেছেন। এইসব ভূয়া প্রকল্পের টাকা তুলে প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা পিআইও জালাল উদ্দিন এবং সদর এমপির প্রতিনিধি বাঁশদহা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মাষ্টার মফিজুল ইসলাম ভাগবাটোয়ারা করে নিয়েছেন বলে অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে। এসব অভিযোগের বিষয়ে বাঁশদহা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মাষ্টার মফিজুল ইসলাম বলেন, যে অভিযোগ জেলা প্রশাসক বরাবর করা হয়েছে তা সঠিক নয়।